previous arrow
next arrow
previous arrownext arrow
Slider
Loading...
আপনি এখানে  প্রচ্ছদ  >  মতামত  >  বর্তমান নিবন্ধ

“করোনায় বিকল্প চিন্তা”

করোনায় আমাদের অর্থনীতি, রাজনীতি সব নীতি প্যারালাইজড হয়ে গেছে! এখন প্রশ্ন হচ্ছে আমরা কি বেঁচে থাকার জন্য অলটারনেটিভ চিন্তা করবো না?

 জুন ২, ২০২০  /  কোন মন্তব্য নাই

মন্তব্য প্রতিবেদন :  আমরা যখন অসুস্থ হয়ে হাসপাতালের বেডে মরার মত শুয়ে থাকি তখন আমাদের খাবার দাবার কেমন করে চলে? জ্বী হ্যাঁ, ডাক্তার সাহেবরাই আমাদের স্যালাইন দিয়ে কিংবা নাকের ভিতরে নল দিয়ে পাকস্থলি পর্যন্ত পৌঁছে দেন যাতে খাবারের অভাবে আমাদের মৃত্যু না হয়!
করোনায় আমাদের কি হয়েছে? হ্যাঁ, করোনায় আমাদের অর্থনীতি, রাজনীতি সব নীতি প্যারালাইজড হয়ে গেছে! এখন প্রশ্ন হচ্ছে আমরা কি বেঁচে থাকার জন্য অলটারনেটিভ চিন্তা করবো না? হাত থাকলে হাত দিয়ে ভাত খাই আর যদি না থাকতো? তখন অবশ্যই একটা না একটা বিকল্প বের হয়ে আসতো? আসতো না? অবশ্যই আসতো কারণ আমরা জানি “necessity is the mother of invention”
এসব কেন বলছি? আজকে খবরে দেখলাম মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন, “No HSC exam until situation turns normal” করোনা আমাদের জীবনে কত বছরের জন্য আসছে তা আমরা কেউ জানি না! করোনাকে পাশাপাশি রেখেই জীবন চালাতে হবে! তাই আমি মনে করি, এখনই আমাদের সময় এসেছে দেশের সকল পাবলিক পরীক্ষার অলটারনেটিভ চিন্তা করতে। কি হতে পারে সেই অলটারনেটিভ?


দেশে ডিজিটাল হয়ে গেছে, ডিজিটাল পদ্ধতিতে শিক্ষার্থীদের ক্লাশ নেয়া হচ্ছে তাহলে পাবলিক পরীক্ষাগুলো কি ডিজিটাল হতে পারে না? SSC এবং HSC পরিক্ষা অনলাইনে নেয়ার ব্যবস্থা করুন। হিউজ ডাটাবেইসের এমসিকিউ টাইপের প্রশ্নব্যাংক করুন। সেখানে প্রত্যেক পরিক্ষার্থীদের জন্য সেই ডাটাবেস থেকে আলাদা আলাদা প্রশ্ন সিলেক্ট হয়ে আসবে অটোমেটিক কারো প্রশ্ন কারো সাথে মিলবে না। যেহেতু পরিক্ষা অনলাইনে নিলে যন্ত্রপাতির ঘাটতি থাকতে পারে সেহেতু পরীক্ষা একই দিনে না নিয়ে একটা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত নেয়া যেতে পারে সেটা হতে পারে ১/৩ দিন। এই ১/৩ দিনের ভিতরে পরিক্ষার্থী তার সুবিধামত সময়ে অনলাইনে রোল ও রেজিস্ট্রেশন নাম্বার দিয়ে লগ-ইন করে পরিক্ষা দিয়ে দিতে পারবে। পরিক্ষা হবে নির্দিষ্ট সময়ের যেমন ধরেন ১০০ MCQ হলে ১০০ মিনিট এভাবে। দেশের যেখানে কম্পিউটার ও ইন্টারনেট নাই সেখানে শুধু সেখানে এগুলোর ব্যবস্থা করলেই চলবে।
অবাক হওয়ার কিছু নেই বিশ্বের অনেক বড় বড় কোয়ালিফিকেশনের পরিক্ষা অনলাইনেই হয় এবং এমসিকিউ টাইপেরই! যেমন ACCA, CIMA etc.
এখন প্রশ্ন হলো অনলাইন পরীক্ষায় নকল কিভাবে ঠেকাবেন? ইজি! পরীক্ষা নিবেন অনলাইনে সেখানে পরীক্ষা ওয়েবক্যামে অডিও সহ রেকর্ড হবে। পরীক্ষা শেষে ভিডিওসহ ফাইল সাবমিশন হবে এবং সেগুলো পরিক্ষা করা হবে একটা বিশেষ সফটওয়্যারের মাধ্যমে! যদি কেউ পরীক্ষায় সাহায্য নিয়ে থাকে সেগুলো ডিটেক্ট করবে এবং হিউম্যান রিভিউ করবে আর ঐ পরীক্ষার্থীর পরিক্ষা বাতিল হয়ে যাবে।
যেহেতু পরীক্ষা অনলাইনে নিচ্ছেন তাহলে রেজাল্ট দিতেও সর্বোচ্চ ১ সপ্তাহ সময় লাগবে। পরিক্ষার খাতা চেক করার জন্য টাকা খরচও করা লাগবে না। সরকারী টাকাও সেইভ হবে।
আসুন, করোনায় জীবন স্থবির না করে বিকল্প চিন্তা করি।

লেখক: সুমন দেবনাথ
লন্ডন প্রবাসী সাংবাদিক ও অনলাইন এক্টিভিষ্ট।

  • প্রকাশক ও সম্পাদকঃ সুশান্ত দাস গুপ্ত

  • যেভাবে নিউজ পাঠাবেন

    নিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ news@amarhabiganj.com এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই হবিগঞ্জ সম্পর্কিত হতে হবে।

  • জরুরী নোটিশ

    দৈনিক আমার হবিগঞ্জ এর প্রতিটি নিউজ ১০০ ভাগ মৌলিক। যদি কোন সংবাদকর্মী অন্য কারো বা অন্য কোন নিউজ কপি করেন এবং সেটা প্রমানিত হয় তাহলে তাকে বিনা নোটিশে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ থেকে বরখাস্ত করা হবে এবং যথারীতি আইনী প্রক্রিয়ার আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

You might also like...

নতুন প্রজন্ম নিয়ে ভাবনা

আরও পড়ুন →