ঢাকাWednesday , 13 December 2023
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুনারুঘাটে জেল- জরিমানায় থামছেনা বালুখেকোরা

Link Copied!

চুনারুঘাট উপজেলার ২নং আহম্মদাবাদ ইউনিয়নের কুডবাড়ি-গোদারাঘাট এলাকার খোয়াই নদী থেকে কোনভাবেই থামছে না অবৈধভাবে বালু উত্তোলন। নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে ইজারাবর্হিভূত জায়গা থেকে শতাধিক শ্যালো মেশিন বসিয়ে বালু ও মাটি উত্তোলন করা হচ্ছে।

এ কাজে সরাসরি জড়িত স্থানীয় আহাদ ও বাচ্চুর এবং বালু সেলিম নামে একটি চক্র। নদীর বাঁধের কাছ থেকে ক্রমাগত বালু উত্তোলনের ফলে নদীভাঙনের আশঙ্কা যেমন বাড়ছে, তেমনি নদীপাড়ে বালুর স্তূপ জমিয়ে রাখায় নষ্ট হচ্ছে ফসলি জমির উর্বরতাশক্তি।

স্থানীয় প্রশাসনের অভিযানে বার বার জরিমানা-নিষেধাজ্ঞা যেন তোয়াক্কাই করছে না বালুখেকো চক্রটি।

অন্যদিকে, ভোগান্তির শেষ নেই নদীর পাড় দিয়ে চলাচলকারী সাধারণ মানুষের। বার বার নিষেধাজ্ঞা ও ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে জরিমানা করলেও হচ্ছেনা কোন থামছে না বালুখেকোরা।

সুত্র জানাযায়, চুনারুঘাট উপজেলার আশ্রবপুর মৌজার কুডবাড়ি-গোদারাঘাট এলাকায় ৩৩ ও ৩৬ দাগের জায়গাটি সরকারের বালুমহাল ইজারারায় অন্তভুক্ত না থাকলেও ওই চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে আসছে।

এ ঘটনায় গত ৩১ আগস্ট ওই এলাকায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে ১ লাখ টাকা জরিমানা করেন চুনারুঘাটের সহকারি কমিশনার (ভুমি) আপিয়া আমিন পাপ্পা।

বিষয়টি জানাতে চুনারুঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নীলিমা রায়হানা’র সরকারি মোবাইল নাম্বারে বার বার যোগাযোগ করা চেষ্টা করা হলেও তিনি কল রিসিভ করেননি। পরে বিস্তারিত উল্লেখ করে হোয়াটসঅ্যাপে তথ্য প্রদান করা হয়।

এদিকে, এলাকাবাসীর অভিযোগ করছেন হবিগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডসহ বিভিন্ন মহলের কিছু অসাধু কর্মকর্তা বালু ব্যবসায়ীদের সঙ্গে জড়িত রয়েছেন।

তাই তারাও এ ব্যাপারে কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করছেন না। এ ব্যাপারে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার তাগিদ দিয়েছেন পরিবেশবাদীরা।