ঢাকাSaturday , 24 February 2024
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নবীগঞ্জে ছিনতাকারী চক্রের ৭ জন গ্রেপ্তার : ছিনতাইকৃত টমটম উদ্ধার

অঞ্জন রায়
February 24, 2024 6:08 pm
Link Copied!

হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ থানা পুলিশের বিশেষ অভিযান পরিচালনা শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) নবীগঞ্জে ছিনতাকারী চক্রের ০৭ ছিনতাইকারীকে আটক ও ছিনতাইকৃত টমটম উদ্ধার। গত-২৪ ডিসেম্বর ২৩ সালের সন্ধ্যা ৭টা ৩০মিনিটে নবীগঞ্জ শহর হতে এক জন ছিনতাইকারী যাত্রী সেজে উদ্দেশ্যে প্রণোধিতভাবে একটি টমটম গাড়ী রিজার্ভ বাড়া নেয়। টমটম চালক হলেন উপজেলার দৌলতপুর গ্রামের প্রতাপ দাশের বড় ছেলে রতন দাশ (২০)।

নবীগঞ্জ থানা সূত্রে জানাযায়, ৮০/-টাকা ভাড়ার বিনিময়ে টমটম নিয়ে যায় এক ছিনতাই কারি। ছিনতাইকারী চক্রের বাকি সদস্যরা অবস্থান নেয় নবীগঞ্জ থানাধীন এনাতাবাদ গ্রামের ভিতরের একটি রাস্তার নির্জন জায়গায়। টমটম চালককে কৌশলে সেখানে নিয়ে হাত-পা বেঁধে এবং মুখে কস্ট্রেপ বেঁধে টমটম গাড়ী ও চালকের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন ছিনতাই করে নিয়ে চলে যায়। এই ঘটনায় রতন দাশ বাদী হয়ে নবীগঞ্জ থানায় ২১ জানুয়ারি একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-০৫, ধারা-৩৮২ পেনাল কোড মামলাটি রুজু করেন।

নবীগঞ্জ থানা পুলিশ গোপন সূত্রের ভিত্তিতে শুক্রবার সন্ধ্যায় ছিনতাই চক্রের সদস্য উপজেলার এনাতাবাদ গ্রামের মো: নজরুল ইসলামের ছেলে খাইরুল আহমদকে(২২) গ্রেপ্তার করে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার রহস্যের জট খুলতে থাকে। নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ এর নেতৃত্বে একটি টিম উক্ত ছিনতাইকারি দেওয়া তথ্য মতে অভিযান পরিচালনা করে ছিনতাই চক্রের অপর সদস্য ৬ জন কে গ্রেফতার করে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ ছিনতাই কারি সদস্যরা হলেন আব্দুল মন্নাফ ছেলে রুমান (২৭) মো: রজব আলী ছেলে মো: মাছুম মিয়া(২৪) লেচু মিয়া ছেলে রনি মিয়া(২১) টেনাই মিয়া ছেলে মো: হারুন মিয়া(২০) মুত আ: আলীম ছেলে মো: হাবিবুর রহমনা (২০) তাদের উভয়ের গ্রাম এনাতাবাদ হবিগঞ্জ জেলা মাধবপুর উপজেলার রাজেন্দ্রপুর গ্রামের আব্দুর খালেক ছেলে মো : ইব্রাহিম মিয়া ওরফে খলিল (৩১)।

ছিনতাইকৃত টমটমটি হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর থানা এলাকায় তাদের আরেক সহযোগীর নিকট বিক্রি করে ফেলে। নবীগঞ্জ থানা এক দল পুলিশ গ্রেফতারকৃত আসামীকে নিয়া রাতে মাধবপুর থানাধীন ধর্মঘর ইউনিয়নের রাজেন্দ্রপুর গ্রামে অভিযান করে টমটম গাড়ীটি তাদের সহযোগী ইব্রাহিম খলিল এর হেফাজত হতে উদ্ধার করে।

প্রায় এক সপ্তাহ পূর্বে উক্ত চক্রের আরেক সহযোগীকে গ্রেফতার করে চালকের ছিনতাই যাওয়া মোবাইলটিও উদ্ধার করা হয়। আসামীরা সকলেই ছিনতাইকারী চক্রের সদস্য। তাহারা ঘটনার কথা স্বীকার করিয়াছে। গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করেন নবীগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ মো : মাসুক আলী।