previous arrow
next arrow
previous arrownext arrow
Slider
Loading...
আপনি এখানে  প্রচ্ছদ  >  হবিগঞ্জ সদর  >  বর্তমান নিবন্ধ

হামলা ও লুটপাটের ঘটনায় আওয়ামী লীগ নেতা ও স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেত্রীর পাল্টা-পাল্টি মামলা

 জুলাই ২০, ২০২১  /  কোন মন্তব্য নাই

স্টাফ রিপোর্টার :  হবিগঞ্জ জেলা আইনজীবি সমিতির ৩ সদস্যের বিরুদ্ধে লুটপাট, ভাংচুর এবং মারপিটের অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত ১৪ জুলাই হবিগঞ্জ সদর থানায় মামলাটি দায়ের করেন বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের সহকারী অ্যাটর্নী জেনারেল ও বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি মাহফুজা চৌধুরী সাঈদা।

 

এ মামলায় অভিযুক্তরা হলেন, হবিগঞ্জ শহরের শায়েস্তানগর এলাকার বাসিন্দা মৃত আব্দুর রশিদের পুত্র ও হবিগঞ্জ জেলা আইনজীবি সমিতির সদস্য এবং হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের জেলা শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক নুরুল ইসলাম তালুকদার (৫০), তার স্ত্রী এড. মাসউদা বেগম হাসনা (৪৮), কন্যা হুমায়রা আনজুম মৌ (২৭), ফারিহা মীম (২৩) সহ অজ্ঞাত নামা আরও কয়েকজন।

 

মামলা সুত্রে জানা যায়, গত ১০ জুলাই হবিগঞ্জ শহরের নিউ সুসলিম কোয়ার্টার এলাকার বাদীর বাসায় পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে হামলা ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। পরে বাদী মাহফুজা চৌধুরী সাঈদা বিষয়টি হবিগঞ্জ সদর থানাকে অবহিত করলে ঘটনাস্থলে পুলিশ আসলে অভিযুক্তরা পালিয়ে যায়।

অনুসন্ধানে জানা যায়, নুরুল ইসলাম তালুকদার এক সময় জামায়াত-শিবিরের রাজনীতির সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত ছিলেন। সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে বিভিন্ন সময়ে পরিবর্তন করেছেন দল। গত কয়েক বছর আগেও যিনি আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ‘‘মাদার অব কিলার’’ বলে অবহিত করেছিলেন।

তবে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে নানা অপ-প্রচার করলেও কৌশলে প্রবেশ করেছেন হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগে। গত কয়েকদিন আগে নব-গঠিত হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে তিনি আছেন শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক পদে। নুরুল ইসলাম তালুকদার প্রতারণা ও দূর্নীতির মাধ্যমে গড়েছেন সম্পদের পাহাড়। এক সময় যার নুন আনতে পান্থা পুরাত আজ সে কোটি টাকার মালিক। তার পৈতৃক ভিটা জেলার চুনারুঘাট উপজেলায়।

 

 

 

 

ছবি : জেলা আওয়ামী লীগের জেলা শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক নুরুল ইসলাম তালুকদার এর ফাইল ছবি

 

 

 

 

 

জীবিকার তাগিদে এক সময় ভাড়া বাসায় থাকতেন হবিগঞ্জ শহরে। পরে হবিগঞ্জ শহরের তিনকোনা পুকুড়পাড় এলাকার হাসান নামে এক পুত্র সন্তানহীন ব্যক্তিকে ভয়-ভীতি দেখিয়ে কৌশলে দখল করেন শায়েস্তানগের বর্তমান বাসার জায়গা। আদালতে আসা অনেক বিচার প্রার্থীদের সাথে তার প্রায়ই বাক-বিতন্ডা হয়।

অভিযোগ আছে মামলা পাইয়ে দেয়ার নামে অসহায় মানুষের জায়গা-সম্পতি নিজের নামে লিখিয়ে নেন। নুরুল ইসলাম তালুকদারের পারিবারিক জীবন অনুসন্ধানে বেরিয়ে আসে আরো অজানা নানা তথ্য।

