ঢাকামঙ্গলবার , ২৮ জুলাই ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুনারুঘাটে সূর্যমুখী চাষে সফলতা : আগামীতে বেড়ে হতে পারে দিগুণ 

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ
জুলাই ২৮, ২০২০ ৭:৪২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

এফএম খন্দকার মায়া, চুনারুঘাট : হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলায় প্রকল্প রাজস্ব বাজেটের আওতায় সূর্য মুখী চাষে কৃষকদের সফলতা।আগামীতে চাষে পরিমাণ দিগুণ হওয়ার সম্ভাবনা।
মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) চুনারুঘাট উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জালাল সরকার এর সাথে কথা বললে তিনি আমাদের এ বিষয়ে নিশ্চিত করেন।
জানা যায়, মহামারি করোনাভাইরাসে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা  সকলের প্রতি নিজ নিজ বাড়ির আঙিনায় ও খাস জমি থেকে চাষের ও বৃক্ষ রোপনের অনুরোধ জানান। সরকারি পৃষ্ঠপোষকতায় উপজেলা কৃষি অধিদপ্তরের অধিনে প্রকল্প বাজেটের আওতায় সূর্য মুখী চাষে কৃষকদের উৎসাহ ও প্রশিক্ষন,বীজ,খরচ,আন্ত পরিচর্যা ভুর্তকী দিয়ে প্রদর্শনী প্লট আকারে কৃষকদের সূর্য মুখী চাষে আগ্রহী করে তুলেন।তারই ফলস্বরূপ কৃষি অধিদপ্তরের অক্লান্ত পরিশ্রমে চুনারুঘাট উপজেলায় প্রত্যেকটি ইউনিয়নে চাষি উদ্যোক্তা সৃষ্টি করেন এবং সিলেট বিভাগের মধ্যে সর্বোচ্চ পরিমাণে কৃষকদের চাষ করাতে সক্ষম হন।এ বছর চুনারুঘাটে ৯০বিঘা (প্রায় ১২হেক্টর) জমিতে সূর্য মুখী চাষ করানো হয়।

ছবি : চুনারুঘাটে সুর্যমুখির ক্ষেতে সফল চাষি

এই সূর্য মুখী চাষ প্রদর্শনী হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান স্ব পরিবারে চুনারুঘাট গিয়ে পরিদর্শন করেন। এছাড়াও উল্লেখযোগ্য ব্যক্তি গন এই ব্যতিক্রমী উদ্যোগ কে স্বাগত জানান ।
মহামারি করোনাভাইরাসে বাজার জাত করনে কৃষকদের সমস্যার মুখোমুখি হলে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার পৃষ্ঠপোষকতায় সরাসরি বীজ সংগ্রহ করে কৃষি অধিদপ্তর।এবং তা প্রক্রিজাত করনের মাধ্যমে বাজারজাত করার মত মডেল হিসাবে চুনারুঘাট নিয়ে আসেন কর্তৃপক্ষ। যা দেশে বিভিন্ন বিভাগে বেশ সুনাম ও চাষে আগ্রহী করে তুলেছে।
এ বিষয়ে কৃষক জাহাঙ্গীর আলম সদর ইউনিয়ন শাইলগাছ,ছুরত আলী উত্তর নরপতি,রজব আলী তালুকদার ১নং গাজীপুর ইউনিয়ন, চেগানগর, আব্দুল মালেক তালুকদার চেগানগর, বিষ্ণু রায় ২নং আহম্মাদাবাদ ইউনিয়ন, রাজার বাজার, মুজিবুর রহমান কালীশিরী জানান আমরা চুনারুঘাট উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ও কৃষি অধিদপ্তরের সহায়তায় সূর্য মুখি চাষে আগ্রহী হই। এবং সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা ও কৃষি অধিদপ্তরের দিকনির্দেশনায সফলতার সাথে সূর্য মুখি চাষ কার্যক্রম করতে পেরেছি। এবং নিজেদের চাহিদা পুরণের পাশাপাশি বিক্রি করতেও সক্ষম হয়েছি। আগামীতে আমরা আরও বেশি পরিমাণ করার ইচ্ছে আছে।
এ বিষয়ে চুনারুঘাট উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জালাল সরকার এর সাথে কথা হলে তিনি জানান, চুনারুঘাটে প্রথম সূর্য মুখি চাষে উদ্যোগ নেয়া হলে অনেকেই অনিহা প্রকাশ করে। কিন্ত প্রকল্প রাজস্ব বাজেটের আওতায় আমরা প্রত্যেক ইউনিয়ন থেকে কিছু উদ্যোক্তা সংগ্রহ করি। এবং সরকারি ভাবে তাদের প্রশিক্ষন বীজ প্রদান,আন্ত পরিচর্যা সহ সম্পূর্ণ খরচ বহন করি।ফলে অনেকেই চাষ করেন।এবং সফলতার সাথে আমরা ফসল সংগ্রহ করি। আমরা বাজারজাত করনের মত মডেল স্বরূপ প্যাকেজিং ব্র্যান্ডিং প্রস্তত করি। যা সারা দেশে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। এবং বিভিন্ন বিভাগ থেকে এই উদ্যোগ নেয়ার পরামর্শ নিচ্ছেন। তাই আমি চাই সবাই এ সূর্য মুখি চাষে আগ্রহী হোক। এবং সফলতা অর্জন করুক।

Developed By The IT-Zone