previous arrow
next arrow
previous arrownext arrow
Slider
Loading...
আপনি এখানে  প্রচ্ছদ  >  শায়েস্তাগঞ্জ  >  বর্তমান নিবন্ধ

শায়েস্তাগঞ্জ কামিল মাদ্রাসার অভিভাবক সদস্য শাহজাহানের বিরুদ্ধে নিয়োগ বাণিজ্য ও দুর্নীতির অভিযোগ

 সেপ্টেম্বর ৫, ২০২০  /  কোন মন্তব্য নাই

ছবি: শাহজাহান।

 

স্টাফ রিপোর্টার : শায়েস্তাগঞ্জ মডেল কামিল মাদ্রাসার অভিভাবক সদস্য মোঃ শাহজাহানের বিরুদ্ধে নানা অপকর্ম, অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ ওঠেছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তিনি গত কিছু দিন আগেও শায়েস্তাগঞ্জ পৌর শ্রমিক দলের নেতা ছিলেন। বর্তমানে শাহাজাহান পুলিশ এসল্টসহ একাধিক মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামি।

তার পরামর্শেই অধ্যক্ষ পদে মাওঃ সাহাব উদ্দিনকে নিয়োগ দেওয়ার উদ্দেশ্যে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ নিয়োগ তিন বার আটকে রাখা হয়। কামিল মাদ্রাসাকে ফাজিল মাদ্রাসা দেখিয়ে জাল জালিয়াতির মাধ্যমে মাওঃ শাহাব উদ্দিনকে মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে নিয়োগ দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠেছে।

শায়েস্তাগঞ্জ মডেল কামিল মাদ্রাসার অভিভাবক সদস্য নির্বাচনের দুই প্রার্থী সূত্রে জানা যায়, শায়েস্তাগঞ্জ মডেল কামিল মাদ্রাসার গভর্নিং বডির অভিভাবক সদস্য নির্বাচনে ভোট জালিয়াতির মাধ্যমে তাকে অভিভাবক সদস্য করা হয়েছে।

এরপর থেকেই মাদ্রাসা সংশ্লিষ্ট নিয়োগ বাণিজ্য, টয়লেট নির্মাণ, সেফটি ট্যাংক নির্মাণে কারচুপি, ৫০ জোড়া বেঞ্চ বানানোয় অতিরিক্ত অর্থ ব্যয়, মাটি কাটা, রং করা, মাদ্রাসার গাছ চিড়াতে নিয়ে কাঠ ঠিকভাবে ফেরত না দেয়াসহ বিভিন্ন কাজে তার বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া যায়। প্রতিবেশীর গলার চেইন চুরি, ছাগল চুরি, কাঁঠাল চুরি, নারী কেলেঙ্কারি সহ নানা অপকর্মের অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

এছাড়া শাহজাহান মিয়া হবিগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির মিটার দালালীর সাথে জড়িত। মাদ্রাসার দাপ্তরিক নিয়োগের এক প্রার্থী সূত্র জানায়, মাদ্রাসার দাপ্তরিক নিয়োগে দুর্নীতি ও অনিয়ম করে যোগ্য প্রার্থীকে বাদ নিয়ে নিজের পছন্দের প্রার্থীকে নিয়োগ দিতে সহায়তা করে শাহজাহান মিয়া। নিয়োগ পরীক্ষায় ৭ম হওয়ার পরও মোঃ ইলিয়াছ নামের একজনকে দাপ্তরিক নিয়োগ দেয়া হয়।

এছাড়া আরেক দাপ্তরিক নজরুল ইসলাম নিজে চাকুরী থেকে অব্যাহতি নিয়ে পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে চাকরী নেয়। একমাস পরে  শাহজাহানের  মাধ্যমে টাকার বিনিময়ে তাকে দাপ্তরিক পদে পুনর্বহাল করা হয়।

সূত্র জানায়, গরীব মেধাবী ছাত্র ছাত্রীকে বাদ দিয়ে নিজের সকল সন্তানের নামে উপবৃত্তি উত্তোলন করেন শাহজাহান। এছাড়া মাদ্রাসায় প্রতিদিন সকাল ৯ টার দিকে আসেন এবং সারাদিন ক্লাসে ক্লাসে ঘুরে বেড়ান এবং ছাত্রীদের সাথে আড্ডা মারেন। এতে শিক্ষক-শিক্ষিকারা বিব্রতবোধ করেন এবং ছাত্র-ছাত্রীর পড়ালেখার ক্ষতি হয়।

এছাড়া শাহজাহান এমপি সাহেবের লোক অভিভাবক সদস্যর ক্ষমতা দেখিয়ে মাদ্রাসার পাবলিক পরীক্ষা গুলোতে প্রবেশাধিকার সংরক্ষিত থাকা সত্তে¡ও প্রবেশ করেন। নিজেকে পুনরায় অভিবাবক সদস্য করতে ছাত্র ছাত্রীদেরকে নকল সরবরাহ করেন বলে জানান একজন অভিভাবক।

  • প্রকাশক ও সম্পাদকঃ সুশান্ত দাস গুপ্ত

  • যেভাবে নিউজ পাঠাবেন

    নিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ news@amarhabiganj.com এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই হবিগঞ্জ সম্পর্কিত হতে হবে।

  • জরুরী নোটিশ

    দৈনিক আমার হবিগঞ্জ এর প্রতিটি নিউজ ১০০ ভাগ মৌলিক। যদি কোন সংবাদকর্মী অন্য কারো বা অন্য কোন নিউজ কপি করেন এবং সেটা প্রমানিত হয় তাহলে তাকে বিনা নোটিশে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ থেকে বরখাস্ত করা হবে এবং যথারীতি আইনী প্রক্রিয়ার আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

You might also like...

বানিয়াচঙ্গে ১৪ একর সরকারি ভূমি এখনো জেলা কৃষকলীগ সভাপতি হুমায়ুন কবীর রেজার জবর দখলে

আরও পড়ুন →

This function has been disabled for Amar Habiganj-আমার হবিগঞ্জ.

Don`t copy text!