জানা যায়, হবিগঞ্জ শহরের শিল্প নগরী এলাকাতে তাউকাল ইন্ডাস্ট্রিজ নামে এক শিল্প কারখানা খুলে সেখানে চালাতেন অনৈতিক কর্মকান্ড। যা নিয়ে তার স্ত্রী মাসউদা বেগম হাসনার সাথে প্রায়ই লেগে থাকত দাম্পত্য কলহ। প্রায় ২০০৯ সালের দিকে তাউকাল ইন্ডাস্ট্রিজে চাকুরী দেয়ার সুযোগে উঠতি বয়সী যুবতিদের সাথে চলত তার অনৈতিক সম্পর্ক।

তৎকালিন সময়ে বিষয়টি স্ত্রী এড. মাসউদা বেগম হাসনা কানে গেলে সরেজমিনে বেসিকে গিয়ে ঘটনার সত্যতা পান। এ সময় বাসায় এসে রাগে-ক্ষোভে তিনি আত্মহত্যার অভিযোগে হারপিক পান করেন। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে দীর্ঘ চিকিৎসার পর তিনি সুস্থ্য হন। একই রকম ঘটনার আংশিক অভিযোগ উঠে নুরুল ইসলাম তালুকদারের কন্যা হুমায়রা আনজুম মৌয়ের বিরুদ্ধে।

জানা যায়, ২০১৭ সালের ডিসেম্বর মাসের দিকে সিলেটের ডাঃ খোরশেদ নামে এক ব্যক্তির সাথে তার বৈবাহিক সম্পর্ক হয়। সেখানে কয়েকদিন সংসার করার পর অন্য এক যুবকের সাথে কক্সবাজারে এক হোটেল আপত্তিকর অবস্থায় তিনি আটক হন। এ বিষয়টি ডাঃ খোরশেদ অবগত হলে সংসার ভাঙ্গে মৌয়ের। এ ঘটনায় তিনিও আত্মহত্যার চেষ্টা করে চিকিৎসায় সুস্থ্য হয়ে উঠেন। নুরুল ইসলাম তালুকদারের উচ্ছাস নামে ১৭ বছর বয়সী এক পুত্র সন্তান ছিলো। বাবার কূ-কীর্তি দেখে গত কয়েক বছর আগে সেও আত্মহত্যা করে।

শ্বশুর বাড়ির সম্পত্তি আত্মসাত করে তিনি সম্পদ অর্জন করেছেন বলে অনেকই অভিযোগ করছেন। রাজিয়া খাতুন চৌধুরী নামে লন্ডন প্রবাসীর কাছ থেকে ১০ লাখ টাকা ধার নিয়ে তা আর পরিশোধ করছেন না তিনি। এ নিয়ে শ্বশুর বাড়ির সাথে তার মনোমালিন্য লেগেই আছে।

এদিকে, নিউ মুসলিম কোয়ার্টারে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনায় কাউন্টার মামলা রেকর্ড হয়েছে বলে জানা গেছে। সোমবার(১৯জুলাই) হবিগঞ্জ সদর থানায় এড. মাসুদা বেগম চৌধুরী বাদী হয়ে একই অভিযোগ এনে ৭জনকে অভিযুক্ত করে মামলা দায়ের করেছেন বলে জানা গেছে। তবে মামলা দায়ের হলেও অভিযুক্ত বহাল তবিয়েতে অধরা রয়ে গেছে বলে জানা যায়।

  • প্রকাশক ও সম্পাদকঃ সুশান্ত দাস গুপ্ত

  • যেভাবে নিউজ পাঠাবেন

    নিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ news@amarhabiganj.com এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই হবিগঞ্জ সম্পর্কিত হতে হবে।

  • জরুরী নোটিশ

    দৈনিক আমার হবিগঞ্জ এর প্রতিটি নিউজ ১০০ ভাগ মৌলিক। যদি কোন সংবাদকর্মী অন্য কারো বা অন্য কোন নিউজ কপি করেন এবং সেটা প্রমানিত হয় তাহলে তাকে বিনা নোটিশে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ থেকে বরখাস্ত করা হবে এবং যথারীতি আইনী প্রক্রিয়ার আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

You might also like...

হবিগঞ্জ উন্নয়ন সংস্থা’র পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসনকে অক্সিজেন সিলিন্ডার প্রদান

আরও পড়ুন →

This function has been disabled for Amar Habiganj-আমার হবিগঞ্জ.

Don`t copy text!