ঢাকাThursday , 26 October 2023
আজকের সর্বশেষ সবখবর

হবিগঞ্জের চিকিৎসা ব্যবস্থায় ‘নয়-ছয়’

তারেক হাবিব
October 26, 2023 11:21 am
Link Copied!

কখনো ভুয়া ডিগ্রি ব্যবহার আবার কখনো ভুল অপারেশন নানা রকম খেয়ালীপনায় চলছে হবিগঞ্জের চিকিৎসা ব্যবস্থা। মাত্রারিক্ত টাকা উপার্জন করতে গিয়ে নিজেদের যেন টাকার মেশিন বানিয়ে ফেলেছেন হবিগঞ্জের কয়েকজন ডাক্তার ও হাসপাতাল মালিকরা। অপচিকিৎসায় প্রতিনিয়তই ঘটছে প্রাণহানি।

সুত্র জানায়, জেলার বাহির থেকে আসা অথিতি এবং বয়সের ভারে ন্যুব্জ হয়ে যাওয়া বেশীরভাগ ডাক্তারদের মাধ্যমেই চলছে এসব কসাইকান্ড। অপচিকিৎসায় প্রাণহানি বা দূর্ঘটনা ঘটলেই সহজেই আত্মগোপনে বা রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় চলে যান তারা। বহাল তবিয়েতে থেকে চলে অপচিকিৎসা আর বলির পাঠা হয় সাধারণ মানুষ।

সম্প্রতি অপচিৎকিসার শিকার হয়ে রহিমা বেগম নামে এক নারীর মৃত্যুর ঘটনায় ষাটোর্ধ এক ডাক্তারসহ হাসপাতাল মালিকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হলে সমালোচনার ঝড় সৃষ্টি হয় সচেতন মহলে।

জানা যায়, টিউমারের চিকিৎসা নিতে গত ৯ সেপ্টেম্বর বিকেলে হবিগঞ্জ ২৫০ শয্যা আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে আসেন হবিগঞ্জ সদর উপজেলার বহুলা গ্রামের রহিমা আক্তার নামে এক নারী। এ সময় ওই গৃহবধূকে স্বল্প খরচে উন্নতমানের চিকিৎসার কথা বলে ভুল বুঝিয়ে দালালরা সরকারি হাসপাতাল থেকে হবিগঞ্জ শহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকায় দি জাপান বাংলাদেশ হাসপাতালে নিয়ে যায়।

সেখানে ভর্তি করানোর পর ওই দিন রাত ১১টা ৫০ মিনিটে হবিগঞ্জ ২৫০ শয্যা আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালের সাবেক গাইনি চিকিৎসক ডাঃ এস কে ঘোষ রহিমা বেগমের পেটের টিউমারের অপারেশন করেন।

১২ সেপ্টেম্বর রোগীকে জোর করে ওই হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দিয়ে বের করে দেয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি ঘটলে ১ অক্টোবর পুনরায় এসকে ঘোষের শরণাপন্ন হন রহিমা। এরপরও তার অবস্থার আরও অবনতি ঘটলে ২ অক্টোবর রহিমা বেগমকে হবিগঞ্জ ২৫০ শয্যা আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে নেয়া হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

সেখানে পরীক্ষার পর চিকিৎসকরা জানান, হবিগঞ্জে চিকিৎসা করার সময় রহিমা বেগমের খাদ্য নালী, জরায়ু এবং বামপাশের কিডনি কেটে ফেলা হয়েছে তার। পেটে থাকা টিউমারও যথাযথভাবে অপারেশন করা হয়নি। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ১৫ অক্টোবর রহিমা বেগম মারা যায়।

এ ঘটনায় ওই গৃহবধূর ভাতিজা রহমত আলী বাদী হয়ে হবিগঞ্জ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ জাকির হোসাইন এর আদালত ডাক্তার ও হাসপাতালের মালিকের বিরুদ্ধে মামলা করার নির্দেশনা প্রদান করেছেন ।