ঢাকাMonday , 31 January 2022

হবিগঞ্জে ৩০ লক্ষ টাকায় নির্মিত ‘হেলিকপ্টার ব্রীজ’।। জনভোগান্তি চরমে।

Link Copied!

হবিগঞ্জে লাখাই উপজেলার বামৈ ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড নোয়াগাও এ ৩০ লক্ষ টাকায় নির্মিত সেই হেলিকপ্টার ব্রীজ  নিয়ে আলোচনার কমতি নেই।  কোন সংযোগ সড়ক না থাকার ফলে ভোগান্তির চরমে পৌঁছেছে নোয়াগাও গ্রামবাসী।

সরেজমিনে ঘটনা স্থানে গিয়ে দেখা গেছে ঔ গ্রামটি সুতাং নদীর তীরবর্তি হাওর বেস্টিত নোয়াগাও গ্রাম । ঔ ব্রীজের পশ্চিম পাশে বসবাস করে হিন্দু সম্প্রদায় এবং ব্রীজের পূর্ব পাশে বসবাস করছেন মুসলমান সম্প্রদায়।

গ্রামের চার পাশে হাওড় বর্ষা মৌসুমে যোগাযোগের মাধ্যম এক মাত্র নৌকা ছাড়া অন্য কোন বিকল্প কোন ব্যবস্হা নেই।  খোঁজ নিয়ে জানা যায় সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান রফিক আহমেদের সময়ে ঔ ব্রীজটি লাখাই উপজেলা প্রজেক্ট অফিসের আওতাধীন ত্রান মন্ত্রনালয়ের বরাদ্ধ থেকে ৩০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে নির্মিত হয় এই ব্রীজটি ।

এখন পর্যন্ত ব্রীজটি উদ্বোধনই হয়নি ।  ব্রীজটির অনেকাংশে ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। বাস্তবতা হলো ব্রীজের সঙ্গে সংযোগ সড়ক না থাকায় ব্রীজটি অকেজো অবস্হায় পরে আছে। নোয়াগাও গ্রামের জনসাধারন বিকল্প হিসাবে ব্যবহার করছে বাঁশের সাঁকো।

এ ব্যপারে নোয়াগাও গ্রামের অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক কৃষ্ণ লাল দাস ও নব নির্বাচিত মেম্বার অরনজিত দাসের অনুভূতি কি জানতে চাইলে তারা জানান, সরকার ৩০লক্ষ টাকা ব্যয় করে ব্রীজ করছে কিন্তু জনগন এর কোন উপকারেই আসেনি।  তিনি আরো বলেন আমি শপথ গ্রহনের পর চেষ্টা করব ব্রীজটির সংযোগ সড়ক করা যায় কি না।

গ্রামবাসীর দাবী সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের এই দুর্ভোগ থেকে মুক্তির জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবেন ।

এই বিষয়ে লাখাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শরিফ উদ্দীন দৈনিক আমার হবিগঞ্জকে জানান, আমি শীঘ্রই ব্রীজ পরিদর্শন করে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের সাথে আলাপ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করব।