ঢাকাSaturday , 8 April 2023
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বানিয়াচংয়ে ভবন নির্মাণের নাম করে পুকুর ভরাটের পাঁয়তারা !

Link Copied!

বানিয়াচং উপজেলার ৫নং দৌলতপুর ইউনিয়নের দৌলতপুর বাজার থেকে যেতে খাদ্য গুদাম রোডের পাশে অবস্থিত পুরনো একটি পুকুর ভরাট করে দোকানকোটা বানানোর পায়তারা চালাচ্ছে প্রভাবশালী মহল।

সুত্র জানায়,এই পুকুরটি ব্র্যাকের পুকুর হিসেবেও এলাকায় পরিচিত। এলাকাবাসী জানিয়েছেন,এই পুকুরটি দীর্ঘদিন ধরে এলাকাবাসীর পানির প্রয়োজন মিটিয়ে আসছিল।

যদিও পানি কমে গিয়ে এটি এখন কচুরিপানায় ভরে কানায় কানায় পরিপুর্ন হয়ে রয়েছে। ইদানিং এলাকার কিছু প্রভাবশালী ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা খান বাহাদুর ওয়াকফ স্টেটের মাধ্যমে পুকুরটি ভরাট করে দোকানকোটা নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছেন বলে তারা জানান।

কোন জলাশয় বা পুকুর ভরাট করে কোনো ধরণের স্থাপনা এমনকি সরকারি ভবন নির্মাণ করা ভুমি আইনে নেই। যেখানে বর্তমান জলাধার আইনে ব্যক্তিগত পুকুর ভরাটও নিষিদ্ধ রয়েছে সেখানে এই পুকুরটি ভরাট করে দোকান নির্মাণের নামে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়ায় লিপ্ত রয়েছেন ওই মহলটি।

বিদ্যমান আইনের তোয়াক্কা না করে এলাকাবাসীর আপত্তি অগ্রাহ্য করে পুকুরটি ভরাটের পাঁয়তারা করা হচ্ছে। স্থানীয়রা বলছেন, পুরোনো এই পুকুরটি ভরাট হয়ে গেলে এলাকার লোকজন সমস্যায় পড়বে। কিন্তু একটি মহল ভরাটের জন্য পায়তারা চালাচ্ছে বলে আমরা জানতে পেরেছি।

এলাকাবাসীর দাবি পুকুরটি যাতে ভরাট না করা হয়। এই জন্য স্থানীয় প্রশাসনসহ পরিবেশ পরিদপ্তরের কাছে দাবি জানিয়েছেন তারা বলেও এলাকাবাসী জানান।

বাপা হবিগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল সোহেল বলেন, পুকুর -জলাশশ কেবল মাত্র পরিবেশের ভারসাম্য ও সৌন্দর্য রক্ষাই করে না। এলাকার মানুষ ও অন্যান্য প্রাণীকুলের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। ভূগর্ভস্থ পানির অবনমন ঠেকানোসহ নানান কারণে পুকুর- জলাশয় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

এই জন্য পুকুর -জলাশয় রক্ষা করা খুবই জরুরি। পুকুরে জলজ, স্থলচর, উভচর প্রাণীরা বসবাস করতে পারে। আর আমাদের নিজেদের পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার জন্য সকল প্রাণীর সামঞ্জস্যপূর্ণ বসবাসের পরিবেশ থাকা খুবই দরকার। পুকুরের পানি অনেক ধরনের পরিবেশবান্ধব গাছপালা এবং জীবজন্তুর জীবন প্রণালীতে সহায়কের ভূমিকা পালন করে থাকে।

এছাড়াও অগ্নিকান্ডের সময় পানির সংস্থানসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রেই পুকুর-জলাশয়ের একটা অনন্য ভূমিকা রয়েছে। সাম্প্রতিককালে ঢাকার বঙ্গবাজারে অগ্নিকান্ড নিয়ন্ত্রণের জন্য পুকুর জলাশয়ের গুরুত্ব আমরা পুনরায় অনুধাবন করলাম।

আমাদের নিজেদের ভালোভাবে বেঁচে থাকা এবং অস্তিত্ব রক্ষার জন্য পুকুর জলাশয় সহ প্রাকৃতিক জলধার রক্ষার বিকল্প নেই। কোনো অজুহাতে যাতে এই পুকুরটি ভরাট না হয় সেদিকে আমাদের নজর থাকবে।

এ বিষয়ে ৫নং দৌলতপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মঞ্জু কুমার দাশের সাথে কথা হলে তিনি জানান,খান বাহাদুর ওয়াকফ স্টেট এর কাছে আমাদের ইউপি ভবনের জন্য এই জায়গাটা বরাদ্দের জন্য আবেদন জানিয়েছি। এটা এখন এই ভাবেই আছে। কোনো সুরাহা হয়নি। তবে নতুন করে ইউপি ভবন প্রকল্পে নির্মাণ কাজ বন্ধ থাকায় এটা আপাতত কোন কাজ হচ্ছেনা।

বানিয়াচং খান বাহাদুর ওয়াকফ স্টেট এর দায়িত্ব প্রাপ্ত তহশিলদার সিরাজুল ইসলাম খান বলেন,৫নং দৌলতপুর ইউনিয়ন পরিষদ ভবন নির্মাণের জন্য পরিষদের পক্ষ থেকে তারা একটা আবেদন করেছে। আবেদন মঞ্জুর করা বা ভবনের জন্য জায়গা দেয়া না দেয়া সেটা সম্পুর্ণ কমিশনার স্যারের এখতিয়ার। তবে জনকল্যাণমূলক কাজে ব্যবহারের হলে বরাদ্দ দেয়া যেতে পারে বলেও তিনি জানান।

বিস্তারিত জানতে বিভাগীয় কমিশনার (অতিরিক্ত সচিব) ড. মুহাম্মদ মোশাররফ হোসেন এর সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তার ব্যবহৃত নাম্বারে ফোন দিলে ফোন না ধরায় বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।