ঢাকাTuesday , 12 December 2023
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুনারুঘাটের স্বামীর বিরুদ্ধে যৌতুক মামলা দিলেন পাকিস্তানী নারী : গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

Link Copied!

স্বামীর সংসারে ঠাঁই না হয়ে অবশেষে যৌতুক আইনে মামলা দায়ের করেছেন পাকিস্তানী নারী মাহা বাজোয়ার। গত সোমবার (১১ডিসেম্বর) দুপুরে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট- এর বিচারক রহেলা পারভীন এর আদালতে মামলাটি দায়ের করা হয়। বিচারক অভিযোগ আমলে নিয়ে অভিযুক্ত ব্যক্তির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন।

এর আগে ১৭ নভেম্বর বাংলাদেশে এসে স্বামীর ঠিকানার সন্ধানে বিভিন্ন এলাকা ঘুরে বেড়ান ওই নারী। সর্বশেষ স্বামীর পাসপোর্ট থেকে তথ্য গ্রহন করে গত ৮ ডিসেম্বর চুনারুঘাট উপজেলার উত্তর বাজার বড়াইল বাজার এলাকার স্বামী সাজ্জাদ হোসেন মজুদারের বাড়ীতে হাজির হন তিনি। সাজ্জাদ হোসেন মজুমদার ওই এলাকার সফিউল্লা মজুমদারের পুত্র।

সুত্র জানায়, প্রায় ১০ বছর আগে দুবাইয়ের একটি বারে মাহা বাজোয়ার ও সাজ্জাদ হোসেন মজুমদার একসাথে কাজ করতেন। কাজ করার সুবাদে একে অপরের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়।

এক পর্যায়ে আইনী পক্রিয়ার মাধ্যমে ৩০ লাখ টাকা দেনমোহরে দুজনেই বসেন বিয়ের পীড়িতে। বিয়ের পর তাদের সংসারে জান্নাত নামে এক কন্যা সন্তান জন্ম নেয় যার বর্তমান বয়স আট।

এদিকে, চাকুরীর মেয়াদ শেষ হলে স্ত্রীকে দুবাইয়ে রেখে দেশে এসে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন চতুর সাজ্জাদ মজুমদার। দীর্ঘদিন ধরে স্বামীর কোন খোঁজ না পেয়ে পাগলপ্রায় হয়ে সারাদেশে ঘুরতে হয়েছে বলে দৈনিক আমার হবিগঞ্জ’কে জানিয়েছেন ওই পাকিস্তানী নারী।

মাহা বাজোয়ার বলেন, পাকিস্তানের লাহোর প্রদেশের মুলতান রোডের সাকি স্ট্রিট সৈয়দপুরের বাসিন্দা তিনি। তার বাবার নাম মকসুদ আহমেদ। স্বামীর সংসার ফিরে পেতে তিনি বাংলাদেশ যৌতুক নিরোধ আইনের ৩ ধারায় স্বামী সাজ্জাদ হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। তিনি স্বামীর সংসারে ফিরে যেতে চান।