previous arrow
next arrow
previous arrownext arrow
Slider
Loading...
আপনি এখানে  প্রচ্ছদ  >  হবিগঞ্জ সদর  >  বর্তমান নিবন্ধ

অবশেষে শেষ হয়েছে শায়েস্তানগর থেকে মশাজান পর্যন্ত পইলের রাস্তা নির্মাণ কাজ

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর

 জুন ২০, ২০২১  /  কোন মন্তব্য নাই

এম.এ.রাজা  :  শায়েস্তানগর থেকে মশাজান পর্যন্ত পইলের রাস্তার নির্মাণ কাজ, বিভিন্ন ধরনের দুর্নীতির অভিযোগের দায় মাথায় নিয়ে চলছিল কচ্ছপ গতিত। ,তবে অবশেষে শেষ হয়েছে নির্মাণকাজ। যদিও ইতিপূর্বে একাধিকবার ওই এলাকার স্থানীয় বাসিন্দারা রাস্তার কাজের অনিয়মের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ মিছিল করেছেন। এ নিয়ে বিভিন্ন সময়ে পত্রপত্রিকায় নিউজও করা হয়েছে।
আমির আলী নামের স্থানীয় এক বাসিন্দা জানান, পইলের রাস্তার নির্মাণ কাজ এই রাস্তা দিয়ে যাতায়াত কারীদের দীর্ঘ দিনের প্রাণের দাবি ছিল। আন্দোলন প্রতিবাদ মিছিল এর মধ্য দিয়ে অবশেষে শেষ হয়েছে  নির্মাণকাজ। তবে তার দাবি সাধারণ মানুষের আন্দোলনের ফলে এবং বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় নিউজ করায় রাস্তার কাজ আগের তুলনায় অনেকটাই ভালো হয়েছে। কদর আলী নামের আরেক স্থানীয় বাসিন্দা জানান, প্রায়ই দেখছি এই রাস্তা দিয়ে এলজিইডির লোকেরা কাল গাড়ি নিয়ে রাস্তার নির্মাণ কাজের গুণগত মান কেমন হয়েছে তা তদারকি করছেন। এই পরিস্থিতিতে আমাদের দাবি সত্যিকার অর্থে আমাদের রাস্তার কাজ কেমন হয়েছে সেটি যেন সঠিক ভাবে যাচাই বাছাই করেন।

ছবি : অবশেষে শেষ হয়েছে শায়েস্তানগর থেকে মশাজান পর্যন্ত পইলের রাস্তা নির্মাণ কাজ। খুশি এলাকবাসী

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, নির্মাণাধীন রাস্তার মধ্যে তিনটি কালভার্টের এ্যাপ্রোচ এর কাজও শেষ হয়েছে। দুই পাশের রেলিং এ সৌন্দর্য বর্ধনের জন্য করা হয়েছে বিভিন্ন ধরনের রং। এই অবস্থায় বাহ্যিক দিক থেকে দেখতে অনেকটাই সুন্দর লাগছে।
জানা যায়,হবিগঞ্জ সদর উপজেলার শায়েস্তানগর বাজার থেকে মশাজান বাজার পর্যন্ত প্রায় ৭ কিলোমিটার রাস্তার মধ্যে তিনটি আরসিসি বক্স কালভার্ট সহ। এলজিইডি হবিগঞ্জ-এর আওতায় আরআইআইপি-১১ প্রজেক্টের মাধ্যমে মেরামত কাজ শুর হয়। ৭ কোটি ৩৬ লাখ ৮৫ হাজার ১৩৩ টাকার মূল্যের কাজটি পায় ফজলুল রহমান এন্ড লিওন এন্টারপ্রাইজ।
যার স্বত্বাধিকারী হাজী মোঃ দুলাল (ওরফে রাডার দুলাল)। কাজের মেয়াদ ২০১৯ সালের জানুয়ারি থেকে ২০২০ সালের ৮ নভেম্বর পর্যন্ত মেয়াদ ছিল। পরবর্তীতে মেয়াদ বাড়িয়ে ৩০ মে ২০২১ সাল পর্যন্ত করা হয়েছে। বিভিন্ন ধরনের অসংগতি আর দুর্নীতির অভিযোগের মধ্য দিয়ে অবশেষে নির্মাণকাজ শেষ হওয়ায় এলাকাবাসী খুশি।
  • প্রকাশক ও সম্পাদকঃ সুশান্ত দাস গুপ্ত

  • যেভাবে নিউজ পাঠাবেন

    নিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ news@amarhabiganj.com এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই হবিগঞ্জ সম্পর্কিত হতে হবে।

  • জরুরী নোটিশ

    দৈনিক আমার হবিগঞ্জ এর প্রতিটি নিউজ ১০০ ভাগ মৌলিক। যদি কোন সংবাদকর্মী অন্য কারো বা অন্য কোন নিউজ কপি করেন এবং সেটা প্রমানিত হয় তাহলে তাকে বিনা নোটিশে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ থেকে বরখাস্ত করা হবে এবং যথারীতি আইনী প্রক্রিয়ার আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

You might also like...

হবিগঞ্জ উন্নয়ন সংস্থা’র পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসনকে অক্সিজেন সিলিন্ডার প্রদান

আরও পড়ুন →

This function has been disabled for Amar Habiganj-আমার হবিগঞ্জ.

Don`t copy text!