ঢাকাশুক্রবার , ১৩ মার্চ ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

১৩ মার্চ ১৯৭১

অনলাইন এডিটর
মার্চ ১৩, ২০২০ ৯:৪৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

নুরুজ্জামান মানিক
নির্বাহী সম্পাদক

এদিনে সরকারি ও আধা সরকারি অফিসার কর্মচারীদের অব্যাহত ধর্মঘটের মুখে শাসক কর্তৃপক্ষ ১১৫ নং সামরিক আদেশ জারি করে আগামী ১৫ মার্চ সকাল ১০টার মধ্যে প্রতিরক্ষা বিভাগের বেসামরিক কর্মচারীদের কাজে যোগদানের নির্দেশ দেয়। এই সামরিক নির্দেশে বলা হয়, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে কাজে যোগদানে ব্যর্থ হলে সংশ্লিষ্টদের চাকরিচ্যুত ও পলাতক ঘোষণা করে সামরিক আদালতে বিচার করা হবে। নির্দেশ অমান্যকারীদের সর্বোচ্চ ১০ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড দেওয়া হবে। সামরিক নির্দেশ জারির পর পরই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একটি বিবৃতি দেন। বিবৃতিতে বঙ্গবন্ধু বলেন, যখন আমরা সামরিক শাসন প্রত্যাহারের জন্য বাংলার জনগণের প্রচণ্ড দাবির কথা ঘোষণা করেছি, ঠিক তখন নতুন করে এ ধরনের সামরিক নির্দেশ জারি পক্ষান্তরে জনসাধারণকে উসকানি দেওয়ার শামিল। অচলাবস্থা দূরীকরণের লক্ষ্যে পিপলস পার্টি ও কাইয়ুম মুসলিম লীগ ব্যতীত পশ্চিম পাকিস্তানকেন্দ্রিক অন্যান্য রাজনৈতিক দলের নেতারা লাহোরে মিলিত হয়েদাবি জানায় শেখ মুজিবের দাবি মেনে নেওয়ার জন্য। ভুট্টোর নীতি ভিন্নতর ছিল এবং তিনি নিঃসন্দেহে ইয়াহিয়ার বুদ্ধিদাতা ছিলেন।

Developed By The IT-Zone