ঢাকারবিবার , ২৬ জানুয়ারি ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

শিল্পায়ন আশীর্বাদ না অভিশাপ ? বিস্তারিত পড়ুন সাংবাদিক ডিউকের কলামে

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ
জানুয়ারি ২৬, ২০২০ ১১:৪৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সৈয়দ হাবিবুর রহমান ডিউক : হবিগঞ্জে বিভিন্ন ধরণের ইন্ডাষ্ট্রি গড়ে উঠায় শিল্পায়নে অনেকটাই সমৃদ্ধ হয়ে উঠেছে এ শহর।শিল্পায়নের ছোয়ায় অনেক গ্রামাঞ্চল শহরায়নে রুপ নিয়েছে। আমরা ভোগ করছি গড়ে উঠা এসব শিল্পায়নের সুফলগুলো।গ্রামায়ন শহরায়নে রুপান্তরিত হওয়ায় কমছে বেকারত্বের হার, বেড়েছে কর্মমুখী মানুষের হার। ব্যাপকভাবে শিল্পায়নের প্রসার হওয়ায় নারী শ্রমিকদের অংশগ্রহন চোখে পড়ার মত। তবে এসব শিল্পায়নের নেতিবাচক প্রভাব যে খুব কম তা কিন্তু ভেবে বসে থাকার উপায় নেই।আধুনিক প্রজন্মের সেরা বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং তাই আগেই বলে গিয়েছিলেন

বিজ্ঞানই মানবজাতির জন্য সবচেয়ে ভয়াবহ হুমকি। বিজ্ঞান মানুষের জন্য আশির্বাদ না অভিশাপ- এ নিয়ে বহুকাল ধরে মানুষের মধ্যে মত পার্থক্য বিদ্যমান। অনেকে বিজ্ঞানকে মনে করেন আধুনিক বিশ্বের জন্য আশির্বাদ। আবার অনেকে মনে করেন অভিশাপ। সেই তর্ক-বিতর্কের জাল ছিন্ন করলেন আধুনিক প্রজন্মের ।এই বিষ্ময়কর বিজ্ঞানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিকে মানব জাতির জন্য ভয়াবহতম বিপদ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। এদিকে হবিগঞ্জে নগরায়নের প্রসার হওয়ায় ৮০% কৃষিকাজে নির্ভরশীল মানুষগুলো হারিয়ে ফেলছে তাদের একমাত্র সহায় সম্বল ফসলী জমি। পতিত অবশিষ্ট জমিগুলোতে ও শিল্পায়নের প্রভাবে ফসল ভাল হচ্ছে না, অত্র এলাকার মানুষ আজ পরিবেশ বিপর্যয়ের সম্মুখীন।

বিভিন্ন কোম্পানির বজ্র নিস্কাষণ না করেই নদীর খাল সমুহে ছাড়ার ফলে নদী সকল মাছ ভেসে উঠেছে। নদী হারাচ্ছে তার নব্যতা, মাটি হারাচ্ছে তার উর্বরতা। অত্র এলাকার হাজার হাজার মানুষ যারা মাছ বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করেন,তারা বেকার হতে চলেছেন।গ্রামের মানুষ জন এই মাছ খাওয়ার ফলে পেটের পিড়া ছাড়াও দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হচ্ছেন।এলাকার কুমার সম্প্রদায়ের মানুষের জীবিকা আজ হুমকির মুখে। ইতিমধ্যে এই দূষিত পানি ও ঘাস খেয়ে উল্লেখ সংখক গবাদি পশুপাখির মারা গিয়েছে এবং জীববৈচিত্র্য হুমকির সম্মুখীন। শিল্পায়নের একদিকে যেমন রয়েছে সুফল তেমনি অন্যদিকে রয়েছে এর কুফল। ভবিষৎতে এর হাত থেকে পরিবেশকে বাচিয়ে তোলার জন্য আমাদেরকে এখনই সচেতন হয়ে উঠতে হবে, এবং আগামী প্রজন্মকে এব্যাপারে জ্ঞান অর্জনের জন্য কৌতুহলী করে তুলতে হবে।

Developed By The IT-Zone