চুনারুঘাটে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান : ৩ টি করাত কল জব্দ
বাহুবলে ৭০ শতাংশ ভর্তুকি মূল্যে কৃষি যন্ত্রপাতি বিতরণ
নবীগঞ্জে ১৩ ইউনিয়নে নৌকা পেলেন যারা
মাধবপুরে ৮৪ টি প্রাথমিক বিদ্যালয় দপ্তরি কাম নাইটগার্ড নেই : কার্যক্রম ব্যাহত
চুনারুঘাটে ৪ টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ
মাধবপুরে দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ : নিহত ২ জন
বাহুবলে ভোট কেন্দ্র স্থানান্তরে স্থানীয়রা হতাশ
করাঙ্গীনিউজের ১৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন
বাহুবল অনার্স কলেজের সহঃ অধ্যাপক মোহাম্মদ রকিবের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ
চুনারুঘাটে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করল উপজেলা প্রশাসন
চুনারুঘাটে ইদুর নিধন অভিযান অনুষ্ঠিত
লাখাইয়ে সরকারী খাল ভরাট করে গৃহ নির্মাণ
চুনারুঘাটে কৃষক কৃষাণীদের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত 
চুনারুঘাটে ভ্রাম্যমান আদালতে অভিযান অর্থদণ্ড 
জোবেদা ভিলার ঘটনায় হবিগঞ্জ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড ও জালালাবাদ গ্যাস এর বিরুদ্ধে আদালতের শোকজ
previous arrow
next arrow
চুনারুঘাটে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান : ৩ টি করাত কল জব্দ
বাহুবলে ৭০ শতাংশ ভর্তুকি মূল্যে কৃষি যন্ত্রপাতি বিতরণ
নবীগঞ্জে ১৩ ইউনিয়নে নৌকা পেলেন যারা
মাধবপুরে ৮৪ টি প্রাথমিক বিদ্যালয় দপ্তরি কাম নাইটগার্ড নেই : কার্যক্রম ব্যাহত
চুনারুঘাটে ৪ টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ
মাধবপুরে দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ : নিহত ২ জন
বাহুবলে ভোট কেন্দ্র স্থানান্তরে স্থানীয়রা হতাশ
করাঙ্গীনিউজের ১৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন
বাহুবল অনার্স কলেজের সহঃ অধ্যাপক মোহাম্মদ রকিবের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ
চুনারুঘাটে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করল উপজেলা প্রশাসন
চুনারুঘাটে ইদুর নিধন অভিযান অনুষ্ঠিত
লাখাইয়ে সরকারী খাল ভরাট করে গৃহ নির্মাণ
চুনারুঘাটে কৃষক কৃষাণীদের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত 
চুনারুঘাটে ভ্রাম্যমান আদালতে অভিযান অর্থদণ্ড 
জোবেদা ভিলার ঘটনায় হবিগঞ্জ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড ও জালালাবাদ গ্যাস এর বিরুদ্ধে আদালতের শোকজ
previous arrow
next arrow
Loading...
আপনি এখানে  প্রচ্ছদ  >  হবিগঞ্জ সদর  >  বর্তমান নিবন্ধ

সদর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা দেলোয়ার ও তার সহযোগীর বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটি গঠন

৭ কর্ম দিবেসর মধ্যে কথা থাকলেও ১ মাসেও হয়নি তদন্ত : তথ্য নিয়ে সিভিল সার্জন অফিসের লুকোচুরি

 অক্টোবর ৭, ২০২১  /  কোন মন্তব্য নাই

স্টাফ রিপোর্টার :  দৈনিক আমার হবিগঞ্জ পত্রিকায় সংবাদের পর উৎকোচ গ্রহন করে ভূয়া প্রত্যয়ন দিয়ে আদালত থেকে আসামী জামিনের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করেছে কমিউনিটি বেইজড হেলথ কেয়ার (সিবিএইচসি) কর্তৃপক্ষ।

গত ১২ সেপ্টেম্বর কমিউনিটি ক্লিনিক স্বাস্থ্য সহায়তা ট্রাস্ট্রের লাইন ডাইরেক্টর ডাঃ কাজী হেফায়েত হোসেন স্বাক্ষরিত হবিগঞ্জ সিভিল সার্জনকে দেয়া এক পত্রে এ কমিটি গঠন করা হয়।

এতে বলা হয়, একাধিক মামলা ও চার্জশীট ভুক্ত আসামী থাকার পরও কিভাবে সিএইচসিপি আব্দুর রশিদ বহাল তবিয়তে আছে তা খতিয়ে দেখাসহ আব্দুর রশিদ ও তার সহযোগী হবিগঞ্জ সদর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন চৌধুরীর ভূয়া প্রত্যয়নের বিষয়টি তদন্ত করে পরবর্তী ৭ কর্ম দিবসের মধ্যে লাইন ডাইরেক্টর বরাবরে প্রতিবেদন দাখিল করতে হবে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

ছবি : সিএইচসিপি আব্দুর রশিদ এর ফাইল ছবি

 

 

 

 

 

 

 

 

 

তবে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ঘটনার প্রায় ১ মাস পার হলেও আদৌ দাখিল করা হয়নি তদন্ত প্রতিবেদন।

