ঢাকামঙ্গলবার , ২২ নভেম্বর ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

জেলার মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে অবাধে চলছে সিএনজির অটোরিক্সা

তারেক হাবিব
নভেম্বর ২২, ২০২২ ৯:১৮ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

মহাসড়কে সিএনজি চালিত অটোরিকশা চলাচল নিষিদ্ধ হলেও হবিগঞ্জ জেলার মহাসড়কের বিভিন্নস্থানে অবাধে
চলছে সিএনজি চালিত অটোরিকশা।

মহাসড়কের প্রতিটি পয়েন্টে চলছে গড়ে উঠেছে অবৈধ স্ট্যান্ডও। সিএনজি চালিত অটোরিকশা মহাসড়কে চলাচল করায় প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা। উচ্চ আদালতের নির্দেশ অমান্য করেই চলছে মহাসড়কের এসব অংশে লাগামহীন ভাবে চলছে সিএনজি চালিত অটোরিক্সা।

এদিকে, জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে ভাড়া বৃদ্ধির দাবিতে বাস চলাচল বন্ধের কারণে রাজধানীসহ হবিগঞ্জের সড়কের বিভিন্ন স্থানে বেড়েছে সিএনজি ও মোটরসাইকেলের দৌরাত্ম্য।

ধর্মঘটে সড়কে বের হওয়াদের ভোগান্তি চরমে পৌঁছেছে। বিকল্প হিসেবে বাধ্য হয়ে যারা এসব বাহনে উঠছেন তাদেরও গুণতে হচ্ছে অতিরিক্ত ভাড়া।

সরেজমিনে সোমবার (২১নভেম্বর) শায়েস্তাগঞ্জের নতুনব্রীজ এলাকায় এমন চিত্রই লক্ষ্য করা যায়। অভিযোগ রয়েছে, কতিপয় ব্যক্তিদের সাথে আঁতাত করেই চলছে এসব যানবাহন। বার-বার অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার না পাওয়ার দাবী জেলা মটর মালিক গ্রুপের।

তবে পুলিশ বলছে, মহাসড়কে তাদের অভিযান অব্যাহত আছে। কিন্তু তারপরও মহাসড়তে থামছেই না সিএনজি অটোরিক্সার দৌড়াত্ব। সংশ্লিষ্ট সুত্র জানায়, ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ৮২ কিলোমিটার পড়েছে হবিগঞ্জ জেলায়।

মহাসড়কের অধিকাংশ জায়গা নতুন করে মেরামত হলেও কিছু জায়গা এখনও রয়েছে ভাঙ্গাচোরা, ঝুঁকিপূর্ণ। আর উচ্চ আদালতের নির্দেশনা থাকলেও এ মহাসড়কে অবাধে চলছে সিএনজি চালিত অটোরিক্সা।

সুত্র জানায়, জেলায় রয়েছে প্রায় ১৮ হাজার সিএনজি চালিত অটোরিক্সা। এর মধ্যে প্রায় ১০ হাজার অটোরিক্সাই চলাচল করছে মহাসড়কে। চালকদের দাবী, বিকল্প সড়ক না থাকায় ঝুঁকি নিয়েই চলাচল করতে হয় তাদেরকে।

শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ না করায় তা সম্ভব হয়নি।

জেলা মটর মালিক গ্রুপ বলছে, সিএনজি চালিত অটোরিক্সা মহাসড়কে চললে বড় ধরণের দুর্ঘটনার আশঙ্কা থেকেই যায়। তাদের দাবী, প্রশাসনকে বার বার অনুরোধ করার পরও উচ্চ আদালতের নির্দেশনা থাকলেও কোন উদ্যোগ নেয়া হয়নি।

Developed By The IT-Zone