previous arrow
next arrow
previous arrownext arrow
Slider
Loading...
আপনি এখানে  প্রচ্ছদ  >  বানিয়াচং  >  বর্তমান নিবন্ধ

দৈনিক আমার হবিগঞ্জে সংবাদ প্রকাশের পর কেয়ারটেকার আশিকের দৌড়ঝাঁপ শুরু

বানিয়াচং উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কাশেম চৌধুরী কেয়ারটেকার আশিকের বিরুদ্ধে জাল সনদসহ নানা অভিযোগের বিষয়টি খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস প্রদান করেছেন

 নভেম্বর ১৯, ২০২০  /  কোন মন্তব্য নাই

স্টাফ রিপোর্টার :  বানিয়াচং ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মডেল কেয়ারটেকার আশিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশের পর নিজেকে রক্ষা করতে বিভিন্ন জায়গায় দৌড়ঝাঁপ শুরু করে দিয়েছেন কেয়ারটেকার আশিকুল। তার বিরুদ্ধে করা এই সংবাদ মিথ্যা বলে পরিচিত জনদের কাছে বলে বেড়াচ্ছেন তিনি। এদিকে সংবাদটি প্রকাশিত হওয়ার পর বাানিয়াচংয়ে আসা দৈনিক আমার হবিগঞ্জ পত্রিকার ২শ কপি নিমিষেই ফুঁড়িয়ে যায়। অনেক গ্রাহক প্রিন্ট পত্রিকা না পেয়ে সেই সংবাদটি স্থানীয় বাজারে একটি ফটোকপির দোকান থেকে তা ফটোকপি করে সংগ্রহ করে রেখেছেন। এই চমকপ্রদ সংবাদটি প্রকাশ হওয়ায় দেশ-বিদেশ থেকে অনেক শুভাকাঙ্খি এই প্রতিবেদকসহ দৈনিক আমার হবিগঞ্জ পত্রিকার সকল কলাকুশলীকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন।

 

 

এই দিকে কেয়ারটেকার আশিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে ইসলামিক ফাউন্ডেশন হবিগঞ্জের উপপরিচালক শাহ নজরুল ইসলামের সাথে কথা হলে তিনি জানান,আশিকের স্ত্রীর নিয়োগের বিষয়টি ইউএনও মহোদয়ের স্বাক্ষর ছাড়া হওয়ার কথা না। তারপরও সব অভিযোগ খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

এই বিষয়ে সিলেট বিভাগের পরিচালক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ দৈনিক আমার হবিগঞ্জকে জানিয়েছেন,তার বিরুদ্ধে পত্রিকায় প্রকাশিত অভিযোগগুলো আলাদা বোর্ড করে তদন্ত করা হবে। কেয়ারটেকার আশিকুল ইসলামের স্ত্রী শিরিন সিদ্দিকাকে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের শিক্ষক নিয়োগ করার বিষয়টি সম্পুর্ণ অবৈধ বলে ও জানিয়েছেন ওই পরিচালক। ডিডি ইচ্ছে করলেই কাউকে নিয়োগ দিতে পারেন না।

 

বানিয়াচং উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কাশেম চৌধুরীও তার বিরুদ্ধে জাল সনদসহ নানা অভিযোগের বিষয়টি খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস প্রদান করেছেন।

 

সার্বিক বিষয় নিয়ে বানিয়াচং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ রানার সাথে কথা বলার চেষ্টা করা হলে বারবার তাকে ফোন দিলেও ফোনে পাওয়া যায়নি। পরবর্তীতে ফোন ধরে তিনি এই শিক্ষক নিয়োগের বিষয়ে অবগত নন বলে দৈনিক আমার হবিগঞ্জকে জানান।

 

এদিকে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ পত্রিকার সম্পাদক,নির্বাহী সম্পাদক,বার্তা সম্পাদক ও প্রধান প্রতিবেদক ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে জেলা হাজতে থাকার সময় এই কেয়ারটেকার আশিকুল তাদেরকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করে বিরুপ মন্তব্য করেছিলেন। তার এই পোস্টের স্ক্রিনশট এই প্রতিবেদকের কাছে সংরক্ষিত আছে।

 

উল্লেখ্য,ইসলামিক ফাউন্ডেশন বানিয়াচংয়ে চলছে চরম দুর্নীতি-“কেয়ারটেকার আশিকের বিরুদ্ধে সনদ জালিয়াতির অভিযোগ”এই শিরোনামে গত ১৯ নভেম্বর বৃহস্পতিবার হবিগঞ্জ থেকে প্রকাশিত জনপ্রিয় পত্রিকা দৈনিক আমার হবিগঞ্জের প্রিন্টসহ পত্রিকাটির অনলাইন ভার্সনে একটি তথ্যবহুল সংবাদ প্রকাশিত হয়। সংবাদটি প্রকাশ হওয়ার পর জেলাসহ বানিয়াচং উপজেলায় তোলপাড় সৃষ্টি করে এই সংবাদটি।

  • প্রকাশক ও সম্পাদকঃ সুশান্ত দাস গুপ্ত

  • যেভাবে নিউজ পাঠাবেন

    নিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ news@amarhabiganj.com এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই হবিগঞ্জ সম্পর্কিত হতে হবে।

  • জরুরী নোটিশ

    দৈনিক আমার হবিগঞ্জ এর প্রতিটি নিউজ ১০০ ভাগ মৌলিক। যদি কোন সংবাদকর্মী অন্য কারো বা অন্য কোন নিউজ কপি করেন এবং সেটা প্রমানিত হয় তাহলে তাকে বিনা নোটিশে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ থেকে বরখাস্ত করা হবে এবং যথারীতি আইনী প্রক্রিয়ার আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

You might also like...

বানিয়াচংয়ে প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বীজ বিতরণ

আরও পড়ুন →

This function has been disabled for Amar Habiganj-আমার হবিগঞ্জ.

Don`t copy text!