ঢাকারবিবার , ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

হবিগঞ্জে ব্যতিক্রমী আয়োজনে শিক্ষার্থীদের বরণ করে নিলেন শিক্ষকেরা

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ
সেপ্টেম্বর ১২, ২০২১ ৬:৩০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

খায়রুল ইসলাম সাব্বির || করোনা ভাইরাসের জীবন গৃহ বন্দি আঠারো মাস। দেখা নেই বন্ধু ও প্রিয় শিক্ষকদের সাথে, সকল বিদ্যালয় ছিলো নীরব, ছিলনা হৈচৈ, বাজেনি টিফিন ও ছুটির ঘন্টা। বন্দিজীবনে একমাত্র ভরসা ছিলো কেবল মোবাইল ফোনে। আর এ ভাবেই শিক্ষার্থীদের জীবন থেকে কেটে যায় ৫৪৩ দিন। যা প্রায় ১৮ মাসের অধিক।

সকল জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে রবিবার সকাল থেকে খুলে দেয়া হয়েছে সারাদেশ সহ হবিগঞ্জের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। দীর্ঘদিন পরে প্রান প্রিয় স্কুলে শিক্ষার্থীদের আগমন, এ যেন এক নতুন অনন্দের মূহুর্ত সকল শিক্ষার্থীদেরকে বরণ করতে হবিগঞ্জে প্রায় স্কুল ও কলেজে এক ব্যাতিক্রম আয়োজন করলে সকল শিক্ষক ও শিক্ষিকারা। পুরো ক্যাম্পাস জুড়ে লাল, নীল, সবুজ হলুদ বেলুনের মেলা। পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন ও বিভিন্ন সজ্জায় সজ্জিত  ছিল চারপাশ।

ছবি : বিদ্যালয়ের কক্ষে প্রবেশের পূর্বে এক ছাত্রীর তাপমাত্রা পরীক্ষা করা হচ্ছে

রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর)  দুপুর ১২ টায় সরেজমিনে ধুলিয়াখাল আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়টিতে গিয়ে দেখা যায়, সাজ সাজ পরিবেশ। আর সারিবদ্ধ ভাবে শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করে দাঁড় করানো শিক্ষার্থী। সবার শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করে প্রবেশ করানো হচ্ছে শ্রেণিকক্ষে। শ্রেণিকক্ষের প্রবেশমুখে রঙিন বেলুন দিয়ে সাজানো হয়েছে পুরো স্কুল ভবন আর অতি আনন্দে ভেতরে প্রবেশ করছেন সকল শিক্ষার্থীরা।

এসময় কথা হয় স্কুলের সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী সানজিদা আক্তারের সাথে তিনি জানান, দীর্ঘদিন পর স্কুলে এসে বন্ধুদের সাথে দেখা করতে পেরে আনন্দিত সেই সাথে প্রিয় সকল শিক্ষক ও শিক্ষিকাদের কাছে পেয়েও খুশি সে। 

এদিকে ব্যতিক্রমী এ আয়োজনের ব্যাপারে ধুলিয়াখাল আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের  প্রধান শিক্ষক মোঃ সেলিম মিয়া বলেন, দীর্ঘদিন পর শিক্ষার্থীরা ক্লাস করবে। তাই তারা যেন উৎসব আমেজ পায় সেই লক্ষে স্কুল ভবন রঙ্গিন বেলুন দিয়ে সাজিয়ে তাদের আমরা অভ্যর্থনা জানিয়েছি।

শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি মেনে আমরা শিক্ষার্থীদের স্কুলে এনেছি। শিক্ষার্থীরা যেন উৎফুল্ল থাকে, শারীরিক ও মানসিক ভাবে যেন তারা সুস্থ থাকে সে ব্যাপারে আমরা বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করবো পাঠদানে।

তবে স্কুলে প্রাণোচ্ছল দৃশ্য শুধু এক জায়গাই না হবিগঞ্জের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৯০ শতাংশের উপর শিক্ষার্থীর উপস্থিতিতে সরব হয়ে উঠে। এ দৃশ্য যেন ছিল চোখে দেখার, সকল শিক্ষার্থীদের মুখে ছিল প্রান খুলা হাসি। 

Developed By The IT-Zone