previous arrow
next arrow
previous arrownext arrow
Slider
Loading...
আপনি এখানে  প্রচ্ছদ  >  লাখাই  >  বর্তমান নিবন্ধ

লাখাইয়ে পশুর চামড়া নিয়ে বিপাকে কোরবানি দাতারা ; নেই ক্রেতা

 আগস্ট ১, ২০২০  /  কোন মন্তব্য নাই

মনর উদ্দিন মনির, লাখাই : ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় দুটো ধর্মীয় উৎসবের দ্বিতীয়টি পবিত্র ঈদ উল আজহা বা কোরবানির ঈদ। এ উপলক্ষে লাখাই উপজেলায় লক্ষাধিক গরু, ছাগল, মহিষ, ভেড়া, ইত্যাদি পশু কোরবানির করা হয়।

অন্যান্য বছরগুলোতে ঈদের দিনে এসব কোরবানির পশুর চামড়া কেনার জন্য বামৈ, মোড়াকরি, বুল্লাবাজার সহ বিভিন্ন এলাকা থেকে মৌসুমী চামড়া ব্যবসায়ীদের আনাগোনা দেখা গেলেও কিন্তু এবার উল্টো চিত্র দেখা গেছে। নেই চামড়া ব্যাবসায়ী, নেই মসজিদ, মাদ্রাসা, এতিমখানার কর্মীগন। কোরবানির চামড়া নিয়ে বিপাকে পড়েছেন কোরবানির দাতাগণ।

 

ছবি: ইন্টারনেট থেকে নেয়া চামড়ার ছবি

 

মোড়াকরি ইউনিয়নের শুভ ও নিজাম নামে কোরবানির দাতারা বলেন, ‘আমার বয়সে এই প্রথম দেখলাম চামড়া নিয়ে সন্ধ্যা পর্যন্ত বসে থাকতে হলো। গত দুই বছরের চেয়ে এবার চামড়ার দাম নেই বললেই চলে, তিনি ১ লক্ষ ৬০ হাজার টাকার গরুর পশুর চামড়া বিক্রি করেছেন ৮০ টাকায়, ৬০ হাজার টাকার পশুর চামড়া বিক্রি করছেন ৫০ টাকায়। তিনি আক্ষপ করে বলেন গরিব তাদের হকের টাকা থেকে এবার বঞ্চিত হবে।

বামৈ ইউনিয়নের সার ব্যাবসায়ী দ্বীন ইসলাম বলেন, একসময় গরু কেনার পর থেকেই চামড়া কেনার জন্য লাইন লেগে যেত। এছাড়া স্থানীয় মসজিদ-মাদরাসা থেকেও চামড়া অনুদান নিতে আসতো। কিন্তু এবার না কেউ চামড়া কিনতে আসছে, না মসজিদ-মাদরাসা থেকে কেউ আসছে। গরমের মধ্যে আর দুই এক ঘণ্টা চামড়া রাস্তায় পড়ে থাকলে এমনি নষ্ট হয়ে যাবে। এ মুহূর্তে চামড়া কী করবেন তা নিয়ে ঝামেলায় রয়েছেন বলে জানান।

বামৈ পূর্বগ্রাম জামিয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক মুফতি রফিকুল ইসলাম বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে হিফজ খানা খুললেও ছাত্রদের উপস্থিতি কম, অনেকই চলেগেছে ছুটিতে, তিনি আরও বলেন, কিছু ছাত্র থাকলে ও চারদিকে বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে রাস্তাঘাট, সেজন্য মাদ্রাসা পক্ষ থেকে চামড়া সংগ্রহ করা যাচ্ছে না বলে জানান।

চামড়া ব্যাবসায়ী মাঠে কম কেন জানতে চাইলে লাখাই প্রাণিজ সম্পদ কর্মকর্তা আবু হানিফ ‘দৈনিক আমার হবিগঞ্জ’ প্রতিনিধিকে জানান, সরকারে চামড়ার দাম কমানের ফলে ক্রেতা কম। তিনি চামড়াগুলি যেখানে সেখানে না ফেলে লবন দিয়ে রোদে শুকিয়ে সংরক্ষণ করে রাখার আহ্বান জানান।

  • প্রকাশক ও সম্পাদকঃ সুশান্ত দাস গুপ্ত

  • যেভাবে নিউজ পাঠাবেন

    নিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ news@amarhabiganj.com এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই হবিগঞ্জ সম্পর্কিত হতে হবে।

  • জরুরী নোটিশ

    দৈনিক আমার হবিগঞ্জ এর প্রতিটি নিউজ ১০০ ভাগ মৌলিক। যদি কোন সংবাদকর্মী অন্য কারো বা অন্য কোন নিউজ কপি করেন এবং সেটা প্রমানিত হয় তাহলে তাকে বিনা নোটিশে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ থেকে বরখাস্ত করা হবে এবং যথারীতি আইনী প্রক্রিয়ার আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

You might also like...

লাখাইয়ে বামৈ সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে প্রশংসাপত্র বাবদ ৩০০ টাকা করে আদায়ের অভিযোগ

আরও পড়ুন →

This function has been disabled for Amar Habiganj-আমার হবিগঞ্জ.

Don`t copy text!