নবীগঞ্জে কিশোরী অপহরণ : থানায় অভিযোগ দায়ের
রাত পোহালেই দুই উপজেলার ২১টি ইউনিয়নে শুরু হবে ভোটের লড়াই
বানিয়াচংয়ে পুলিশের অভিযানে পরোয়ানাভূক্ত ৭ আসামী গ্রেফতার
শায়েস্তাগঞ্জে প্রতিবন্ধী হারুনের স্বপ্ন পূরণ : পেল সরকারি ঘর
নবীগঞ্জের পানিউমদা ইউনিয়নে চাচা-ভাতিজার লড়াই : নির্বাচনী হালচাল-১৩
বানিয়াচংয়ে ভুমিহীনের জায়গা দখল পেতে ডিসি’র বরাবরে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানের আবেদন
নবীগঞ্জে অবৈধভাবে পাখি শিকার ও বিক্রয়ের দায়ে কারাদন্ড প্রদান
নবীগঞ্জের কালিয়ারভাঙ্গা ইউনিয়নে ত্রিমুখী লড়াইয়ের সম্ভাবনা : নির্বাচনী হালচাল-১২
শায়েস্তাগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ৪ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা
চুনারুঘাটে শিক্ষক-সাংবাদিকদের মাঝে বঙ্গবন্ধু সুরক্ষা বীমা হস্তান্তর অনুষ্ঠিত 
হবিগঞ্জে ২১জন শিক্ষার্থী পেল শাপলা কাপ অ্যাওয়ার্ড
কৃষকের ন্যায্য অধিকার দিতে সরকার বদ্ধ পরিকর : আবুল কাশেম চৌধুরী
মাধবপুরে কৃষকদের মাঝে প্রণোদনার সার ও বীজ বিতরণ
মাধবপুরে গৃহহীন পরিবারকে জমি দান করলেন তাঁতী লীগ নেতা
হবিগঞ্জ চেম্বার অব কমার্সে বাড়ছে ভূয়া সদস্য : অভিযোগের তদন্ত সম্পন্ন
previous arrow
next arrow
নবীগঞ্জে কিশোরী অপহরণ : থানায় অভিযোগ দায়ের
রাত পোহালেই দুই উপজেলার ২১টি ইউনিয়নে শুরু হবে ভোটের লড়াই
বানিয়াচংয়ে পুলিশের অভিযানে পরোয়ানাভূক্ত ৭ আসামী গ্রেফতার
শায়েস্তাগঞ্জে প্রতিবন্ধী হারুনের স্বপ্ন পূরণ : পেল সরকারি ঘর
নবীগঞ্জের পানিউমদা ইউনিয়নে চাচা-ভাতিজার লড়াই : নির্বাচনী হালচাল-১৩
বানিয়াচংয়ে ভুমিহীনের জায়গা দখল পেতে ডিসি’র বরাবরে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানের আবেদন
নবীগঞ্জে অবৈধভাবে পাখি শিকার ও বিক্রয়ের দায়ে কারাদন্ড প্রদান
নবীগঞ্জের কালিয়ারভাঙ্গা ইউনিয়নে ত্রিমুখী লড়াইয়ের সম্ভাবনা : নির্বাচনী হালচাল-১২
শায়েস্তাগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ৪ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা
চুনারুঘাটে শিক্ষক-সাংবাদিকদের মাঝে বঙ্গবন্ধু সুরক্ষা বীমা হস্তান্তর অনুষ্ঠিত 
হবিগঞ্জে ২১জন শিক্ষার্থী পেল শাপলা কাপ অ্যাওয়ার্ড
কৃষকের ন্যায্য অধিকার দিতে সরকার বদ্ধ পরিকর : আবুল কাশেম চৌধুরী
মাধবপুরে কৃষকদের মাঝে প্রণোদনার সার ও বীজ বিতরণ
মাধবপুরে গৃহহীন পরিবারকে জমি দান করলেন তাঁতী লীগ নেতা
হবিগঞ্জ চেম্বার অব কমার্সে বাড়ছে ভূয়া সদস্য : অভিযোগের তদন্ত সম্পন্ন
previous arrow
next arrow
Loading...
আপনি এখানে  প্রচ্ছদ  >  বানিয়াচং  >  বর্তমান নিবন্ধ

বানিয়াচংয়ে প্রেমিকার সাথে গোপন অভিসারে লিপ্ত হতে গিয়ে পল্লী চিকিৎসক ধরাশায়ী

২ লাখ ৮০ হাজার টাকার কাবিন দিয়ে অবশেষে বিয়ে

 অক্টোবর ২৩, ২০২১  /  কোন মন্তব্য নাই

স্টাফ রিপোর্টার :  বানিয়াচংয়ে রাতের আধারে প্রেমিকার সাথে গোপন অভিসারে লিপ্ত হয়ে গিয়ে এলাকাবাসীর হাতে ধরাশায়ী হয়েছেন বানিয়াচং নতুন বাজারের পল্লী চিকিৎসক রুকু মিয়া।

 

গত শুক্রবার (২২অক্টেবর) রাত সাড়ে নয়টার দিকে বানিয়াচং সদরে ৪নং দক্ষিণ-পশ্চিম ইউনিয়নের শরীফখানী মহল্লার ৮নং ওয়ার্ডের তিলক রাম রায়ের পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

 

ধরাশায়ী পল্লী চিকিৎসক ওই ইউনিয়নের পাঠানটুলা মহল্লার ফার্নিচার ব্যবসায়ী মুনাফ উল্লার পুত্র ও কথিত মানবাধিকারকর্মীর ছোট ভাই।

 

