ঢাকাSunday , 2 April 2023
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দৈনিক আমার হবিগঞ্জে সংবাদ প্রকাশের পর : লাখাইয়ে কসাইদের বিরুদ্ধে ইউএনও’র শোকজ

Link Copied!

হবিগঞ্জের লাখাইয়ে হাটবাজার গুলোতে পশুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা ব্যতিত অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে পশু জবাই ও বিপণন চলছে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ নির্বিকার। অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে যেন এগুলো দেখার কেউ নেই মর্মে গত ২৫ মার্চ শনিবার দৈনিক আমার হবিগঞ্জ পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়।

এরই প্রেক্ষিতে লাখাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা সুলতানা সাইদের বিরুদ্ধে শোকজের নোটিশ দিয়েছেন। উল্লেখ্য বৃহস্পতিবার (২৩ মার্চ) লাখাইর কালাউক বাজার, বুল্লাবাজার বামৈ বড় বাজার ও বিভিন্ন বাজারে সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায় মাংস প্রক্রিয়াজাতকরন কাজে সংশ্লিষ্টরা বাজারের জনাকীর্ণ স্থানে ও সড়কের পাশে পশুর মাংস বিক্রি করেছেন।

বাজারের পাশে নদী বা খালের পাশে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে এ সব গরু জবাই করে যত্রতত্র এর মলমূত্র ফেলে রাখছে।এতে বাজারের পরিবেশ রক্ষায় নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। এ ছাড়া মাংস প্রক্রিয়া জাত কারীদের নির্দিষ্ট দোকান বা সেড না থাকায় কেউবা সড়কের পাশে খোলা জায়গায় চৌকিখাট বসিয়ে আবার কেহ মাটি বা পাকা সড়কে চাটাই বিছিয়ে মাংস বিক্রি করেছেন।

এতে প্রতিনিয়ত ধূলোময়লা পড়ে মাংসের গুনগতমান নষ্ট হচ্ছে। এদিকে মাংসের দামেও বেশ চড়া। প্রতি কেজি মাংস ৭৫০- ৮০০ টাকায় বিক্রি করতে দেখা যায়।

অভিযোগ উঠেছে কোন কোন মাংস প্রক্রিয়া জাত কারী কসাইরা সুস্থ ও মোটাতাজা পশুর পাশাপাশি অসুস্থ ও বিভিন্ন দূর্ঘটনায় আহত পশুর মাংসও বাজারজাত করে ভোক্তাদের ঠকাচ্ছে।

উপজেলা প্রানী সম্পদ অধিদপ্তর সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায় নিরাপদ মাংস প্রাপ্তি ও মাংসের গুনগতমান রক্ষায় ইতিমধ্যে এ দপ্তরের অধীনে মাংস প্রক্রিয়া জাত কারীদের দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ ও তাদেরকে প্রানী সম্পদ অধিদপ্তরের নিকট থেকে লাইসেন্স গ্রহনের নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

কিন্তু অদ্যাবধি কোন মাংস প্রক্রিয়া জাত কারী লাইসেন্স গ্রহনের প্রক্রিয়ায় আসেননি। এমনকি তারা পশুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা পূর্বক সনদ গ্রহনও আগ্রহ হয়নি।

এ বিষয়ে ভারপ্রাপ্ত উপজেলা প্রানী সম্পদ কর্মকর্তা ও ভেটেরিনারি সার্জন ডাঃ শাহাদাত হোসেন এর সাথে আলাপকালে জানান আমরা বার বার নোটিশ দেওয়া সত্ত্বেও কেউ লাইসেন্স গ্রহনের জন্য আবেদন করেনি এমনকি পশুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা পূর্বক সনদ নেওয়ার জন্যও আসেননি।

তাই আবারও তাদের নোটিশ দেওয়া হচ্ছে। মাংসের চড়া দামের বিষয়ে জানান আমরা মাংসের দাম নির্ধারন করে দিতে পারিনা। এটা সংশ্লিষ্ট বাজার কমিটি করতে পারেন।

তিনি জানান অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে পশু জবাই ও বিপণন রোধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। শনিবার ১লা এপ্রিল ২৩ ইং তারিখে সিংহগ্রামের কসাই ছায়েদুর বুল্লা বাজারে আঞ্চলিক মহাসড়কে প্রকাশ্যে গরু জবাই করতে দেখা গেছে।

এ ব্যাপারে লাখাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ((ইউএনও) নাহিদা সুলতানার সাথে যোগাযোগ করলে তিনি এ প্রতিনিধিকে জানান ইতিমধ্যেই লাখাই উপজেলার সকল কসাইদেরকে নোটিশ দিয়েছি। তারা যদি সঠিক জবাব না দেয় তা হলে তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনের মাধ্যমে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।