previous arrow
next arrow
previous arrownext arrow
Slider
Loading...
আপনি এখানে  প্রচ্ছদ  >  লাখাই  >  বর্তমান নিবন্ধ

লাখাইয়ে গুজবের ছড়াছড়ি : আতঙ্কে রয়েছেন এলাকাবাসী 

এ প্রসঙ্গে মোড়াকরি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ফয়সল মোল্লা বলেন, ‘ সরকার এবং আমাকে বিতর্কিত করার জন্যই তালিকা বাতিল হয়েছে মর্মে স্বাধীনতা বিরোধী  সিন্ডিকেট গুজব ছড়ানোর চেষ্টা করে। যা ইতোমধ্যে আপনারা জেনেছেন সম্পূর্ণ ভূয়া ও গুজব।

 মে ২০, ২০২০  /  কোন মন্তব্য নাই

লাখাই প্রতিনিধি:  সামাজিক মনোবিজ্ঞানী গর্ডন অলপোর্ট এবং লিও পোস্টম্যান যথার্থই বলেছেন, “প্রতিটি গুজবেরই শ্রোতা থাকে।’ একটু খেয়াল করলে দেখা যাবে, ঐতিহাসিকভাবে প্রতিটি মহামারীর সময় গুজব এবং ষড়যন্ত্র তত্ত্ব ব্যাপকভাবে বিস্তার লাভ করেছে।যা সমাজে ব্যাপক অস্থিতিশীল,বিশৃঙ্খল অবস্থা তৈরী করে।”
তবে যুগের পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে এ গুজব বিস্তারের মাধ্যমেও এসেছে পরিবর্তন। এখন মানুষের মুখে মুখে ছড়ানোর পরিবর্তে গুজবের মাধ্যম হিসেবে ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়া।
সাম্প্রতিক সময়ে করোনা পরিস্তিতি মোবাবেলায় সরকারি ত্রান বিতরেনে অনিয়ম থেকে শুরু করে প্রধানমন্ত্রীর তহবিলে অর্থ সহায়তা তহবিলে অনিয়মে মলাই কান্ডে সারা দেশে আলেচনার শীর্ষে হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলা।
 আর এ সুযোগে কিছু অসাধু, সুযোগ সন্ধানী ব্যক্তি প্রতিপক্ষ জনপ্রতিনিধিদের ঘায়েল করতে ব্যবহার করছে গুজব অস্ত্র।
সম্প্রতি গুজব কান্ডে সমগ্র লাখাইয়ে তৈরী হয়েছে ধুম্রজাল। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন ভূয়া একাউন্ট ব্যবহার করে জনপ্রতিনিধিদের বিরুদ্ধে ত্রান বিতরনের অনিয়মের গুজব রটিয়ে জনমনে আতঙ্কের সৃষ্টি করছে বলে অভিযোগ পাওয়া যায়।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, জনপ্রতিনিধিদের সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার লক্ষ্যে গত দুদিনে বিভিন্ন ভূয়া একাউন্টের মাধ্যমে কোন রকম তথ্য উপাত্ত ছাড়াই  বামৈ এবং ২নং মোড়াকরি সহ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে অনিয়মের অভিযোগ তুলে গুজব রটানোর চেষ্টা করে কতিপয় অসাধু ব্যক্তিবর্গ। স্থানীয় এলকাবাসী মনে করছে এসব গুজব যেকোন সময় ডেকে আনতে পারে ভয়াবহ সংঘর্ষ।
গুজব বিস্তার রোধে লাখাই উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক খাইরুদ্দিন আহমেদ সামাজিক যোগাযোগ  মাধ্যমে বামৈ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এনামুল হক কে উদ্দেশ্য করে লিখেন,  আপনার (এনামুল হক,বামৈ ইউ/পি চেয়ারম্যান) নিরলস প্রচেষ্টায় সৎ সাহস নিয়ে এগিয়ে যান।নিন্দুকের কথা কান  দেওয়ার প্রশ্ন ই উঠে না।আপনার ফ্যামিলি সম্পর্কে সবাই জানে। কিছু মানুষ আছে যদি আপনার কলিজা রান্না করে খাওয়াতে চান  তবুও বলবে  তাদের লবনে কম হয়েছে!
এছড়াও তিনি যাদের নাম বাদ পড়েছে তাদের ভুল না বুঝিয়ে দেশের স্বার্থে এগিয়ে আসার আহবান জানান।
ইতোমধ্যে লাখাই উপজেলায় গুজবের রাজধানীতে পরিণত হয়েছে ২নং মোড়াকরি ইউনিয়ন। এ ইউনিয়নে গুজব বিস্তারে রীতিমত এলাহী কান্ড।
