previous arrow
next arrow
previous arrownext arrow
Slider
Loading...
আপনি এখানে  প্রচ্ছদ  >  নবীগঞ্জ  >  বর্তমান নিবন্ধ

নবীগঞ্জে সবজি কিনতে গিয়ে নিম্ন আয়ের মানুষের নাভিশ্বাস,আলুর কেজি ৫০ টাকা

 অক্টোবর ১৬, ২০২০  /  কোন মন্তব্য নাই

ছবি; নবীগঞ্জে সবজি কিনতে গিয়ে নিম্ন আয়ের মানুষের নাভিশ্বাস,আলুর কেজি ৫০ টাকা।

 

সলিল বরণ দাশ, নবীগঞ্জ : লাগামহীন সবজির বাজার বিপাকে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার নিম্ন আয়ের মানুষ। আলু কেজির ৫০ টাকা। আলুর সহ বিভিন্ন সবজির দাম নিয়ন্ত্রণে কৃষি বিপনন অধিদপ্তরের সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নের তেমন কোন কঠোর পদক্ষেপ নিতে দেখা যায়নি নবীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনকে।

রবি মৌসুমের শুরুতে আকস্মিক বৃষ্টিতে ফলন নষ্ট হওয়া ও করোনা (কোভিড-১৯) পরিস্থিতির অজুহাত দেখিয়ে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার পৌর শহর থেকে থেকে শুরু করে গ্রামের কাঁচাবাজার ও হাট-বাজারে সব ধরনের সবজি বাড়তি দামে বিক্রি করতে দেখা গেছে। সপ্তাহের ব্যবধানে সবজি ভেদে ১০ থেকে ২০ টাকা পর্যন্ত বাড়তি দাম রাখা হচ্ছে। পাইকারী ও খুচরা দোকানগুলোতে দেখা মিলেনি কোন মূল্য তালিকা। বিপাকে পড়েছেন নিম্ন আয়ের মানুষ। সবজি বিশেষ করে আলুর বাড়তি দাম নিয়ে ক্রেতা-বিক্রেতার মধ্যে রয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া।

উপজেলার বিভিন্ন এলাকার কাঁচাবাজার ঘুরে দেখা যায়, মাছ ও মাংসের দাম আগের মতোই স্থিতিশীল থাকলেও সবজির দাম খুব বাড়তি। গত কয়েকদিন আগেও যেসব সবজি বিক্রি হয়েছে ৪০ থেকে ৪৫ টাকায় এখন তা কেজি প্রতি ছাড়িয়েছে ৬০ থেকে ৭০ টাকা। দেশী ও ডায়মন্ড জাতের আলু গত সপ্তাহে ৩৫ টাকা কেজি থাকলেও বর্তমান বাজার একলাফে ৫০ থেকে ৫৫ টাকা।বেগুনেরও দামও কেজিতে ১০ টাকা বেড়ে ৭০ টাকায় উঠেছে। ঢেঁড়সের দাম বেড়ে ৫০ টাকায় উঠেছে। পটল ৫০ টাকা কেজি থাকলেও বর্তমান বাজার ৬০ টাকা। লাউ ৫০ থেকে ৭০, টমেটো ১১০ থেকে ১২০ টাকা, গাজর ৭০ থেকে ৮০ টাকা, শিম ১০০ থেকে ১২০ টাকা।

পেঁপে কেজি প্রতি ৫ টাকা করে এখন দাম বেড়ে ৪০ টাকা কেজি কিনতে হচ্ছে ক্রেতাদের। ঝিঙ্গার দাম কেজিতে ১০ টাকা বেড়ে ৫০ টাকায় উঠেছে। বরবটির দাম কেজিতে ২০ টাকা বেড়ে ৭০ টাকায় উঠেছে। প্রতি কেজি মুলা শাক বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা দরে। অপরদিকে আকাশচুম্বী কাচাঁমরিচের দাম ডবল সেঞ্চুরি পার করছে ।

