ঢাকামঙ্গলবার , ১৬ আগস্ট ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বানিয়াচংয়ে শোক দিবস পালনকালে ৩টি অপ্রীতিকর ঘটনায় সমালোচনা

ইমদাদুল হোসেন খান
আগস্ট ১৬, ২০২২ ৩:৫৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বানিয়াচংয়ে জাতীয় শোক দিবস পালনকালে ৩টি অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে। এনিয়ে এলাকায় সমালোচনা দেখা দিয়েছে।

জানা যায়, মুরাদপুর এসইএসডিপি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাকির হোসেন মহসিন শোক দিবস পালনের জন্য স্কুলে প্রবেশ করতে চাইলে তাকে বাঁধা দেয়ার ঘটনা ঘটে।

শিক্ষক মহসিন জানান, পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠান করার জন্য ১৫ আগস্ট সকালে স্কুলে গেলে মুরাদপুর গ্রামের ডাঃ রুহুল আমিন চৌধুরী, মোঃ নাজিম উদ্দিন চৌধুরী, মোঃ তোফাজ্জল চৌধুরী, বাচ্চু মিয়া, রউফ চৌধুরী ও মাখনিয়া গ্রামের সাবাজ মিয়া তাকে স্কুলে প্রবেশ করতে বাধা দেন।

শত চেষ্টা করেও তাদের হাতাহাতি ও বাধাদানের কারণে তিনি স্কুলে প্রবেশ করতে পারেননি। এ ঘটনাটি মিমাংসার জন্য আজমিরীগঞ্জের পশ্চিমবাগ গ্রামের মোঃ হান্নান চৌধুরী, মোঃ নজরুল ইসলাম সরদার, মোঃঅলিউর রহমান তালুকদার ও মুরাদপুর গ্রামের সাবেক ইউপি মেম্বার মোঃ জামাল চৌধুরী শালিস মানিয়েছেন বলেও তিনি জানান।

এদিকে শোক দিবসের দিন উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণকালে বানিয়াচং উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের দুই গ্রুপের মধ্যে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে। জানা যায়, পুষ্পস্তবক অর্পণকালে এক গ্রুপের নেতা ও মেধাবিকাশ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ভানু চন্দ্র চন্দকে ধাক্কা মারেন অপর গ্রুপের নারায়ণ দত্ত।

এ ঘটনায় প্রত্যক্ষ করে মেধাবিকাশ স্কুলের শিক্ষার্থীরা নারায়ণ দত্তকে ধাওয়া দিলে তিনি দৌড়ে বড়বাজারে পালিয়ে যান। পরে ঘটনাটি প্রিয়তোষ রঞ্জন দেব ও রিপন চন্দ্র দাশ আপোষে মিমাংসা করেন।

অন্যদিকে বানিয়াচং উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি ভাঙ্গার জেরে পুষ্পস্তবক অর্পণের পর উপজেলা পরিষদের সামনে হবিগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফ বাপ্পীর ভাই বানিয়াচং উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আশরাফ সোহেলকে লাঞ্চিত করে উপজেলা ছাত্রলীগের বিলুপ্ত কমিটির নেতাকর্মীরা।

পরে আশরাফ সোহেল গ্যানিংগঞ্জ বাজারে গিয়ে আঞ্চলিক ইস্যু তুলে ৩নং ও ৪নং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের কাছে বিচারপ্রার্থী হন। এ ঘটনাটি অমিমাংসিত রয়েছে। জাতীয় শোক দিবসের এই ৩টি অপ্রীতিকর ঘটনায় বানিয়াচংয়ে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বইছে।

Developed By The IT-Zone