ঢাকারবিবার , ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দুই পরিবহন সমিতির দ্বন্দ্বে বানিয়াচং-আজমিরীগঞ্জ সড়কে যাত্রীদের ভোগান্তি

ইমদাদুল হোসেন খান
সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২২ ১২:১৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

দুই পরিবহন সমিতির দ্বন্দ্বে বানিয়াচং-আজমিরীগঞ্জ সড়কে যাত্রীদের ভোগান্তি চরম আকার ধারণ করেছে।
জানা যায়, ৪নং বানিয়াচং দক্ষিণ-পশ্চিম ইউনিয়ন মিশুক (ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সা) শ্রমিক সমিতি এবং আজমিরীগঞ্জের শিবপাশা ইউনিয়ন টমটম শ্রমিক সমিতির শ্রমিকদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল।

উভয়পক্ষের সমঝোতা এবং যাত্রীদের নিরাপত্তার লক্ষ্যে বানিয়াচং থানা প্রশাসন ও আজমিরীগঞ্জ থানা প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী গত ১২ সেপ্টেম্বর থেকে বানিয়াচং এবং আজমিরীগঞ্জের সীমান্তবর্তী পশ্চিমবাগ ব্রিজের গোড়া পর্যন্ত গাড়ি চলাচল করার সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়।

গত ৫ দিন যাবত এ সিদ্ধান্ত পালন করে যাচ্ছেন উভয়পক্ষ। কিন্তু নদীর পূর্বপাড় থেকে ব্রিজের পশ্চিম পাড়ে জিনিসপত্র নিয়ে যাতায়াত করতে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে যাত্রী সাধারণকে। এনিয়ে চালক ও যাত্রীদের মধ্যে প্রতিদিন ঘটছে অপ্রীতিকর ঘটনা।

শিবপাশা থেকে বানিয়াচং পর্যন্ত মাত্র কয়েক কিলোমিটার রাস্তায় বার বার গাড়ি পরিবর্তন করার কারণে সময় নষ্ট হওয়ার ভোগান্তিও পোহাতে হয় বানিয়াচঙ্গের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীদেরকে।

এছাড়া গ্যানিংগঞ্জ বাজার থেকে শিবপাশা পর্যন্ত আসা যাওয়া করতে ভাড়া গুনতে হয় দ্বিগুণ। দ্রুত বিষয়টি নিস্পত্তি করা না হলে যেকোন সময় বড় রকমের দাঙ্গার সৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছেন বেশ কয়েকজন চালক এবং যাত্রী।  বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখার জন্য প্রশাসন এবং সচেতেন মহলের কাছে দাবি জানিয়েছেন বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী।

উল্লেখ্য, বানিয়াচং থেকে শিবপাশা হয়ে মুরাদপুর রাস্তায় যাত্রী নিয়ে আসা যাওয়া করাকে কেন্দ্র করে শিবপাশা টমটম সমিতির লোকজন গত ১২ সেপ্টেম্বর বানিয়াচঙ্গের মিশুক শ্রমিকদেরকে মারধোর করে।

এ নিয়ে বানিয়াচং মিশুক সমিতির শ্রমিকরা ১২ সেপ্টেম্বর কুন্ডুরপাড় পয়েন্টে সড়ক অবরোধ করে। পরে বানিয়াচং থানা পুলিশের হস্তক্ষেপে অবরোধ তুলে নেন শ্রমিরা।

এ ব্যাপারে ৪নং বানিয়াচং দক্ষিণ-পশ্চিম ইউনিয়ন মিশুক সমিতির সভাপতি হাফিজুর মিয়া জানান, এ পর্যন্ত ৪ বার বানিয়াচঙ্গের মিশুক শ্রমিকদের উপর আক্রমন করেছে শিবপাশা টমটম সমিতির লোকজন।

বিষয়টি সম্পর্কে উভয় থানা প্রশাসন অবগত আছেন। বার বার বিষয়টি নিস্পত্তি করা হলেও কিছুদিন যেতে না যেতেই শিবপাশা টমটম সমিতির লোকজন তুচ্ছ বিষয়কে কেন্দ্র করে বানিয়াচঙ্গের মিশুক চালকদের অন্যায় ভাবে মারধোর করে।

এ ব্যাপারে শিবপাশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নলিউর রহমান তালুকদার জানান, ১২ তারিখের মারধোরের ঘটনাটি শুনেছিলাম। কিন্তু ওই সময় আমি মাসিক আইন-শৃঙ্খলা সভায় থাকার কারণে পরবর্তীতে আর বিষয়টি নিয়ে কোন কথা হয়নি কারো সাথে। আমি প্রশাসনের সাথে বিষয়টি নিয়ে কথা বলব।

এ ব্যাপারে বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ অজয় চন্দ্র দেব গণমাধ্যমকে বলেন, এ বিষয়টি নিয়ে শ্রমিক সংগঠন এবং জনপ্রতিনিধিগনের দায়িত্বহীনতা রয়েছে। যাত্রীদের নিরাপদ যাত্রার লক্ষ্যে আমরা দুই/একদিনের মধ্যে উভয় থানার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আলোচনায় বসে সুষ্ঠু সমাধানের চেষ্টা করবো।

Developed By The IT-Zone