previous arrow
next arrow
previous arrownext arrow
Slider
Loading...
আপনি এখানে  প্রচ্ছদ  >  মাধবপুর  >  বর্তমান নিবন্ধ

মাধবপুরে প্রভাবশালীদের দখলে রাস্তা : ৪ বছরে ও কার্যকর হয়নি আদালতের আদেশ

 জুন ৬, ২০২১  /  কোন মন্তব্য নাই

মাধবপুর (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি :  হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার শাহজাহান পুর ইউনিয়নের জামালপুর ( ভান্ডারোয়া) গ্রামে আদালতের আদেশ অমান্য করে রাস্তা দখল করে রেখেছে কয়েকজন প্রভাবশালী ব্যাক্তি। আদালতের রায়ের ৪ বছর পেড়িয়ে গেলেও এখনো রাস্তাটি দখলমুক্ত না হওয়ায় বিস্ময় প্রকাশ করেছে ভুক্তভোগী এলাকাবাসী।
স্থানীয় মুরুব্বিরা জানান, পাকিস্তান আমল থেকে এটা ছিল গ্রামের প্রধান রাস্তা। কিন্তু দখল করতে করতে রাস্তা দিয়ে এখন আর একটা রিকশা পর্যন্ত চলতে পারে না। ফলে অসুস্থ রুগী ও গর্ভবতী মহিলাদের ডাক্তারের কাছে নিতে গিয়ে চরম ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে এলাকার মানুষকে।
সরজমিনে গিয়ে দেখা যায় উপজেলার শাহজাহান পুর ইউনিয়নের জামালপুর ( ভান্ডারোয়া) গ্রামে এই রাস্তার বেশির ভাগ অংশ স্থানীয় আরজু মিয়া, মোশারফ হোসেন, হিরা মিয়া ও তারা মিয়া ও তাদের লোকজন বিভিন্ন ভাবে দখল করে রেখেছে। স্থানীয় লোকজন জানান, দীর্ঘ কাল যাবৎ এলাকাবাসী এই রাস্তাটি ব্যবহার করে আসছে। ম্যাপে রাস্তাটি কোথাও ১৮ফুট কোথাও ১৫ফুট আছে, কিন্তু বর্তমানে ৪/৫ ফুট রাস্তা আছে। বাকি অংশ উল্লেখিত ব্যাক্তিরা দখল করে রেখেছে। এব্যাপারে এলাকাবাসীর পক্ষে সালাউদ্দিন মোল্লা অপু বাদী হয়ে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালত, হবিগঞ্জে ফোঃ কাঃ বিঃ ১৪৭ ধারায় মামলা দায়ের করলে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এমরান হোসেন বিষয়টি সরজমিন তদন্ত করে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য তৎকালীন সহকারী কমিশনার (ভূমি) টিনা পালকে নির্দেশ প্রদান করেন। টিনা পাল কানুনগো এ এফ এম আব্দুল মান্নান পাটোয়ারীর মাধ্যমে তদন্ত করে ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬ তারিখে ‘অভিযোক্ত ব্যাক্তিরা রেকর্ডভুক্ত রাস্তাটির বেশিরভাগ অংশ অবৈধভাবে দখল করে রেখেছে’ মর্মে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন।

ছবি : মাধবপুরে প্রভাবশালীদের দখলে থাকা রাস্তার একাংশ

যাবতীয় সাক্ষী প্রমাণ গ্রহনের পর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালত, হবিগঞ্জ বিগত ১৭ জানুয়ারি ২০১৭ তারিখে বিবাদীগনকে রাস্তার যাবতীয় প্রতিবন্ধকতা অপসারণের আদেশ প্রদান করেন। কিন্তু বিবাদী পক্ষ আদালতের আদেশ অমান্য করে বাদী পক্ষের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত ১ মে ২০১৭ তারিখে অনতিবিলম্বে আদেশ বাস্তবায়ন করতে ওসি মাধবপুর থানাকে এবং এসিলেন্ড মাধবপুরকে সরজমিনে একজন সার্ভেয়ার দ্বারা রাস্তার ভূমি চিহ্নিত করে যাবতীয় প্রতিবন্ধকতা অপসারণে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আদেশ প্রদান করেন। কিন্তু চার বছরেও আদালতের এই রায় বাস্তবায়নের উদ্যোগ নেয়নি কর্তৃপক্ষ।
এব্যাপারে অভিযোক্ত হিরা মিয়ার ছেলে শামীম মিয়ার মোবাইল নাম্বারে ফোন করলে তিনি তিনি কোন বক্তব্য না দিয়ে ফোন কেটে দেন। চার বছরেও কেন আদালতের আদেশ বাস্তবায়ন হয়নি জানতে মাধবপুর থানায় গেলে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে পাওয়া যায়নি। পুলিশ পরিদর্শক ( তদন্ত) আমিনুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি অনেক আগের। আমি  ও ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দুজনেই নতুন এসেছি।আমরা এবিষয়ে অবগত নই।
এ ব্যাপারে সহকারী কমিশনার ভুমি মোঃ মহিউদ্দিন এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বিষয়টি অনেক আগের। কয়েক মাস হল আমি মাধবপুরে আসলাম বিষয় টি আমি এইমাত্র অবগত হলাম। খোঁজখবর নিয়ে আমি প্র‍য়োজনিয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।
3 Attachments
  • প্রকাশক ও সম্পাদকঃ সুশান্ত দাস গুপ্ত

  • যেভাবে নিউজ পাঠাবেন

    নিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ news@amarhabiganj.com এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই হবিগঞ্জ সম্পর্কিত হতে হবে।

  • জরুরী নোটিশ

    দৈনিক আমার হবিগঞ্জ এর প্রতিটি নিউজ ১০০ ভাগ মৌলিক। যদি কোন সংবাদকর্মী অন্য কারো বা অন্য কোন নিউজ কপি করেন এবং সেটা প্রমানিত হয় তাহলে তাকে বিনা নোটিশে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ থেকে বরখাস্ত করা হবে এবং যথারীতি আইনী প্রক্রিয়ার আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

You might also like...

মাধবপুরে সড়কের পাশ থেকে গাছ কেটে নিলেন তহশিলদার

আরও পড়ুন →

This function has been disabled for Amar Habiganj-আমার হবিগঞ্জ.

Don`t copy text!