previous arrow
next arrow
previous arrownext arrow
Slider
Loading...
আপনি এখানে  প্রচ্ছদ  >  শায়েস্তাগঞ্জ  >  বর্তমান নিবন্ধ

শায়েস্তানগর পইল রোডটি যেন মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ খোয়াই নদীর বালুবাহী ট্রাক্টরের কারণে কিছুদিন যেতে না যেতেই রাস্তাটি আবার ভেঙে গর্ত হয়ে মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে

 জুন ১৬, ২০২০  /  কোন মন্তব্য নাই

এম এ রাজাঃ হবিগঞ্জ সদর উপজেলার ৯ নং ওয়ার্ডে শায়েস্তানগর থেকে মাছুলিয়া ব্রিজ পর্যন্ত রাস্তাটি দীর্ঘদিন ধরে ভেঙেচুরে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়ে মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ এই রাস্তাটি দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে খোয়াই নদী থেকে বালু উত্তোলন করে ট্রাক্টর দিয়ে সারা শহরে বালু সাপ্লাই দেওয়া হয়। এতে করে এই এক কিলোমিটার রাস্তাটি বছরের বারোমাসই ভাঙাচোরা থাকে।


নামে মাত্র ১-২ বার এই রাস্তাটি সংস্কার করা হয়েছে। কিন্তু স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ খোয়াই নদীর বালুবাহী ট্রাক্টরের কারণে কিছুদিন যেতে না যেতেই রাস্তাটি আবার ভেঙে গর্ত হয়ে মরণফাঁদে পরিণত হয়। অথচ এই রাস্তাটি শায়েস্তা নগরসহ এরালিয়া, নাজিরপুর,পইল, পাইকপাড়া আটঘরিয়া গ্রামের মানুষের হবিগঞ্জ শহরে প্রবেশের একমাত্র মাধ্যম রাস্তাটি দীর্ঘদিন ধরে বেহাল দশার কারণে এই ৫-৬ টি গ্রামের প্রায় লক্ষাধিক মানুষের চলাফেরায় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। স্থানীয় বাসিন্দা রমজান আলী অভিযোগ করে বলেন প্রতিদিনই ভাঙ্গাচুরা রাস্তার কারণে ছোট-বড় দুর্ঘটনা করছে। এ যেন দেখার কেউ নেই সচেতন মহলের দাবি এই রাস্তাটি যেন দ্রুততম সময়ের মধ্যে সংস্কার যেন করা হয়।

 

এ বিষয়ে ৯ নং ওয়ার্ড কমিশনার উমেদ আলী শামীমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি আমার হবিগঞ্জ প্রতিনিধিকে জানান এই রাস্তাটি মূলত এলজিইডির পৌরসভার নয়,পৌরসভার হলে পৌরসভার অর্থায়নে রাস্তাটি মেরামত করে দেওয়া হতো। তারপরও আমি ৯ নং ওয়ার্ডের কমিশনার হওয়াতে এলজিইডির সাথে যোগাযোগ করেছি তারা আমাদের কথায় তেমন একটা কর্ণপাত করেন না।

 

এ বিষয়ে আমরা কথা বলেছি মোঃ এমদাদুল হক উপ-সহকারী প্রকৌশলী এলজিইডি তিনি জানান,প্রায় ছয় বছর আগে এই রাস্তাটি সংস্কার করা হয়েছিল কিন্তু কিছুদিন পরেই আবার ভেঙেচুরে গর্ত হয়ে যায়। এর পিছনে কারণ হিসেবে উল্লেখ করেন,পৌরসভার ড্রেন থেকে থেকে রাস্তা ডালু অল্প বৃষ্টিতেই পানি জমে যায়, আরেক সমস্যা স্থানীয় বাসিন্দারা ড্রেনের উপরে ছ্যাপ পেলাতে বৃষ্টির পানি নিষ্কাশনে বাধা সৃষ্টি করছেন। এতে করে রাস্তায় পানি জমে থাকে তার ওপর বড় সমস্যা হচ্ছে, এই রাস্তাটি দিয়ে প্রতিনিয়ত বালিবাহী ট্রাক্টর চলাচল করে। যার জন্য অল্পদিনেই রাস্তা ভেঙে যায়।

তিনি আরো জানান শায়েস্তানগরের এই রাস্তাটির ভাঙ্গা অংশ প্রায় ২০০ ফুট আমরা সংস্কার করব। তার জন্য ভালো মানের পাথর খুজতেছি, ভালো মানের পাথর পেলেই আমরা কাজে হাত দিব। এখন এই রাস্তায় যাতায়াতকারীদের দেখার পালা এলজিইডি কর্তৃপক্ষ ভালো মানের পাথর পেতে কতদিন লাগে।

  • প্রকাশক ও সম্পাদকঃ সুশান্ত দাস গুপ্ত

  • যেভাবে নিউজ পাঠাবেন

    নিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ news@amarhabiganj.com এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই হবিগঞ্জ সম্পর্কিত হতে হবে।

  • জরুরী নোটিশ

    দৈনিক আমার হবিগঞ্জ এর প্রতিটি নিউজ ১০০ ভাগ মৌলিক। যদি কোন সংবাদকর্মী অন্য কারো বা অন্য কোন নিউজ কপি করেন এবং সেটা প্রমানিত হয় তাহলে তাকে বিনা নোটিশে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ থেকে বরখাস্ত করা হবে এবং যথারীতি আইনী প্রক্রিয়ার আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

You might also like...

শায়েস্তাগঞ্জে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে ৯ লক্ষাধিক টাকার চেক হস্তান্তর

আরও পড়ুন →

This function has been disabled for Amar Habiganj-আমার হবিগঞ্জ.

Don`t copy text!