ঢাকাবৃহস্পতিবার , ৬ জানুয়ারি ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আজমিরীগঞ্জে চলছে মাটি কাটার মহোৎসব : প্রশাসনের অভিযানেও থেমে নেই বালু খেকোরা

দিলোয়ার হোসেন
জানুয়ারি ৬, ২০২২ ৭:১১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

আজমিরীগঞ্জে কোনভাবেই আটকানো যাচ্ছে না অবৈধভাবে মাটি উত্তোলন। আজমিরীগঞ্জ প্রশাসন কয়েকবার অভিযান চালিয়ে মোবাইল কোর্ট এর মাধ্যমে জেল জরিমানা করার পরও সক্রিয় রয়েছে মাটিখেকো সিন্ডিকেট।
কখনো রাতের বেলা অন্ধকারে আবার কখনও দিনের আলোতেই আবাদী ফসলী জমি কেটে চলছে মাটি উত্তোলন।

সরজমিন ঘুরে দেখা যায়,  আজমিরীগঞ্জ- পাহাড়পুর রোডের ৪ জায়গায় চলছে এক্সাভেটর দিয়ে মাটি উত্তোলন।পৌরসভাস্থ আদর্শনগর গ্রাম,পিরিজপুরের হিলালনগর,কলা বাগান,পাহাড়পুরের সুনামপুরে শক্তিশালী এক্সাভেটর দিয়ে দিনে-দুপুরে চলছে মাটি কাটার মহোৎসব।
এছাড়াও শিবপাশার হাওর ও বদলপুর ইউনিয়নের ঝিলুয়া গ্রামে করাতী জঙ্গলের আজমিরীগঞ্জ সীমানায় একাধীক এক্সাভেটর দিয়ে আবাদী ফসলী জমি ও গবাদীপশু চরনভূমি কেটে পুকুর ও বসতভিটা তৈরীর খবর ও পাওয়া গেছে।
বদলপুর ইউনিয়নের পাহাড়পুরের সুনামপুরে অবৈধভাবে এক্সাভেটর দিয়ে মাটি কাটার তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে এক্সাভেটর মেশিনের দায়িত্বে থাকা উজ্জল মিয়া বলেন,এখানে আমরা স্থানীয় মেম্বার অরুন তালুকদারের সাথে কন্টাক্টে এসেছি। কোনটা বৈধ কোনটা অবৈধ আমি জানিনা। তবে আজমিরীগঞ্জেই এক্সাভেটর দিয়ে মাটি কাটলে প্রশাসন বাধা দেয় আমি বানিয়াচং ও নবীগঞ্জে বিনা বাধায় জমি কেটে পুকুর তৈরী করেছি।
বর্তমানে নবীগঞ্জে আমার দুটি এক্সাভেটর চলমান আছে। আপনারা কিছু জানার থাকলে অরুন মেম্বারকে কল দেন। আমার এক্সাভেটর মেশিনের ছবি তুলবেনা না । একপর্যায়ে সে নিজেকে হবিগঞ্জ পৌর যুবলীগের নেতা দাবী করে।
প্রশাসনের চলমান অভিযানের পর মাটিখেকো সিন্ডিকেটের বিভিন্ন কৌশলে আবাদী ফসলী জমি কেটে মাটি উত্তোলনের ঘটনা নিয়ে চলছে আলোচনা-সমালোচনা। যথাযথ আইন প্রয়োগের মাধ্যমে ফসলী জমি রক্ষায় প্রশাসনের সুনির্দিষ্ট ভূমিকা নিতে সচেতন মহল মত প্রকাশ করেন।
অবৈধভাবে এক্সাভেটর দিয়ে ফসলী জমি নষ্ট করার ব্যাপারে আজমিরীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুলতানা সালেহা সুমীর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি দৈনিক আমার হবিগঞ্জ কে জানান, এক্সাভেটর চলার তথ্যটি আপনাদের মাধ্যমে জানলাম।
এর আগেও কয়েকটি মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে জেল-জরিমানা করেছি। ফসলী জমি নষ্ট করে যারা মাটি উত্তোলন করছে আজমিরীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন কাউকেই ছাড় দিবে না।

Developed By The IT-Zone