previous arrow
next arrow
previous arrownext arrow
Slider
Loading...
আপনি এখানে  প্রচ্ছদ  >  মাধবপুর  >  বর্তমান নিবন্ধ

দেশের প্রতিটি বিভাগে পর্যটক তথ্যকেন্দ্র হবে, থাকবে বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা : প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী

 জুলাই ৩০, ২০২০  /  কোন মন্তব্য নাই

মোঃ মিটন মিয়া মাধবপুর : বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মোঃ মাহবুব আলী বলেছেন, পর্যটকদের কাছে পর্যটন গন্তব্য সম্পর্কিত তথ্য সহজলভ্য করার জন্য দেশের প্রতিটি বিভাগে একটি করে পর্যটন তথ্যকেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করা হবে।

 

ছবি: বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মোঃ মাহবুব আলী এমপি

 

এ তথ্যকেন্দ্র থেকে পর্যটকেরা সংশ্লিষ্ট বিভাগের ভৌগলিক সীমার মধ্যে অবস্থিত পর্যটন গন্তব্য সম্পর্কে সকল তথ্য সংগ্রহ করতে পারবেন। পাশাপাশি তথ্যকেন্দ্র গুলোতে পর্যটকদের ট্যুর গাইড, যানবাহন ও আবাসন সম্পর্কিত তথ্য ও সেবা প্রদান করা হবে।

লক্ষ্মীপুর জেলার সাথে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড আয়োজিত এক অনলাইন কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে পর্যটন গন্তব্য ও আকর্ষণ সমূহের ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম মনিটরিং করার জন্য একটি ইউনিট তৈরি করা প্রয়োজন। এই ইউনিট পর্যটন গন্তব্য সমূহের ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম নিয়মিত পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন করবে। মূল্যায়ন কালে কোন ধরনের বিচ্যুতি পরিলক্ষিত হলে তা বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ে অবহিত করবে।

এ সময় তিনি বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডকে এই বিষয়ে উদ্যোগ গ্রহণ করার জন্য নির্দেশনা প্রদান করেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, লক্ষ্মীপুর জেলা নদী প্রধান জেলা হওয়ায় সেখানে রিভার ট্যুরিজম উন্নয়নের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ বিষয় নিয়ে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড পরিকল্পনা গ্রহণ করবে।

এছাড়াও লক্ষ্মীপুর জেলার চর ও দ্বীপ গুলোতে পর্যটন সুবিধা প্রবর্তন ও বৃদ্ধির বিষয়ে স্থানীয় প্রশাসনকে উদ্যোগ গ্রহণের জন্য আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, পর্যটন সম্পর্কিত প্রকল্প গ্রহণের ক্ষেত্রে টেকসই উন্নয়নের বিষয়টি মাথায় রেখে পরিকল্পনা প্রণয়ন করতে হবে। সরকারি অর্থের যাতে কোনো ধরনের অপচয় না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

লক্ষ্মীপুরের দালাল বাজার জমিদার বাড়ি উদ্ধার করে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের অর্থায়নে জমিদার বাড়িটিকে সংস্কারপূর্বক পর্যটনকেন্দ্রে রূপান্তরের জন্য জেলা প্রশাসকের প্রশংসা করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের কোন ঐতিহাসিক ও প্রত্নতাত্ত্বিক স্থাপনা যাতে কারো অপদখলে না থাকে সে ব্যাপারে স্থানীয় প্রশাসনকে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে।

বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের পরিচালক আবু তাহের মোহাম্মদ জাবের এর সঞ্চালনায় ও লক্ষ্মীপুর জেলার জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল-এর সভাপতিত্বে কর্মশালায় আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জাবেদ আহমেদ, লক্ষ্মীপুর জেলার বিভিন্ন পর্যায়ের জনপ্রতিনিধি।

  • প্রকাশক ও সম্পাদকঃ সুশান্ত দাস গুপ্ত

  • যেভাবে নিউজ পাঠাবেন

    নিউজ পাঠাতে ইচ্ছুক যে কেউ news@amarhabiganj.com এই ঠিকানায় নিজের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে নিউজ পাঠাতে পারেন। আমরা যাচাই বাচাই শেষে আপনার নিউজ যথারীতি প্রকাশ করবো। উল্লেখ্য, নিউজগুলো অবশ্যই হবিগঞ্জ সম্পর্কিত হতে হবে।

  • জরুরী নোটিশ

    দৈনিক আমার হবিগঞ্জ এর প্রতিটি নিউজ ১০০ ভাগ মৌলিক। যদি কোন সংবাদকর্মী অন্য কারো বা অন্য কোন নিউজ কপি করেন এবং সেটা প্রমানিত হয় তাহলে তাকে বিনা নোটিশে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ থেকে বরখাস্ত করা হবে এবং যথারীতি আইনী প্রক্রিয়ার আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

You might also like...

মাধবপুরে দারিদ্রের পাশে শাহজাহান পুর প্রবাসী উন্নয়ন সংগঠন

আরও পড়ুন →

This function has been disabled for Amar Habiganj-আমার হবিগঞ্জ.

Don`t copy text!