ঢাকাSaturday , 24 February 2024
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মাধবপুরে মাদক দমনে তৎপর বিজিবি’র সরাইল ব্যাটালিয়ন

Link Copied!

মাদকের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর ‘জিরো টলারেন্স নীতি’র সফলতা আনতে সরাইল ব্যাটালিয়ন (২৫ বিজিবি) সীমান্তে অত্যন্ত দক্ষতা ও সাহসিকতার সাথে সীমান্ত দিয়ে আসা বিভিন্ন সময়ে ভারতীয় মদ, ফেনসিডিল, ইয়াবাসহ অন্যান্য চোরাচালানি পণ্য আটক করে আসছেন সীমান্ত সুরক্ষা বাহিনী বিজিবি।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ সরাইল ২৫ ব্যাটালিয়ন বিজিবি তথ্যমতে ভারত হতে মাধবপুর উপজেলার ধর্মঘর ইউনিয়নের বড়জ্বালা ধর্মঘর এবং হরষপুর বিওপির আওতায় সীমান্তবর্তী গ্রাম মোহনপুর, আলিনগর, জয়নগর, কালিকাপুর, সন্তোষপুর, নিজনগর, সোয়াবই,দুর্গাপুর,ও ফতেহপুর ‘সহ বিভিন্ন গ্রামে মদ, ইয়াবা, ফেনসিডিল পাচার হয়ে আসে। পরবর্তীতে ওই গ্রামগুলো হতে ভারতীয় এসব মাদক দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিনব কায়দায় পাচার করা হয়।

বর্তমানে বিজিবি’র শক্ত অবস্থানের কারণে উল্লেখিত এলাকায় মাদক পাচারে জড়িত অধিকাংশ ব্যক্তি ক্ষতিগ্রস্ত ও আইনের আওতায় আনা হয়েছে। বিজিবি মাদক দমনে সীমান্তে কঠুর নজরদারি সহ সীমান্তবর্তী এলাকাগুলোতে বিভিন্ন সময় চেকপোষ্ট বসিয়ে তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। সূত্রে আরও জানা যায়,চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীরা যেকোন উপায়ে তাদের ব্যবসা চালিয়ে যাওয়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের কূটকৌশল অবলম্বন করে থাকে।

এলাকার ইউপি মেম্বার’সহ সিংহভাগই মদ ইয়াবা ও ফেনসিডিল ব্যবসার সঙ্গে সরাসরি জড়িত তবে এখনও পর্যন্ত কোন নির্দোষ ব্যক্তিকে বিজিবি আসামি করিনি। মদ, ইয়াবা, ফেনসিডিল পাচারকারী ব্যতীত অন্য কোন সাধারণ জনগণ যেন কোনপ্রকার হেনস্থা না হয় সে ব্যাপারে সরাইল ব্যাটালিয়ন (২৫ বিজিবি) অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।

গত ২৮ নভেম্বর ২০২২ তারিখে সরাইল ব্যাটালিয়নের বিশেষ গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বিজিবি’র বিশেষ টহলদল কর্তৃক রফিক ইসলাম ও শামীম নামে ২ জনকে ১৯৭ পিছ ইয়াবাসহ আটক করা হয়। এছাড়াও ০৯ মার্চ ২০২৩ তারিখে তাদের আপন ফুফাতো বোন মোছাঃ মরজিনা বেগম এবং জলিল মিয়া’ কে ফেনসিডিল ও ইয়াবাসহ ধর্মঘর বিওপি’র বিজিবি টহলদল কর্তৃক আটক করা হয়।

ধর্মঘর বিওপির সুবেদার মোঃ জয়নাল আবেদীন এ প্রতিবেদককে বলেন, সরাইল ২৫ ব্যাটেলিয়ানের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল সৈয়দ আরমান আরিফ পিএসসি স্যারের নির্দেশে ধর্মঘর ইউনিয়নের দায়িত্বপূর্ণ সীমান্তে কঠোর নিরাপত্তা জোরদার রয়েছে । যাতে করে চোরাচালান মাদক এবং অনুপ্রবেশে ভারত থেকে কোন লোক বাংলাদেশে না আসতে পারে।

সরাইল ২৫ বিজিবি ব্যাটালিয়ানের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল সৈয়দ আরমান আরিফ পিএসসি জানান, সীমান্তে আমাদের বিজিবি জোয়ানদের রাতদিন টহল জোরদার রয়েছে। এমনকি চোরাচালান মাদক এবং অবৈধ অনুপ্রবেশ থেকে বিশেষ নজরদারিতে রাখা হয়েছে সীমান্তে। বিজিবি দেশের কঠিন দুঃসময়ে, দুর্যোগে সীমান্তের জনগনের পাশে আছে।