ঢাকাসোমবার , ৪ এপ্রিল ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

গান গেয়ে সংসার চলে তাদের

মুহিন শিপন,শায়েস্তাগঞ্জ
এপ্রিল ৪, ২০২২ ১১:৪৩ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

আমায় নিলানা..পথে পইরা কান্দি আমি নাই যে ঠিকানা..গত রবিবার (৩এপ্রিল) সন্ধ্যায় শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে জংশনে বাতাসে ভেসে আসছিলো করুণ সুর। সুরটি যেন হৃদয় ছুঁয়ে গেলো। ভেসে আসা সুরটি কানে নিয়ে এগিয়ে যেতেই চোখ পড়লো প্লাটফর্মের এক কোণে ৪০-৫০ জন মানুষের জটলা।

সেখানে গিয়ে দেখা গেলো মধ্যবয়সী একব্যক্তি ও তার ১১ বছরের মেয়েকে ঘিরে রেখেছেন বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মনুষ। সবাই এক দৃষ্টিতে চেয়ে আছেন তাদের দিকে। সাদা দাঁড়িওয়ালা লোকটি তার মেয়েকে নিয়ে ওই গানটি গেয়ে চলেছেন। তাদের সুরের মূর্ছনায় আগত শ্রোতাদের সঙ্গে শামিল হয়ে গানটি শোনা হলো। কত মানুষ জমে গেছে। অথচ নিস্তব্ধ পরিবেশ। একের পর এক গান গেয়ে চলেছেন তারা। একই সঙ্গে শ্রোতার সংখ্যাও বাড়তে লাগলো।

অন্ধ মেয়ে সাদিয়াকে নিয়ে একে একে ১২ টি গান শেষ করলেন শাহ আলী। প্রায় ঘণ্টাখানেক পর গান গাওয়া শেষ হলে কথা হয় শাহ আলী (৫০) এর সঙ্গে।

কথা বলে জানা যায়, বানিয়াচং উপজেলার পুরান পাথাড়িয়া গ্রামের দিনমজুর শাহ আলী গত ৬ মাস ধরে অন্ধ মেয়েকে নিয়ে রেলস্টেশন, বাসস্ট্যান্ড এবং মাজারে গান গেয়ে বেড়াচ্ছেন।

জন্মের ২ মাসের মাথায় টাইফয়েডে আক্রান্ত হয়ে দৃষ্টি শক্তি হারায় মেয়ে সাদিয়া আক্তার (১১)। টাকার অভাবে করাতে পারেননি মেয়ের চিকিৎসা। নিজেরও বয়স বাড়ায় আগের মতো করতে পারেন না দিনমজুরের কাজ। থমকে যাওয়া সংসারের হাল ধরতে একপ্রকার বাধ্য হয়েই মেয়েকে নিয়ে নেমে পড়েন রাস্তায়। মানুষ তাদের গান শুনে যে অর্থ দেয় তাই দিয়ে চলে তার ৮ জনের টানাপোড়েনের সংসার।

এসময় শাহ আলী আলী আরও জানান, তার মেয়েকে সরকার থেকে দেওয়া হচ্ছে প্রতিবন্ধী ভাতা। একই সাথে মেয়ের চিকিৎসার জন্য সরকারের সুদৃষ্টি কামনা করেন তিনি।

Developed By The IT-Zone