ঢাকাWednesday , 27 December 2023
আজকের সর্বশেষ সবখবর

কেমিক্যাল মিশ্রিত ড্রাগন ফলে সয়লাব বানিয়াচংয়ের হাটবাজার

Link Copied!

বানিয়াচংয়ে ক্ষতিকর হরমনযুক্ত কেমিক্যাল মিশ্রিত ড্রাগন ফলে বাজার সয়লাভ হয়ে গেছে। বাজারে অবাদে বিক্রি হচ্ছে এই ড্রাগন ফল। প্রশাসনের দৃষ্টি কামনা করেছেন সচেতন মহল।

জানা গেছে, বানিয়াচংয়ে অবাদে বিক্রি করা হচ্ছে মানবদেহের জন্য অত্যধিক পরিমাণে ক্ষতিকর হরমনযুক্ত  ড্রাগন ফল। এগুলো বিক্রি বন্ধের জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভুক্তভোগী সচেতন মহল।

বানিয়াচং উপজেলার বিভিন্ন হাটেবাজারে অবাদে বিক্রি করা হচ্ছে মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর বিষাক্ত হরমনযুক্ত ড্রাগন ফল। এই সমস্ত ড্রাগনফল খেয়ে উপকারের চেয়ে মানবদেহের জন্য ক্ষতি হচ্ছে অনেক বেশি।

মঙ্গলবার (২৬ডিসেম্বর সকালে বানিয়াচংয়ের বিভিন্ন ফলভান্ডার ঘুরে দেখা গেছে যেসব ড্রাগন ফল বিক্রি করা হচ্ছে তা স্বাভাবিকের চেয়ে আকারে অনেক বড়। আর এগুলো গাছে থাকা অবস্থায় ড্রাগনের পিছনের অংশের ফুল তুলে আকারে অনেক বড় করে তৈরি করার জন্য তিন দফা বিষক্রিয়া হরমন স্প্রে করে থাকে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বানিয়াচং বড় বাজারের একজন ফল বিক্রেতা জানান, আগে প্রকৃত ড্রাগনফল পাওয়া যেত। এখন সেগুলো আর বাজারে পাওয়া যায় না। এখন যা বিক্রি করা হচ্ছে এগুলো গাছে থাকা অবস্থায় এক ধরনের মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর হরমন স্প্রে করে আকারে অনেক বড় তৈরী করে তা বিক্রি করা হচ্ছে।

বিষ মুক্ত একটি ড্রাগনের ওজন হয়ে থাকে ২০০ থেকে ২৫০ গ্রাম। আর হরমোন স্প্রে করা একটি ড্রাগনের ওজন ৮০০ গ্রাম থেকে এক কেজির বেশি হয়ে থাকে। আগে একটি ড্রাগন ফল বিক্রি করা হয়েছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা। আর এখন ক্ষতিকর হরমোন স্প্রে করা একটি ড্রাগন ফল বিক্রি করা হচ্ছে ১৫০ টাকা থেকে ২০০ টাকা। তারা প্রশাসনের দৃষ্টি কামনা করেছেন।

জানা যায় কিছু অসাধু ড্রাগন ফল চাষি ও পাইকারি ব্যবসায়ীরা অধিক লাভের আশায় মানবদেহের জন্য অধিক পরিমাণে ক্ষতিকর হরমোন স্প্রে করে আকারে অনেক বড় করে তা বিক্রি করছে। অধিকাংশ ফল ব্যবসায়ীরা বলেন, তারা জানে না ড্রাগন ফল আগের চেয়ে আকারে এতো বড় করা হয়েছে কীভাবে। আর এর কি কি ক্ষতি হয়ে হয়ে থাকে।

যমুনা মেডিকেল সেন্টারের পরিচালক মোক্তাদির হাসান সেবুল, একজন সচেতন নাগরিক শেখ সজীব হাসান, মোঃ বাবলু মিয়া, বানিয়াচং আইডিয়াল কলেজের প্রভাষক জসিম উদ্দিন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোসাহিদ সহ আরও অনেকে বলেন, ক্ষতিকর বিষযুক্ত হরমোন স্প্রে করে তৈরি করা বড় আকারে ড্রাগন ফল খাইলে মানবদেহে মারাত্মক ক্ষতি হচ্ছে। এর দ্রুত প্রতিকার করা দরকার।

এ ব্যাপারে জেলা নিরাপদ খাদ্য কর্মকর্তা মোঃ শাকিব হোসেন দৈনিক আমার হবিগঞ্জ কে বলেন, কৃত্রিম উপায় তৈরি করা ড্রাগন ফল মানবদেহের জন্য অবশ্যই ক্ষতিকর। তবে বাজারের ড্রাগন ফলে যে হরমুন কিংবা ক্যামিকেল যুক্ত করা হয়েছে তাতে মানব দেহের কী ক্ষতি করে তা এখন ও বলা যাচ্ছে না।

আমরা অলরেডি অনেকগুলো সিম্পল গ্রহণ করেছি এবং এগুলো টেষ্ট করার জন্য ইন্দোনেশিয়া পাঠানো হয়েছে এবং এর রিপোর্ট আসলে কী কী ক্ষতি হয় তা জেনে আমরা এটা প্রতিকার এর জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।