ঢাকাসোমবার , ২২ আগস্ট ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

হবিগঞ্জের পৈল গ্রামে শ্মশান নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ : বন্ধ রয়েছে লাশ দাহ

আতাউর রহমান ইমরান
আগস্ট ২২, ২০২২ ৮:৩৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

হবিগঞ্জ সদর উপজেলার পৈল গ্রামের মেস্তরহাটি শ্মশান নির্মাণ কাজে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে ইউনিয়ন
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শিবেন্দ্র চন্দ্র দেব শিবুর বিরুদ্ধে।

এলাকাবাসী অভিযোগ করেন তিনি নিজের মনমতো প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি বানিয়ে মনগড়া ভাবে শ্মশানের লাশ পোড়ানোর স্থান নির্মাণ করেন।

পূজা উদযাপন কমিটি কিংবা হিন্দু-বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নেতৃবৃন্দসহ এলাকার বিশিষ্টজনদের মধ্যে কারো সাথেই পরামর্শ করেননি তিনি। ফলশ্রুতিতে ডিজাইনের ত্রুটির কারণে লাশ দাহ করার কাজ করা সম্ভব হচ্ছে না বলে অভিযোগ উঠেছে।

মেস্তর হাটির মেস্তরহাটির বাসিন্দা দিলীপ সূত্রধর ও দুলাল সূত্রধর অভিযোগ করে বলেন, লাশপোড়ানোর স্থানটি যথেষ্ট পরিমাণে প্রশস্ত হয়নি। এ কারণে এতে লাশ পোড়ানো যাচ্ছে না। এতে যে লোহা ব্যবহার করা হয়েছে সেগুলি নিম্নমানের। লাশ আগুনে দহন করলে এ লোহা নষ্ট হয়ে যাবে।

এ বিষয়ে শিবেন্দ্র চন্দ্র দেব জানান, তিনি শ্মশান বানানোর কাজ করার সময় এলাকার লোকজনের পরামর্শ নিয়েছেন তবে কমিটি করার সময় তিনি অন্য কাউকে জানান নি। তিনি জানান, হবিগঞ্জের শ্মশান ঘাটে নির্মিত শ্মশানের মানুষ পোড়ানোর স্থানের মতই মেস্তর হাটের শ্মশানের কাজ করেছেন।

বছর দেড়েক আগে শ্মশান নির্মাণ করলেও শ্মশানকালী পূজা না করায় এখনো মরা পোড়ানোর কাজ করা যাচ্ছে না। এখনো শ্মশানকালী পূজা করা হচ্ছে না কেন এ প্রশ্নের উত্তরে তিনি সদুত্তর দিতে পারেননি।

২ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা ব্যয়ে নির্মানকাজ করা হয়েছে জানালেও শিবেন্দ্র জানান, এ কাজে ৯০ হাজার টাকার টিআর বরাদ্দ পান তিনি। এছাড়া মাটি ভরাট কাজ করেন ২ লক্ষ টাকা ব্যয়ে। এ বিষয়ে হবিগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বর্ণালী পালের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বিষয়টি আগে দেখতে হবে। যদি এরকম হয়ে থাকে তাহলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Developed By The IT-Zone