previous arrow
next arrow
previous arrownext arrow
Slider
Loading...
আপনি এখানে  প্রচ্ছদ  >  চুনারুঘাট  >  বর্তমান নিবন্ধ

ই-কমার্সের নামে ভয়াবহ প্রতারণা করছে ফাল্গুনী শপ

এ বিষয়ে ই-বাংলাদেশ ডটকম এর সিইও সুশান্ত দাশ গুপ্ত বলেন, এসব অসাধু ই-কমার্স সাইটের জন্য অনলাইনে কেনাকাটার প্রতি মানুষের আগ্রহ দিন দিন কমে যাচ্ছে। ই-কমার্স সাইট কে নিরাপদ রাখতে জনসচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে পাশাপাশি সাইবার জগতেও নজরদারি বাড়াতে হবে।

 এপ্রিল ২৮, ২০২১  /  কোন মন্তব্য নাই

আবেদ আলী, চুনারুঘাট প্রতিনিধি।। এক সময় ঘরে বসে পণ্য কেনাাকাটার কথা ভাবাই যেত না। কিন্তু  বর্তমানে অনলাইনে কেনাকাটা এতটাই সহজ ও স্বাভাবিক হয়ে গেছে বাজারে না গিয়ে ঘরে বসে এক ক্লিকে পণ্য ক্রয় করতেই পছন্দ করেন অনেকে। মানুষ অধিক হারে নির্ভরশীল হয়ে পড়েছে অনলাইনে কেনাকাটায়। আর এ সুযোগ ব্যবহার করছে অসংখ্য ভুয়া ই-কমার্স সাইট গুলো।

