ঢাকাশনিবার , ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দেড় বছর পর রবিবার খুলছে হবিগঞ্জের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ
সেপ্টেম্বর ১১, ২০২১ ৭:২৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

খায়রুল ইসলাম সাব্বির ||  আগামীকাল রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণিকক্ষে পাঠদানের মধ্য দিয়ে বহু কাঙ্খিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দিবে সরকার । মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা বিবেচনায় এনে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে প্রায় আঠারো মাস কয়েক দফায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়। প্রাক-প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা স্বশরীরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উপস্থিত হওয়ার ঘোষণা এখনো না আসলেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার ঘোষণা আসতেই শিক্ষক-শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের মাঝে স্বস্তি ফিরে এসেছে। 

এদিকে চলতি বছরের এসএসসি ও এইচএসসি সমমানের শিক্ষার্থীদের মাঝেও এসেছে উৎকন্ঠাহীন আনন্দ। চলতি বছরের শুরুতে নানা নির্দেশনার মধ্য দিয়ে এসএসসি বা সমমানের এবং এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষা নেয়ার কয়েক দফা সিদ্ধান্ত হলেও তা সম্পন্ন করা সম্ভব হয়নি কভিড-১৯ এর প্রাদূভার্বের কারণে। পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ছবি : বানিয়াচংয়ে ঐতিহ্যবাহী শচীন্দ্র কলেজের একাডেমিক ভবনের ছবি

জানা যায়, গত ৫ সেপ্টেম্বর সচিবালয়ের মন্ত্রী পরিষদ সম্মেলন কক্ষে ডা.দীপু মনির সভাপতিত্বে আয়োজিত এক বৈঠকে কাল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এ সভায় জানানো হয়, চলতি বছরের এসএসসি ও এইচএসসি এবং পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রতিদিন যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আসতে হবে। অন্যদিকে, প্রথম শ্রেণী থেকে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের সপ্তাহে একদিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আসার নির্দেশনা রয়েছে।

হবিগঞ্জ জেলা শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, শিক্ষার্থীদের সুরক্ষা ও স্বাস্থ্যের দিকে লক্ষ্য রাখতে শ্রেণি কক্ষে শিক্ষক এবং প্রতিষ্ঠান সংশ্লিষ্টরা প্রতিদিন তাদের পর্যবেক্ষন করবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলেছে এ খবরে সারাদেশের ন্যায় হবিগঞ্জ জেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার কাজা শুরু করা হয়েছে এবং প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান শুরু করার আগে তা সম্পূর্ণ তৈরি করা হয়েছে ।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার শুরুতে কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মনিটরিং করা হবে। আগত শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সামাজিক দূরত্ব মেনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সারিবদ্ধভাবে প্রবেশ করার নির্দেশনা রয়েছে। কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আপাতত কোন অ্যাসেম্বলী হবে না। কিন্তু শিক্ষার্থীদের মানসিক ও শারীরিক সুস্থ্যতার কথা চিন্তা করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাদের খেলাধূলা বা  ফিজিক্যাল অ্যাকটিভিটিজ চলবে।

দীর্ঘদিন পর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা ও শ্রেণি কক্ষে পাঠদানের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ফিরিয়ে আনতে সারাদেশে সহ হবিগঞ্জের সকল সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে চলছে জোর প্রস্তুতি। শিক্ষক-কর্মকর্তা ও সংশ্লিষ্ট কর্মচারীদের সমন্বয়ে কমিটি গঠন ও সমন্বয় সভা করে শিক্ষার্থীদের জন্য নানা কার্যক্রম নিচ্ছেন।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে শিক্ষার্থীদের করোনাকালীন সময়ের জন্য দিনভিত্তিক শ্রেণিবিন্যাস করা হলেও থাকছে না চিরচেনা ডেইলী রুটিন। প্রতিদিন দুটো ক্লাস শেষে একটি শরীরচর্চা বা বিনোদন ক্লাস নেয়ার কথা রয়েছে। পর্যায়ক্রমে শ্রেণিতে পাঠদানের সময়সীমা বাড়ানো হবে।

এ বিষয়ে ধুলিয়াখাল আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক শাহিন আলম জানান, সব ধরনের নির্দেশনা অনুয়ায়ী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা হচ্ছে। সব ধরনের স্বাস্থ্য সতর্কতা নেয়া হয়েছে। 

শিক্ষার্থীদের বিষয়ে বরাবরই নিয়মানুবর্তিতাকে গুরুত্ব দেয়া হয়ে থাকে। মাসে কয়েক দফায় সমন্বয় সভা হয়ে থাকে,তবে করোনাকালীন সময়ে এটি আরো জোরদার করা হয়েছে। শিক্ষার্থীদের প্রতিষ্ঠানে আরো আনা নেয়ার বিষয়ে আরো স্বাস্থ্য সচেতনতামূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

Developed By The IT-Zone