সুত্র জানায়,সুচতুর পল্লী চিকিৎসক রুকু মিয়ার একটি ঔষধের দোকান রয়েছে কাছারি মাঠে পূর্ব দিকে। তার দোকানে ঔষধ কিনতে আসেন শরীফখানী মহল্লার মৃত আব্দুল মন্নান মিয়ার কন্যা রুনা আক্তার। ঔষধ কেনার নাম করে দোকানে প্রায় ই আসা-যাওয়া করতো সে। এক পর্যায়ে পল্লী চিকিৎসক রুকু মিয়ার ও রুনা আক্তারের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। দুইজনের মধ্যে মোবাইলের মাধ্যমে দিনের পর দিন চলে মন দেয়া নেয়া।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

ছবি : প্রেমিকার বাড়িতে আটকের সময় মোবাইল হাতে প্রেমিক পল্লী চিকিৎসক রুকু মিয়া

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

তাদের এই সম্পর্ক স্থায়ী হয় প্রায় তিন বছর। ঘটনার দিন রুকু মিয়া শরীফখানীর রুনা আক্তারের বাড়িতে যায় দেখা করতে। একপর্যায়ে তারা দুইজন গোপন অভিসারে লিপ্ত হওয়ার চেষ্টাকালে বাড়ির লোকজন ঠের পেয়ে রুকু মিয়াকে আটক করে।

 

পরে খবর দেয়া হয় ওই ওয়ার্ডের মেম্বার মামুন মিয়াকে। এরই ফাঁকে সেখানে উপস্থিত হন চেয়ারম্যান প্রার্থী মোয়াজ্জেম মিয়া। রাতের বেলা আসার কারণ জিজ্ঞেস করলে রুকু মিয়া একেক সময় একেক কথাবার্তা বলে। খবর পেয়ে রুকু মিয়ার এক বোন ও ফুফা এসে হাজির হন।

 

বিষয়টি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে শতশত মানুষ ভীড় করে ঘটনাস্থলে। মেয়ের মান সম্মানের কথা ভেবে উপস্থিত গণ্যমান্য ব্যক্তিদের পরামর্শে রুকু মিয়াকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়া হয়। কোন উপায় না পেয়ে রুকু মিয়া প্রথমে বিয়েতে রাজি হয়ে যায়।

 

পরে শুরু হয় কনে সাজানোর জন্য কেনাকাটা। কনের জন্য বিয়ের আনুষঙ্গিক কাপড়চোপড় কিনে নিয়ে আসেন উভয় পক্ষের লোকজন। বিয়ে পড়ানোর জন্য খবর দিয়ে নিয়ে আসা হয় ইউনিয়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত কাজীকেও।

 

এমতাবস্থায় হুট করে রুকু মিয়া বিয়ে করবে না বলে জানায়। তখন উত্তেজিত মেয়ের পরিবারের লোকজন রুকু মিয়াকে হালকা উত্তম-মধ্যম দেন। সিদ্ধান্ত হয় তাকে পুলিশে সোপর্দ করার। পরবর্তীতে রুকু মিয়ার মা ও বড় ভাইকে খবর দিয়ে নিয়ে আনা হয়। পরে উভয়পক্ষের দীর্ঘ প্রায় সাড়ে ৪ ঘন্টা আলোচনার পর সিদ্ধান্ত নেয়া হয় বিয়ে করানোর। অবশেষে রাত সাড়ে ৩ টার দিকে পুনরায় কাজী এনে ২ লাখ ৮০ হাজার টাকার দেন মোহরে বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হন পল্লী চিকিৎসক রুকু মিয়ার ও তার প্রেমিকা রুনা আক্তার।

 

বিষয়টি দুই গ্রামের ছড়িয়ে পড়লে মুখরোচক ও রসালো আলোচনার সৃষ্টি হয়েছে। দৈনিক আমার হবিগঞ্জকে সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ওয়ার্ড মেম্বার মামুন মিয়া।

 

আরেকটি সুত্র জানায়,রুকু মিয়ার প্রেমিকা রুনা আক্তার ছাড়াও তার আরো একাধিক প্রেমিকা রয়েছে। এমনকি ঘটনার সময় আরেকজন প্রেমিকা তার মা কে সাথে নিয়ে এসে রুকু মিয়াকে গালিগালাজও করে গেছে। এছাড়াও পল্লী চিকিৎসক রুকু মিয়ার বিরুদ্ধে ফার্মেসি ব্যবসার আড়ালে বিভিন্ন জায়গা থেকে আসা সহজ সরল মহিলাদের সাথে চিকিৎসার নামে অনৈতিক কর্মকান্ড চালিয়ে আসার অভিযোগ রয়েছে বলে আশেপাশের ব্যবসায়ীরা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 

  • প্রকাশক ও সম্পাদকঃ সুশান্ত দাস গুপ্ত

  • Sushanta.D.Gupta-Facebook

    Facebook Pagelike Widget
  • যেভাবে নিউজ পাঠাবেন

    নিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ news@amarhabiganj.com এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই হবিগঞ্জ সম্পর্কিত হতে হবে।

  • জরুরী নোটিশ

    দৈনিক আমার হবিগঞ্জ এর প্রতিটি নিউজ ১০০ ভাগ মৌলিক। যদি কোন সংবাদকর্মী অন্য কারো বা অন্য কোন নিউজ কপি করেন এবং সেটা প্রমানিত হয় তাহলে তাকে বিনা নোটিশে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ থেকে বরখাস্ত করা হবে এবং যথারীতি আইনী প্রক্রিয়ার আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

You might also like...

বানিয়াচংয়ে পুলিশের অভিযানে পরোয়ানাভূক্ত ৭ আসামী গ্রেফতার

আরও পড়ুন →

This function has been disabled for Amar Habiganj-আমার হবিগঞ্জ.

Don`t copy text!