জানা যায়, মোড়াকরি ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রীর ত্রান তহবিলের অার্থিক প্রনোদনার পূর্ণাঙ্গ চূড়ান্ত তালিকা তৈরীর পূর্বেই চেয়ারম্যানের সাক্ষর বিহীন একটি তালিকা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন ভূয়া একাউন্টের মাধ্যমে ভাইরাল করে এবং তালিকা বাতিল হয়েছে বলে গুজব ছড়ানোর চেষ্টা করে স্থানীয় ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত যুদ্ধাপরাধী লিয়াকত আলীর ছোট ভাই মোজাহিদ মিয়া সহ পরিবারের সদস্যরা।
মোড়াকরি ইউনিয়নের তালিকা বাতিল হয়েছে কিনা জানতে চাইলে ডেপুটি ডিরেক্টর অব লোকাল গভর্নমেন্ট  (D.D LG) জানান,  ‘মোড়াকরি ইউনিয়নের তালিকা বাতিলের সংবাদটি সম্পূর্ণ ভূয়া এবং মোড়াকরি ইউনিয়ের তালিকা বাতিল হয় নি।’
এ প্রসঙ্গে মোড়াকরি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ফয়সল মোল্লা বলেন, ‘ সরকার এবং আমাকে বিতর্কিত করার জন্যই তালিকা বাতিল হয়েছে মর্মে স্বাধীনতা বিরোধী  সিন্ডিকেট গুজব ছড়ানোর চেষ্টা করে। যা ইতোমধ্যে আপনারা জেনেছেন সম্পূর্ণ ভূয়া ও গুজব। তালিকা প্রস্তুত করা হয় ওয়ার্ড ভিত্তিক কারণ প্রকৃত দরিদ্র মানুষদের নিয়ে সরাসরি কাজ করেন মেম্বাররা। এ ছাড়া তালিকা প্রণয়নের কমিটিতে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের রাখা হয়েছে।’
তিনি আরো উল্লেখ করেন, আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন আসন্ন বিধায় আমার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে যারা কোন সুনির্দিষ্ট তথ্য ছাড়াই তালিকা বাতিল হয়েছে বলে ষড়যন্ত্রমূলক ভাবে অপপ্রচার চালাচ্ছেন এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ত্রান ও নগদ অর্থ বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনায় বাধা সৃষ্টির অপচেষ্টায় লিপ্ত সেসব ফেসবুক একাউন্টের বিরুদ্ধে খুব শীঘ্রই আইসিটি আইনের আওতায় মামলার মাধ্যমে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে। আর এসব গুজব রটনায় ভূয়া একাউন্ট গুলোর মধ্যে অন্যতম দৈনিক লাখাই,লাখাইয়ের বার্তা,লাখাই আমার স্বপ্ন, মাদক মুক্ত লাখাই চাই, লাখাই উপজেলার সকল খবর ” উল্ল্যেখযোগ্য।
মনিরুল ইসলাস সোহাগ নামে এক শিক্ষার্থী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জানান, ‘নিজেদের মধ্যে রাজনৈতিক দন্ধের কারণে অনেক জনপ্রতিনিধি বিতর্কিত হচ্ছে।বিতর্কিত পরিবেশ করে যাচ্ছে হাইব্রিড, অনুপ্রবেশকারী, সাম্প্রদায়িক মনোভাবি, যুদ্ধাপরাধী পরিবার প্রত্যেক্ষ এবং পরোক্ষভাবে।’
স্থানীয় সচেতন জনগন মনে করেন এসব গুজব বিস্তার রোধ করা না গেলে যেকোন সময় ভয়াবহ সংঘর্ষের সৃষ্টি হতে পারে ।
উল্লখ্য, সারা দেশে আলোচিত মলাই কান্ডের পর লাখাই ফের আলোচনায় আসে যুবলীগ নেতা উজ্জ্বল কর্তৃক সাড়ে ৩ টন চাল অাত্মসাতের ঘটনায়।
  • প্রকাশক ও সম্পাদকঃ সুশান্ত দাস গুপ্ত

  • যেভাবে নিউজ পাঠাবেন

    নিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ news@amarhabiganj.com এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই হবিগঞ্জ সম্পর্কিত হতে হবে।

  • জরুরী নোটিশ

    দৈনিক আমার হবিগঞ্জ এর প্রতিটি নিউজ ১০০ ভাগ মৌলিক। যদি কোন সংবাদকর্মী অন্য কারো বা অন্য কোন নিউজ কপি করেন এবং সেটা প্রমানিত হয় তাহলে তাকে বিনা নোটিশে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ থেকে বরখাস্ত করা হবে এবং যথারীতি আইনী প্রক্রিয়ার আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

You might also like...

লাখাইয়ে বামৈ সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে ভুয়া শিক্ষক নিবন্ধন সনদে নিয়োগের অভিযোগ

আরও পড়ুন →