previous arrow
next arrow
previous arrownext arrow
Slider
Loading...
আপনি এখানে  প্রচ্ছদ  >  শীর্ষ সংবাদ  >  বর্তমান নিবন্ধ

বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে নারীসঙ্গ, সচিবালয়ে ৩’নারীর মুখোমুখি ম্যাজিস্ট্রেট শামীম

 সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২০  /  কোন মন্তব্য নাই

ছবি: হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসনের সাবেক সহকারি কমিশনার নাদির হোসেন শামীম।

 

নিজস্ব প্রতিনিধি : হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসনের সাবেক সহকারি কমিশনার নাদির হোসেন শামীমের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে একাধিক নারীর সাথে শারীরিক সম্পর্কেও অভিযোগের তদন্ত গতকাল রবিবার সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রলায়ের উপসচিব উপ সচিব মোঃ জাহাঙ্গির হোসেনের অফিস কক্ষে দিনভর তদন্ত চলাকালে অভিযুক্ত শামীম ছাড়াও প্রতারিত তিন নারী উপস্থিত ছিলেন। নাদির হোসেন শামীম বর্তমানে যশোর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট হিসেব কর্মরত।

শামীমের প্রতারণার শিকার এক শিক্ষিকা এই প্রতিনিধিকে জানান, সকাল ১১’টায় উপসচিব মোঃ জাহাঙ্গির হোসেন তার নিকট থেকে শামীমের বিরুদ্ধে আনা সকল অভিযোগ প্রথমে মৌখিক ভাবে শুনেন। পরে ওই বক্তব্য লিখিত আকারে গ্রহণ করেন। ম্যাজিষ্ট্রেট শামীমের সাথে তার অন্তরঙ্গ ছবি, ম্যাসেঞ্জারে উভয়ের গোপন টেক্সট আদান প্রদানের প্রিন্ট কপিসহ বিভিন্ন আলামত সংযুক্ত করে দেন।

তদন্তকারী কর্মকর্তা ওই শিক্ষিকার সামনেই আনীত অভিযোগ সম্পর্কে শামীমের বক্তব্য শুনতে চান। শামীম অভিযোগ কারি শিক্ষিকার সাথে প্রেম ও শারীরিক সম্পর্কেও কথা অকপটে স্বীকার করেন। বিয়ে না করার কারণ সম্পর্কে শামীম বলেন, কলেজে পড়াশুনার সময় ওই নারীরা রাজনীতিতে জড়িত ছিলেন, একাধিক ছেলেদের সাথে তিনি প্রেম করেছেন। উপসচিব শামীমের কাছে জানতে চান, তার এ সব কর্মকান্ড সরকারি চাকুরীর নীতিমালা ভঙ্গ হয়েছে কিনা? উত্তরে শামীম তার দোষ করেন। ওই শিক্ষিকা আরো বলেন. তিনি কোন রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন না। শামীম ছাড়া অন্য কোন ছেলের সাথে তিনি কোন সময় প্রেম করেননি।

অপর অভিযোগ কারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীর নিকট থেকেও মৌখিক এবং লিখিত বক্তব্য গ্রহণ করেছেন উপ সচিব জাহাঙ্গির হোসেন। ওই ছাত্রী জানান, ‘‘তার অভিযোগের প্রেক্ষিতে শামীম বলেছেন ‘আমি নাকি তাকে এক তরফা ভালবেসে ছিলাম। শামীম বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে আমার সাথে যে বহুবার শারীরিক সম্পর্ক করেছেন তা অবলীলায় অস্বীকার করেছেন। ‘‘উপ সচিবের কাছে তাদের প্রেম সংক্রান্ত কিছু আলামত দিয়েছেন জানান ওই ছাত্রী।

এদিকে শিক্ষিকার সাথে যাওয়া অপর এক ছাত্রী জানান, শামীম তার সাথেও প্রেম করেছেন। বিয়ে করার প্রতিশ্রæতি দিয়ে শারীরিক সম্পর্কও গড়েছেন। এক পর্যায়ে শামীম তাকে বিয়ে করেছে জানানোর জন্য ওই শিক্ষিকার কাছে নিয়ে গিয়েছিলেন। যাতে ওই শিক্ষিকা শামীমের সাথে সম্পর্ক ছেড়ে দেয়। কিন্তু শামীম পরবর্তীতে তাকে(ছাত্রী) বিয়ে না করে প্রতারণা করেছেন। তিনিও শামীমের প্রতারণা সম্পর্কে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। এদিকে অভিযোগ কারিরা এই প্রতিনিধিকে জানান, শামীম সচিবালয়ে তার নব বিবাহিত স্ত্রীকে (সহকারি জজ) সাথে নিয়ে যান। সহকারি জজ সচিবালয়ের বিভিন্ন কক্ষে দৌড় ঝাপ করতে দেখেছেন তারা।

  • প্রকাশক ও সম্পাদকঃ সুশান্ত দাস গুপ্ত

  • যেভাবে নিউজ পাঠাবেন

    নিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ news@amarhabiganj.com এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই হবিগঞ্জ সম্পর্কিত হতে হবে।

  • জরুরী নোটিশ

    দৈনিক আমার হবিগঞ্জ এর প্রতিটি নিউজ ১০০ ভাগ মৌলিক। যদি কোন সংবাদকর্মী অন্য কারো বা অন্য কোন নিউজ কপি করেন এবং সেটা প্রমানিত হয় তাহলে তাকে বিনা নোটিশে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ থেকে বরখাস্ত করা হবে এবং যথারীতি আইনী প্রক্রিয়ার আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

You might also like...

বানিয়াচঙ্গে ১৪ একর সরকারি ভূমি এখনো জেলা কৃষকলীগ সভাপতি হুমায়ুন কবীর রেজার জবর দখলে

আরও পড়ুন →

This function has been disabled for Amar Habiganj-আমার হবিগঞ্জ.

Don`t copy text!