previous arrow
next arrow
previous arrownext arrow
Slider
Loading...
আপনি এখানে  প্রচ্ছদ  >  হবিগঞ্জ সদর  >  বর্তমান নিবন্ধ

বিএনপি থেকে আগত আওয়ামী লীগ নেতার দখলে ২শ বছরের পুরনো জিউ আখড়া

মন্দিরের স্থানে সালমান ভবন উদ্বোধন করলেন এমপি আবু জাহির

 এপ্রিল ১৩, ২০২১  /  কোন মন্তব্য নাই

স্টাফ রিপোর্টার : হবিগঞ্জ সদর উপজেলার লুকড়া ইউনিয়নের প্রায় ২শ বছরের পুরনো ঐতিহাসিক গোপাল উি আখড়ার দেবোত্তর সম্পত্তি দখল করে বিলাসবহুল বসত বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে আবদুর নুর জাহির মিয়া মেম্বার নামে এক বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে। শুধু জায়গা দখল করে বাড়ি নির্মাণ করেই ক্ষান্ত হন নি তিনি। স্থানীয় সংসদ সদস্যকে দিয়ে ঢাকঢোল পিটিয়ে ফিতা কেটে উদ্বোধন করেছেন সেই বাড়ি।

 

তবে বহু বছরের পুরণো মন্দিরের জায়গা দখল করে বসত বাড়ি নির্মাণ করায় দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়েরর লোকজনের মধ্যে চরম ক্ষোভ ও অসন্তোষ বিরাজ করেছে বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে জনৈক এক সচেতন ব্যক্তি বাদী হয়ে হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসক বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

 

 

 

গত সোমবার (১২এপ্রিল) সরেজমিনে গেলে স্থানীয় হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা জানান,হবিগঞ্জ সদর উপজেলার লুকড়া ইউনিয়নের লুকড়া মৌজার ১২নং জেএল-এর ২৩৮০,২৩৮১,২৫৮৫,২৫৮৭,২৫৮৮,২৫৮৯,২৫৯০,২৫৯১,২৫৯২ এবং ২৫৯৩ দাগের প্রায় ৩ একর ৩৫ শতাংশ জায়গা দখল করেন আব্দুর নুর জাহির মেম্বারের পিতা খান উল্লা মেম্বার। ২শ বছরে পুরনো দেবোত্তর সম্পত্তিতে মন্দির নির্মাণ করে জায়গাটিকে ধর্মীয় কাজে ব্যবহার করতেন স্থানীয়রা। তবে ২০০১ সালে জামায়াত বিএনপি ক্ষমতায় আসার পর সারা দেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের উপর আক্রমণ ও হয়রানির অংশ হিসেবে ওই আখড়ার জায়গা দখল করেন জাহির মেম্বারের পিতা খান উল্লাহ মেম্বার ও তার সহযোগীরা। পরে সেখানে নিজেরা বসবাস করার জন্য নির্মাণ করেন বিলাস বহুল সালমান ভবন নামে ডুপ্লেক্স বাড়ি।

 

২০২০ সালের ৪ ই মার্চ দখলকৃত জায়গার উপর সেই বিলাস বহুল বাড়িটি উদ্বোধন করেন হবিগঞ্জ-৩ আসনের এমপি আবু জাহির। হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ক্ষমতাসীন দলের এমপি হয়ে বিএনপি নেতার জোর দখলকৃত বসত বাড়ি উদ্বোধনের বিষয়টি রীতিমতো অবাক করেছে স্থানীয়দের। এদিকে দৈনিক আমার হবিগঞ্জের অনুসন্ধানে জানা যায়,জাহির মেম্বার ২০১৪ সালের আগেও লুকড়া ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক পদে দায়িত্বে ছিলেন। সম্প্রতি স্বার্থের টানে হঠাৎ করে বিএনপির রাজনীতি ছেড়ে আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের সাথে চলাফেরা করে হয়ে গেছেন লুকড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক।

 

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন স্থানীয়রা জানান,জাহির মেম্বার দীর্ঘদিন ধরে এলাকার সাধারণ মানুষদের নানা হয়রানি করে আসছিলো। সুদ ও গ্রাম্য রাজনীতি তার অন্য এক গোপন ব্যবসা। ভালো মানুষের চেহারার আড়ালে তিনি সব সময় ই সাধারণ মানুষদের ঠকিয়ে থাকেন। এ বিষয়ে অভিযুক্ত জাহির মেম্বারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি দৈনিক আমার হবিগঞ্জকে জানান,আমি ২০১৪সালের আাগে বিএনপি রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলাম। সম্প্রতি আওয়ামী লীগের উন্নয়নে মুগ্ধ হয়ে আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িত হয়েছি। আমি কোনো জায়গা দখল করিনি। এই সম্পত্তি আমার পূর্ব পুরুষদের। যদি কেউ দাবী করে তার বিরুদ্ধে আমি আইনগত ব্যবস্থা নিব।

 

নাম প্রকাশ না করার শর্তে হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের এক শীর্ষ নেতা জানান,জাহির মেম্বার আওয়ামী লীগের যোগদান করাা আগে আমার সাথে পরামর্শ করেছিল। সে জানিয়েছিল তার সম্পত্তি নিয়ে ঝামেলা আছে। সেগুলো রক্ষা করার জন্য তাকে আওয়ামী লীগে যোগদান করতে হচ্ছে।

 

জেলা প্রশাসক ইশরাত জাহান জানান,বিষয়টি আমার জানা আছে। এ ব্যাপারে এডিসি প্রয়োজনীয় (রাজস্ব) ব্যবস্থা নিবেন।

  • প্রকাশক ও সম্পাদকঃ সুশান্ত দাস গুপ্ত

  • যেভাবে নিউজ পাঠাবেন

    নিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ news@amarhabiganj.com এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই হবিগঞ্জ সম্পর্কিত হতে হবে।

  • জরুরী নোটিশ

    দৈনিক আমার হবিগঞ্জ এর প্রতিটি নিউজ ১০০ ভাগ মৌলিক। যদি কোন সংবাদকর্মী অন্য কারো বা অন্য কোন নিউজ কপি করেন এবং সেটা প্রমানিত হয় তাহলে তাকে বিনা নোটিশে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ থেকে বরখাস্ত করা হবে এবং যথারীতি আইনী প্রক্রিয়ার আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

You might also like...

“সাস্টিয়ান হবিগঞ্জের” উদ্যোগে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ

আরও পড়ুন →

This function has been disabled for Amar Habiganj-আমার হবিগঞ্জ.

Don`t copy text!