গত সপ্তাহে কাচাঁমরিচের কেজি ১৮০ টাকা থাকলেও এখন ২০ টাকা বেড়ে প্রতিকেজি ২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে লাফিয়ে লাফিয়ে দাম বাড়ছে আলুর দাম আলু গত সপ্তাহে ৩৫ থেকে ৪০ টাকায় পাওয়া গেলেও এখন আর এই দামে পাওয়া যাচ্ছে না। আলুর দাম এখন হয়েছে কেজি প্রতি ৫০ থেকে ৫৫ টাকা। আলুর দাম বৃদ্ধির জন্য খুচরা ব্যবসায়ীরা বরাবরের মতো দুষছেন স্থানীয় আড়তদারদের। ফলে খুচরা ব্যবসায়ীরা বাধ্য হয়ে বেশি দামে আলু কিনে বেশি দামে বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছেন। এদিকে আলু দাম ৩০ টাকা রাখার সরকারি সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের তেমন কোন পদক্ষেপ দেখা যাচ্ছে না প্রশাসনের পক্ষ থেকে।

শুধু তাই নয়, কয়েকদিন আগের ৪০ টাকার শসার দাম বেড়ে ৮০ টাকায় উঠেছে। বাড়তি দামের কবলে পড়ে সহজলভ্য এই সবজিগুলো আর সহজে পাচ্ছেন না ক্রেতারা। এই সবজিগুলো কিনতেও বেশি দাম গুণতে হচ্ছে ক্রেতাদের।

এদিকে খুচরা বিক্রেতারা বলছেন, বন্যার কারণে পাইকারি বাজারে সবজির সংকট রয়েছে। এতে সব ধরনের সবজিতে দাম কিছুটা বাড়তি। শীত মৌসুমের সব সবজি বাজারে না আসা পর্যন্ত এমন দাম থাকবে। বন্যার পরে অনেক কৃষক আবারও নতুন করে উৎপাদন শুরু করেছে। তাদের ফসল বাজারে আসার পর দাম কমতে পারে।

আর সাধারণ ক্রেতারা বলছেন, বাজারে সবজির ঘাটতি না থাকলেও বিক্রেতারা বন্যার অজুহাতে দাম বাড়িয়েছে দিয়েছেন। পরিস্থিতি উত্তোরণে প্রশাসনের নজরদারি প্রয়োজন।

পাইকার ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী বহুমুখী সমবায় সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক ইসলাম উদ্দিন বলেন চাহিদার তুলনায় কম সবজি আসছে। কৃষকের ক্ষেতে সবজি উৎপাদন কমে গেছে। বন্যার কারণে ক্ষেত নষ্ট হয়ে যাওয়ায় বাজারে চাহিদা মতো সবজি আসছে না। ফলে মাঠের কৃষকদের থেকে বেশি দামে তাদের পণ্য কিনতে হচ্ছে। বাজারে যারা খুচরা পর্যায়ে বিক্রি করেন তারা ঠিকই বেশি লাভ করে নিচ্ছেন।

বাজার মনিটরিং বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুমাইয়া মোমিন বলেন, আমরা আলু ও সবজি দাম নিয়ন্ত্রণে আজ বাজার মনিটরিং করেছি। এছাড়া কীভাবে বাজার পরিস্থিতিকে নিয়ন্ত্রণ রাখা যায়। এ বিষয়ে আমাদের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা বাস্তবায়নে কাজ করছি।

  • প্রকাশক ও সম্পাদকঃ সুশান্ত দাস গুপ্ত

  • যেভাবে নিউজ পাঠাবেন

    নিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ news@amarhabiganj.com এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই হবিগঞ্জ সম্পর্কিত হতে হবে।

  • জরুরী নোটিশ

    দৈনিক আমার হবিগঞ্জ এর প্রতিটি নিউজ ১০০ ভাগ মৌলিক। যদি কোন সংবাদকর্মী অন্য কারো বা অন্য কোন নিউজ কপি করেন এবং সেটা প্রমানিত হয় তাহলে তাকে বিনা নোটিশে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ থেকে বরখাস্ত করা হবে এবং যথারীতি আইনী প্রক্রিয়ার আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

You might also like...

নবীগঞ্জে চেয়ারম্যান মেম্বারসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে গনর্ধষণের অভিযোগে মামলা দায়ের

আরও পড়ুন →

This function has been disabled for Amar Habiganj-আমার হবিগঞ্জ.

Don`t copy text!