এসব ভুয়া ই-কমার্স সাইট গুলো অনলাইনে চালাচ্ছে ভয়াবহ প্রতারণা। প্রতিনিয়তই বিভিন্ন নামে-বেনামে ই-কমার্স সাইট তৈরি হচ্ছে এবং এসব ই-কমার্স সাইটে লোভনীয় অফার দেওয়া হয় আর  এসব অফারের ফাঁদে পড়ে প্রতারিত হচ্ছেন অসংখ্য গ্রাহক। তেমনি একটি ই-কমার্স সাইট ফাল্গুনী শপ।এতে প্রায়ই ৪৯,৯৯,৯৯৯ টাকার অফার সহ বৈশাখী অফার,গ্রীষ্মের অফার,উইন্টার অফার,স্বাধীনতা দিবসের অফার,ভাষা দিবসের অফার, ভেলেন্টাইন ডের অফারসহ নানান আকর্ষনীয় অফার দেওয়া হয় যা দেখে অনেক ক্রেতাই আগ্রহ দেখান এবং টাকা বিকাশ, নগদ,রকেট কিংবা অন্য কোন মাধ্যমে পাঠিয়ে মাসের পর মাস অপেক্ষা করতে থাকেন কিন্তু কাঙ্ক্ষিত সে প্রোডাক্ট পাননা বা পেলে নিদিষ্ট সংখ্যক প্রোডাক্ট পাননা।
নিদিষ্ট সময় পার হবার পরও প্রোডাক্ট না পেয়ে তাদের নাম্বারে কল দিলে প্রথম কয়েক দিন কল রিসিভ করে আরও কিছুদিন লাগবে বলে জানানো হয় পরবর্তীতে যে সকল নাম্বার থেকে কল করা হয় সেই সকল নাম্বার ব্লক করে দেওয়া হয়। শুধু নাম্বার ই নয় ফেসবুক পেইজ,গ্রুপ থেকে ব্লক করে দেওয়া হয়।
ফাল্গুনী শপ থেকে প্রতারিত হওয়া এমনি (নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) একজন জানান, ফাল্গুনী শপে আর্কষনীয় অফার দেখে ৫/১২/২০ প্রোডাক্ট কেনার জন্য টাকা বিকাশে পাঠান কিন্তু নিদিষ্ট সময়ে মধ্যে কাঙ্ক্ষিত প্রোডাক্ট না পাওয়া ফাল্গুনী শপের নিদিষ্ট নাম্বারে একাধিক বার কল দেন প্রথম প্রথম আরও কিছু দিন সময় লাগবে,প্রোডাক্ট শেষ, আগামী ১০ দিনের মধ্যে প্রোডাক্ট অথবা টাকা ব্যাক করা হবে বলে জানানো হলেও পরে তাদের সাথে আর কোন ধরনের যোগাযোগ করা যায়নি নাম্বার এবং ফেসবুক পেইজ থেকে ব্লক করা হয়।
এমন আরেকজন ভুক্তভোগী জানান,  আমার দুটি আড়াই কেজি ওজনের ট্যাং এবং দুই কেজি খেজুর অর্ডার ছিল কিন্তু আমি শুধু আড়াই কেজি ওজন এর একটি ট্যাং পেয়েছি। আমার বাকি পণ্য তারা পাঠায় নি।
তাছাড়া অনেকে কাঙ্ক্ষিত প্রোডাক্ট পেলেও তা সঠিক পরিমাণে পাননি অনেক ক্ষেত্রে ৪ টি প্রোডাক্ট অর্ডার দিলে ১/২ টি প্রোডাক্ট পাঠানো হয় বাকিগুলো পরে পাঠানো হবে বলে আর পাঠানো হয় না এমন অভিযোগও রয়েছে ফাল্গুনী শপের বিরুদ্ধে।
ফাল্গুনী শপের ফেসবুক পেইজ ঘুরে দেখা যায় তাদের বিভিন্ন অফারে তাদেরই কয়েকটি ফেসবুক একাউন্ট থেকে ভালো ভালো কমেন্ট করছে এমনকি একি প্রোডাক্টের স্কিনশর্ট দিয়ে একাধিক কমেন্টে ও ফিডব্যাকও লক্ষ করা যায়। যা তাদের আরেকটি প্রতারণা ফাঁদ। এসব কমেন্ট, ফিডব্যাক সাধারণত ক্রেতাদের কাছে বিশ্বস্ত প্রতিষ্ঠান হিসেবে জাহির করতে সাহায্য করেছে।
অন্যান্য দেশের ন্যায় বাংলাদেশ ও দিন দিন ই-কমার্স সাইট থেকে কেনাকাটায় মানুষের আগ্রহ বাড়ছে এবং অনেক ভালো ভালো ই-কমার্স সাইট বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে তবে এসব ভুয়া ই-কমার্স সাইটের জন্য সাধারণত ক্রেতা ধোঁকা খাচ্ছেন প্রতিনিয়ত।
এ বিষয়ে ই-বাংলাদেশ ডটকম এর সিইও সুশান্ত দাস গুপ্ত বলেন, এসব অসাধু ই-কমার্স সাইটের জন্য অনলাইনে কেনাকাটার প্রতি মানুষের আগ্রহ দিন দিন কমে যাচ্ছে। ই-কমার্স সাইট কে নিরাপদ রাখতে জনসচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে পাশাপাশি সাইবার জগতেও নজরদারি বাড়াতে হবে। ই-কমার্স খাতে নতুন নীতিমালা ও আইন প্রণয়ন ও এর সুষ্ঠু প্রয়োগ নিশ্চিত করতে হবে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল জনসচেতনতা বৃদ্ধি।
কোন আকর্ষণীয় অফার বা বিজ্ঞাপন দেখেই কোন পণ্য কিনতে যাওয়া একদম ই ঠিক নয়। যে প্রতিষ্ঠানের পণ্য ক্রয় করবে আগে সে প্রতিষ্ঠানের নাম-ঠিকানা,ট্রেড লাইসেন্স, মালিকের নাম-ঠিকানা ভালোভাবে জেনে নিতে হবে। ক্যাশ অন ডেলিভারিতে পণ্য সরবরাহ করা সবচেয়ে নিরাপদ। আর যদি ফেসবুক পেইজ বা গ্রুপ থেকে পণ্য কেনার ক্ষেত্রে পেইজ বা গ্রুপ এর রিভিউ, কমেন্ট দেখে অর্ডার করতে হবে। পাশাপাশি ক্রেতাদের ই-কমার্স সাইট থেকে কেনাকাটায় আরও বেশি সচেতন হওয়ার পরামর্শ দেন।
  • প্রকাশক ও সম্পাদকঃ সুশান্ত দাস গুপ্ত

  • যেভাবে নিউজ পাঠাবেন

    নিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ news@amarhabiganj.com এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই হবিগঞ্জ সম্পর্কিত হতে হবে।

  • জরুরী নোটিশ

    দৈনিক আমার হবিগঞ্জ এর প্রতিটি নিউজ ১০০ ভাগ মৌলিক। যদি কোন সংবাদকর্মী অন্য কারো বা অন্য কোন নিউজ কপি করেন এবং সেটা প্রমানিত হয় তাহলে তাকে বিনা নোটিশে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ থেকে বরখাস্ত করা হবে এবং যথারীতি আইনী প্রক্রিয়ার আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

You might also like...

চুনারুঘাটে ৪৪০ পিস ইয়াবাসহ র‌্যাবের হাতে যুবক গ্রেফতার

আরও পড়ুন →

This function has been disabled for Amar Habiganj-আমার হবিগঞ্জ.

Don`t copy text!