সুত্র জানায়, তদন্তে ঘটনার সত্যতা উঠে আসলে চাকরি হারাতে পারেন অভিযুক্ত আব্দুর রশিদ ও তার সহযোগী হবিগঞ্জ সদর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন চৌধুরী।

সহকর্মীদের চাকরি বাচাঁতেই প্রকৃত সত্য আড়াল করে তদন্তে নয়- ছয় করে প্রতিবেদন দাখিলের চেষ্টা করছেন তারা। এর আগে মামলা থেকে বাঁচাতে ৫০ হাজার টাকা গ্রহন করে পলাতক আসামীকে অফিস টাইমের বাইরে মিটিং এ দেখিয়ে ভূয়া প্রত্যয়ন করেন উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন চৌধুরী।

 

পরে এ বিষয়টি নিয়ে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হলে নজরে আসে কমিউনিটি বেইজড হেলথ কেয়ার (সিবিএইচসি) কর্তৃপক্ষের।

এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ একেএম মোস্তাফিজুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে, তদন্ত চলছে’। তবে কার কার সমন্বয়ে কমিটি গঠন করা হয়েছে এমন প্রশ্নে তিনি তথ্য এড়িয়ে যান।

এদিকে, ঘটনাটির সুষ্ঠ তদন্ত করে অভিযুক্ত আব্দুর রশিদ ও উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন চৌধুরীর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা না নিলে এ নিয়ে আদালতে মামলা দায়ের করা হবে বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

ছবি : উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন চৌধুরীর ফাইল ছবি

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

উল্লেখ্য, হবিগঞ্জ সদর উপজেলার হাতিরথান গ্রামে চুরি-ছিনতাই ও লুটপাটের ঘটনায় গত ২৬মার্চ হবিগঞ্জ সদর থানায় (জিআর ৪৮/২১) মামলা দায়ের করেন জনৈক গৃহবধু। এ মামলার এজাহার ভুক্ত প্রধান আসামী আব্দুর রশিদ দীর্ঘদিন পালিয়ে থাকলেও অসাধু কর্মকর্তার যোগসাজসে কৌশলে ম্যানেজ করে রাখে হবিগঞ্জ সিভিল সার্জন অফিস।

পরে গত ১লা এপ্রিল হবিগঞ্জ সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন চৌধুরীকে ৫০ হাজার টাকা উৎকোচ দিয়ে ঘটনার সময় অন্যত্র দায়িত্বরত থাকার ভূয়া প্রত্যয়ন গ্রহন করেন তিনি। ভূয়া প্রত্যয়ন দিয়ে হবিগঞ্জ অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন আব্দুর রশিরে আইনজীবি মোহিত চৌধুরী। একজন সরকারী কর্মকর্তার প্রত্যয়নে জামিন অযোগ্য ৩২৬ ধারার চার্জ থাকলেও আব্দুর রশিদকে জামিন দেন আদালত।

 

তবে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন চৌধুরীর দেয়া প্রত্যয়ন পত্রে ফাইল স্বারক নাম্বার এবং কোন অফিস কপি সংরক্ষিত না থাকায় বিষয়টি সন্দেহের সৃষ্টি মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার।

পরে প্রত্যক্ষদর্শী সাক্ষী এবং ছবি-ভিডিও এবং প্রত্যয়ণ পত্রের যাবতীয় বিষয় পর্যালোচনা করে মামলার চার্জশীটে অন্তর্ভুক্ত হয় আব্দুর রশিদ।

শুধু এ মামলাই নয়, ইতিপূর্বে তার বিরুদ্ধে সরকারী ঔষধ বাহিরে বিক্রি, ক্লিনিকে আসা সেবা প্রত্যাশীদের সাথে অসাধু আচরণের অভিযোগও রয়েছে। তার বিরুদ্ধে জিআর ৪৮/২১ এবং মিস ৪২০/২১ দুটি মামলা বিচারাধীন রয়েছে বলে জানা গেছে।

  • প্রকাশক ও সম্পাদকঃ সুশান্ত দাস গুপ্ত

  • Sushanta.D.Gupta-Facebook

    Facebook Pagelike Widget
  • যেভাবে নিউজ পাঠাবেন

    নিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ news@amarhabiganj.com এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই হবিগঞ্জ সম্পর্কিত হতে হবে।

  • জরুরী নোটিশ

    দৈনিক আমার হবিগঞ্জ এর প্রতিটি নিউজ ১০০ ভাগ মৌলিক। যদি কোন সংবাদকর্মী অন্য কারো বা অন্য কোন নিউজ কপি করেন এবং সেটা প্রমানিত হয় তাহলে তাকে বিনা নোটিশে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ থেকে বরখাস্ত করা হবে এবং যথারীতি আইনী প্রক্রিয়ার আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

You might also like...

জোবেদা ভিলার ঘটনায় হবিগঞ্জ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড ও জালালাবাদ গ্যাস এর বিরুদ্ধে আদালতের শোকজ

আরও পড়ুন →

This function has been disabled for Amar Habiganj-আমার হবিগঞ্জ.

Don`t copy text!