ঢাকাশুক্রবার , ৭ জানুয়ারি ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বাহুবলে ভাতিজা খুনের ঘটনার দায় স্বীকার করল চাচা

বাহুবল প্রতিনিধি
জানুয়ারি ৭, ২০২২ ৯:৪৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার পুটিজুরী এলাকায় আলোচিত ফারিয়াব হত্যা মামলার প্রধান আসামি খালেদ আখঞ্জী দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি প্রদান করেছেন। বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফখরুল ইসলামের আদালতে তিনি ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করে হত্যার দায় স্বীকার করেন।
আদালত সূত্রে জানা যায়, কুলাউড়া থানা পুলিশের সহযোগিতায় বুধবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে বাহুবল মডেল থানার এস আই নাজমূলের নেতৃত্বে মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার কর্মদা গ্রাম থেকে খালেদ আকঞ্জিকে গ্রেফতার করা হয়। পরে সে
বৃহস্পতিবার (৬জানুয়ারি) বিকালে তাকে আদালতে প্রেরণ করলে বিজ্ঞ বিচারকের নিকট সে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে। হবিগঞ্জের আদালত পরিদর্শক আনিসুর রহমান দৈনিক আমার হবিগঞ্জকে এই তথ্য নিশ্চিত করেন।
প্রসঙ্গত, বাহুবল উপজেলার চক-সুখচর গ্রামের মৃত ফজলুল হক আখঞ্জীর পুত্র খালেদ আখঞ্জী (৫৮) ও তার ছোট ভাই মুন্না আখঞ্জীর মধ্যে দীর্ঘদিন যাবত জমিজমা সহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে ২৩ ডিসেম্বর সকালে  মুন্না আখঞ্জীর পুত্র মেহেরাব আল হক ফারিয়াবের স্ত্রীর সাথে চাচা খালেদ আখঞ্জীর ঝগড়াঝাটি হয়।
 ওইদিন রাত ৮টার দিকে ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে মুন্না আখঞ্জীর ছেলে মেহেরাব আল হক ফারিয়াবকে (২৫) চাচা খালেদ আখঞ্জী ধাঁড়ালো ছুরি দিয়ে আঘাত করলে প্রচন্ড রক্তক্ষরণ শুরু হয়।
এসময় পরিবার ও আশপাশের লোকজন মেহেরাবকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বাহুবল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ফারহানা খানম মেহেরাব আল হক ফারিয়াবকে মৃত ঘোষণা করেন।

Developed By The IT-Zone