হবিগঞ্জ শহরের বাসা দখল নিয়ে সদর থানা ওসি মাসুক আলীর এত আগ্রহ কেন?
হবিগঞ্জ পৌর পাঠাগারে বঙ্গবন্ধু কর্ণার উদ্বোধন
মাধ্যমিক পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের ইউনিক আইডি ভোগান্তিতে ছাত্র অভিভাবক
মাধবপুরের ছাতিয়াইন বাজারে আইএফআইসি ব্যাংকের শাখা উদ্বোধন
মাধবপুরে পূজা কমিটির নেতৃবৃন্দের সাথে পুলিশের সভা
শহরে মুন জেনারেল হাসপাতালে র‍্যাবের অভিযান : জরিমানা আদায়
লাখাইয়ে পানিতে ডুবে দুই বোনের মর্মান্তিক মৃত্যৃ
কে হচ্ছেন হবিগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের কান্ডারী ?
মাধবপুরে অটোরিকশার গ্যারেজগুলো যেন মরণ ফাঁদ : বাড়ছে মৃত্যু 
বাঁচতে চায় লিভার সিরোসিস রোগে আক্রান্ত মাহিদা 
আজমিরীগঞ্জ কাশবনে বাড়ছে দর্শনার্থীদের ভীড়
সুজাতপুর রাস্তার বেহাল দশা : দ্রুত সংস্কারের দাবি
চুনারুঘাটে ১১ প্রবাসীদের সংবর্ধনা দিল সিপাহসালার সাইয়েদ নাসির উদ্দিন (রহ:) মিশন
শিল্পকলা একাডেমিতে শুরু হয়েছে বঙ্গবন্ধু-বাপু ডিজিটাল প্রদর্শনী
‘বিশ্ব নদী দিবস’ উপলক্ষে হবিগঞ্জের খোয়াই নদীতে আয়োজিত “নদী পরিভ্রমণ” কর্মসূচি
previous arrow
next arrow
হবিগঞ্জ শহরের বাসা দখল নিয়ে সদর থানা ওসি মাসুক আলীর এত আগ্রহ কেন?
হবিগঞ্জ পৌর পাঠাগারে বঙ্গবন্ধু কর্ণার উদ্বোধন
মাধ্যমিক পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের ইউনিক আইডি  ভোগান্তিতে ছাত্র অভিভাবক
মাধবপুরের ছাতিয়াইন বাজারে আইএফআইসি ব্যাংকের শাখা উদ্বোধন
মাধবপুরে পূজা কমিটির নেতৃবৃন্দের সাথে পুলিশের সভা
শহরে মুন জেনারেল হাসপাতালে র‍্যাবের  অভিযান : জরিমানা আদায়
লাখাইয়ে পানিতে ডুবে দুই বোনের মর্মান্তিক মৃত্যৃ
কে হচ্ছেন হবিগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের কান্ডারী ?
মাধবপুরে অটোরিকশার গ্যারেজগুলো যেন মরণ ফাঁদ  : বাড়ছে মৃত্যু 
বাঁচতে চায় লিভার সিরোসিস রোগে আক্রান্ত মাহিদা 
আজমিরীগঞ্জ কাশবনে বাড়ছে দর্শনার্থীদের ভীড়
সুজাতপুর রাস্তার বেহাল দশা : দ্রুত সংস্কারের দাবি
চুনারুঘাটে ১১ প্রবাসীদের সংবর্ধনা দিল সিপাহসালার সাইয়েদ নাসির উদ্দিন (রহ:) মিশন
শিল্পকলা একাডেমিতে শুরু হয়েছে বঙ্গবন্ধু-বাপু ডিজিটাল প্রদর্শনী
‘বিশ্ব নদী দিবস’ উপলক্ষে হবিগঞ্জের খোয়াই নদীতে আয়োজিত “নদী পরিভ্রমণ” কর্মসূচি
previous arrow
next arrow
Loading...
আপনি এখানে  প্রচ্ছদ  >  হবিগঞ্জ সদর  >  বর্তমান নিবন্ধ

হবিগঞ্জে বিদ্যুতের ভেলকিবাজি : ঘাটতি নাকি অব্যবস্থাপনা ?

বিদ্যুত না থাকায় তীব্র গরমে মারাত্মক দুর্ভোগ পোহাচ্ছে মানুষ। আর সমস্যার প্রতিকার চাইতে বিদ্যুত অফিসের মোবাইল নম্বরে কল দিয়েও সেবা পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ গ্রাহকদের

 সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২১  /  কোন মন্তব্য নাই

মুহিন শিপনঃ   হবিগঞ্জে বিদ্যুৎ বিভ্রাট তীব্র আকার ধারণ করেছে। এখানে বিদ্যুৎ যাওয়া-আসা আর লোডশেডিং নিত্যদিনের ঘটনা। কখনো ঘোষণা দিয়ে, আবার কখনো ঘোষণা ছাড়াই লাইন সংস্কারের নামে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রাখছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।
ঝঁড় বৃষ্টিতে বিদ্যুৎ না থাকা এখানে স্বাভাবিক ঘটনা। কিন্তু ইদানিং আকাশে মেঘ উঠতেই বিদ্যুৎ চলে যাওয়ার সংস্কৃতি চালু হয়েছে।
বিদ্যুতের এ ভেল্কিবাজিতে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে সাধারণ মানুষ।
বিদ্যুত না থাকায় তীব্র গরমে মারাত্মক দুর্ভোগ পোহাচ্ছে মানুষ। আর সমস্যার প্রতিকার চাইতে বিদ্যুত অফিসের মোবাইল নম্বরে কল দিয়েও সেবা পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ গ্রাহকদের। বিদ্যুৎ না থাকলে সংশ্লিষ্ট বিদ্যুৎ বিভাগের দায়িত্বশীলদের মোবাইল ফোনও রিসিভ হয় না। ফলে বিদ্যুৎ নিয়ে ধোঁয়াশা আর ভোগান্তির মধ্যে আছেন জেলার প্রায় ৫ লক্ষ গ্রাহক।

