ঢাকাশুক্রবার , ২৯ নভেম্বর ২০১৯
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সাড়ে ৩ বছরেও আলোর মুখ দেখেনি হবিগঞ্জ পৌর ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ
নভেম্বর ২৯, ২০১৯ ১২:৪৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ছবিঃ ২০১৬ সালের এপ্রিল মাসে অনুষ্ঠিত বাং লাদেশ ছাত্রলীগ হবিগঞ্জ পৌর শাখা, বৃন্দাবন সরকারি কলেজ ও বাহুবল উপজেলা শাখার সন্মেলনের ফাইল ছবি। 

রায়হান উদ্দিন সুমন: এক বছরের কমিটির সাড়ে ৩ বছর গড়ালেও এখনো হবিগঞ্জ জেলার পৌর ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়নি। ফলে সংগঠনটির নেতাকর্মীদের মধ্যে চরম হতাশা ও ক্ষোভ বিরাজ করছে।

পৌর ছাত্রলীগের নেতারা  নানামুখী চাপে রয়েছেন বলে যানা যায় । দীর্ঘদিন ধরে এ কমিটি পূর্ণাঙ্গ না হওয়ায় ভিতরে ভিতরে নানা গ্রুপ-উপগ্রুপে বিভক্ত হয়ে পড়েছে পৌর ছাত্রলীগ।

জানা যায়,হবিগঞ্জ জেলার আওতাধীন পৌর ছাত্রলীগের ঘোষিত কমিটিতে সভাপতি ফয়জুর রহমান রবিন,সহ-সভাপতি মাহমুদুল হাসান শিহাব,সহ-সভাপতি ঝলক রায় জনি,সহ-সভাপতি মনসুর আহমেদ,সাধারণ সম্পাদক হিসেবে জুবায়ের আহমে পারভেজ,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রুয়েল আহমেদ,য্গ্মু সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল হক জিয়া,সাংগঠনিক সম্পাদক মো.রিয়াদ হোসেন,সাংগঠনিক সম্পাদক জুবেদ আহমেদ সবুজ ও সাংগঠনিক সম্পাদক মজনু আহমেদ তুহিন এই ১১ জনকে দিয়ে বিগত ২০১৬ সালের এপ্রিল মাসের ২০ তারিখ পৌর ছাত্রলীগের কমিটি অনুমোদন দেন তৎকালীন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ডা.ইসতিয়াক রাজ চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মুকিদুল ইসলাম মুকিদ।

ছবিঃ তৎকালীন হবিগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি/সেক্রেটারি কর্তৃক পৌর ছাত্রলীগের ১১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি। 

প্রায় সাড়ে ৩ বছর পেরিয়ে গেলেও অদ্যবধি এই কমিটি পুর্ণাঙ্গ করতে পারেনি বর্তমান পৌর কমিটি নেতৃবৃন্দরা। অন্যদিকে পূর্ণাঙ্গ কমিটি তো দুরের কথা এখন পর্যন্ত একটি ওয়ার্ড কমিটিও করতে পারেনি বলে জানা গেছে।

পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা জানান,আমাদের কর্মীদের মনের অবস্থা,আশা আকাঙ্খার কথা একবারও কি সিনিয়র নেতারা উপলব্ধি করতে পারেন না। সেই প্রশ্নটি আমরা সিনিয়র নেতাদের কাছে রাখতে পারিনা ? রাজনীতি সবাই সারা জীবনের জন্য করতে আসেনা। কেউ কেউ হয়তো দলের মায়ায় সারাজীবন ই দলের সাথে নিজেকে আকড়ে ধরে বেঁচে থাকতে চান।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক ছাত্রলীগের নেতারা জানান,আজ পর্যন্ত পৌর ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি না হওয়ায় নেতাকর্মীদের মনোবল ভেঙ্গে গেছে। কার্যক্রমেও নেমে এসেছে স্থবিরতা। এভাবে চলতে থাকলে ভবিষ্যতে তারুণ্যনির্ভর দল ছাত্রলীগ করার মতো কাউকে খোঁজে পাওয়া যাবেনা।

বিষয়টি নিয়ে কথা হয় পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়জুর রহমান রবিনের সাথে। তিনি এই প্রতিবেদককে জানান, তৎকালীন জেলা সভাপতি/সেক্রেটারি দেই দিচ্ছি বলে আর দিলেন না। আমরা আশা করছি কয়েকদিনের মধ্যেই পূর্ণাঙ্গ কমিটি করতে পারবো। আর যদি না করতে পারি তাহলে জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের পরে করে ফেলবো।

পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জুবায়ের আহমেদ পারভেজ জানান, কমিটি পুর্ণাঙ্গ করার জন্য আমি সাবেক কমিটির সভাপতি রাজ ভাই ও সাধারণ সম্পাদক মুকিদ ভাইর সাথে অনেকবার যোগাযোগ করেছি। কিন্তু কমিটি পুর্ণাঙ্গ করার জন্য তাদের কোন সহযোগিতা পাইনি । তাছাড়া বর্তমান কমিটির সভাপতি সাইদুর ভাই এবং সাধারণ সম্পাদক মাহী ভাই ও কমিটি পুর্ণাঙ্গ করার বিষয়ে পাত্তা দিতে রাজি না। তবে আমি যে কোন মুহূর্তে হবিগঞ্জ পৌর ছাত্রলীগের পুর্ণাঙ্গ কমিটি করার জন্য প্রস্তুত আছি।

Developed By The IT-Zone