ঢাকাMonday , 6 February 2023
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মাধবপুরে যোগদানের ১ সপ্তাহের মধ্যেই শিক্ষক বদলি

Link Copied!

মাধবপুর উপজেলার শিমুলঘর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পদায়নের ১ সপ্তাহের মধ্যেই যোগদানকারী শিক্ষক মোঃ রফিকুল ইসলামকে অন্য বিদ্যালয়ে বদলি করা হয়েছে। জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার দাবি তদবিরে অতিষ্ঠ্য হয়ে তাকে বদলি করা হয়।

শিমুলঘর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রণধীর রায় জানিয়েছেন সদ্য পদায়নকৃত সহকারী শিক্ষক মোঃ রফিকুল ইসলাম ২৪ জানুয়ারী তার বিদ্যালয়ে যোগদান করেন। বিদ্যালয়টির শিক্ষার্থী সংখ্যা ৩৯৫।

অনুমোদিত পদ সংখ্যা ৮। কর্মরত ৬ শিক্ষকের মধ্যে সেলিনা আক্তারকে ২৫ জানুয়ারী নোয়াপাড়া এসএম ফয়সল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বদলি করা হয়।

নতুন শিক্ষক যোগ দেওয়ায় বিদ্যালয়টির শ্রেণী কার্যক্রমে গতি সঞ্চার হবে বলে তিনি এবং ম্যানেজিং কমিটির সদস্যরা আশাবাদী হয়েছিলেন। কিন্তু নতুন যোগদানকারী শিক্ষক মোঃ রফিকুল ইসলামকে যোগদানের এক সপ্তাহ না যেতেই রামপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বদলি করায় তাদের শিক্ষক সংকট আর কাটছে না।

রামপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালযের প্রধান শিক্ষক সুরাইয়া আক্তার জানান রফিকুল ইসলাম ২ ফেব্রুয়ারী তার বিদ্যালয়ে যোগ দিয়েছেন। রামপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাত্রছাত্রী রয়েছে ১৩০ জন।কর্মরত শিক্ষক ৪ জন।

রফিকুল ইসলাম যোগ দেওয়ায় এখন মোট শিক্ষক ৫ জন। ৩৯৫ জন শিক্ষার্থীর বিপরীতে ৬ জন শিক্ষক আর ১৩০ জন শিক্ষার্থীর বিদ্যালয়ে ৫ জন শিক্ষক থাকার বিষয়টিকে ভারসাম্যহীনতা বলেই মনে করছেন শিমুলঘর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সদস্য গিয়াস উদ্দিন লস্কর।

উপজেলা শিক্ষা অফিসার ছিদ্দিকুর রহমান জানান,শিক্ষক বদলি নিয়মিত একটি বিষয়। সিস্টেম মেনেই রফিকুল ইসলামকে বদলি করা হয়েছে।

তবে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার (ডিপিইও) মোঃ গোলাম মওলা জানান তদবিরে অতিষ্ঠ্য হয়েই রফিকুলকে অনেকটা বাধ্য হয়ে বদলি করা হয়েছে। শিমুলঘর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বিদ্যমান শুন্য পদগুলো পূরনের বিষয়টি তিনি দেখবেন।