ছবি : হবিগঞ্জে বিদ্যুৎ বিভাগের ভবন

ঘন ঘন লোডশেডিংয়রে কারণে নষ্ট হচ্ছে ফ্রিজ, টিভি, ফ্যানসহ দ্যৈুতিক যন্ত্রপাতি। এ ছাড়া সংস্কারের নামে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রাখায় বাড়ছে ভোগান্তি। সারাদেশেরে মানুষ বিদ্যুৎ খাতের সুফল ভোগ করলেও বঞ্চিত হচ্ছে হবিগঞ্জের মানুষ। এতে ভুক্তভোগীদের মধ্যে বাড়ছে ক্ষোভ।
শায়েস্তাগঞ্জ পৌর এলাকার বাসিন্দা ইমদাদুল ইসলাম শীতল জানান, এখানে লোডশেডিং যেন রুটিনে পরিণত হয়েছে। এই ভ্যাপসা গরমের মাঝে লোডশেডিংয়ে বয়োবৃদ্ধ এবং শিশুরা বেশি ভোগান্তি পোহাচ্ছে। সম্প্রতি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা হয়েছে এখন লোডশেডিং হলে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনায় ব্যাপক ক্ষতি হবে। তিনি আরও বলেন, বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ নামাজের সময়ও বিদ্যুৎ নিয়ে যায়, যা খুবই দুঃখজনক।
নুর উদ্দিন নামে আরেকজন গ্রাহক ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, সারাদেশে বিদ্যুতের ঘাটতি নাই। তবুও হবিগঞ্জে লোডশেডিং হচ্ছে নিয়মিত। বিদ্যুৎ বিভাগের সমস্যা কোথায়? বিদ্যুতের ঘাটতি রয়েছে নাকি অব্যবস্থাপনা জন্য এমনটা হচ্ছে জানা দরকার।
হবিগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি সূত্রে জানা যায়, ১৪ টি উপজেলার (৫ টি আংশিক)  ৪ লক্ষ ৮৭ হাজার ৩ শ’ ৮৪ জন গ্রাহকের মধ্যে বিদ্যু সরবরাহ করছে হবিগঞ্জ পল্লী বিদুৎ সমিতি। এখানে বিদ্যুতের চাহিদা ১৪০ মেগাওয়াট। ৭ হাজার ৮ শ’ ৬ কিলোমিটার দীর্ঘ বৈদ্যুতিক লাইনের দেখভালের জন্য ৫টি জোনাল অফিস, ৪ টি সাব-জোনাল অফিস, ২ টি এরিয়া অফিস এবং ২১ টি অভিযোগ কেন্দ্রে নিয়োজিত রয়েছেন ৬ শ ৯৯ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী।
এ বিষয়ে হবিগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার মোতাহার হোসেন বলেন, বিদ্যুতের কোন ঘাটতি নাই। আমাদের গ্রাহকদের ১৪০ মেগাওয়াট বিদ্যুতের চাহিদা রয়েছে। যার সম্পুর্ণটাই আমরা পাচ্ছি শাহজিবাজার বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে। বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কারন হিসেবে তিনি জানান, দীর্ঘ বৈদ্যুতিক লাইনের যেকোনো একজায়গায় সমস্যা হলে সম্পুর্ন লাইনের বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। ফলে সমস্যা সমাধান না করা পর্যন্ত ওই অঞ্চলের গ্রাহকরা কিছু সময়ের জন্য বিদ্যুৎ বঞ্চিত থাকেন।
এই সমস্যা সমাধানের জন্য আমরা ইতোমধ্যে  বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনকে আলাদা- আলাদা সেকশনে ভাগ করার উদ্যোগ নিয়েছি। এটা বাস্তবায়িত হলে বিদ্যুৎ বিভ্রাট অনেকাংশে কমে যাবে। তিনি আরও জানান, গত ২৮ তারিখে বানিয়াচং-নবীগঞ্জের জন্য ডুয়েল সার্কিট চালু করা হয়েছে। এবং হবিগঞ্জ পৌরসভার জন্যও আলাদা প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে।
একই বিষয়ে হবিগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির পরিচালনা বোর্ডের সভাপতি এডভোকেট মোঃ মুছা মিয়ার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি মুঠোফোনে বক্তব্য দিতে অস্বীকৃতি জানান।
  • প্রকাশক ও সম্পাদকঃ সুশান্ত দাস গুপ্ত

  • Sushanta.D.Gupta-Facebook

    Facebook Pagelike Widget
  • যেভাবে নিউজ পাঠাবেন

    নিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ news@amarhabiganj.com এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই হবিগঞ্জ সম্পর্কিত হতে হবে।

  • জরুরী নোটিশ

    দৈনিক আমার হবিগঞ্জ এর প্রতিটি নিউজ ১০০ ভাগ মৌলিক। যদি কোন সংবাদকর্মী অন্য কারো বা অন্য কোন নিউজ কপি করেন এবং সেটা প্রমানিত হয় তাহলে তাকে বিনা নোটিশে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ থেকে বরখাস্ত করা হবে এবং যথারীতি আইনী প্রক্রিয়ার আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

You might also like...

হবিগঞ্জ শহরের বাসা দখল নিয়ে সদর থানা ওসি মাসুক আলীর এত আগ্রহ কেন?

আরও পড়ুন →

This function has been disabled for Amar Habiganj-আমার হবিগঞ্জ.

Don`t copy text!