ঢাকাসোমবার , ২৩ মার্চ ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

শহরতলীর এড়ালিয়ায় গৃহবধু অনুফা হত্যার রহস্য উন্মোচন

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ
মার্চ ২৩, ২০২০ ৭:৫০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

তারেক হাবিব, হবিগঞ্জ :   হবিগঞ্জ শহরতীর এড়ালিয় গ্রামে ৩ মাসের অন্তঃসত্তা স্ত্রীকে হত্যার রহস্য উন্মোচন করেছেন হবিগঞ্জ সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুুপার মোঃ রবিউল ইসলাম বিপিএম, পিপিএম। হত্যার দ্বায় স্বীকার করেছে পাষন্ড স্বামী ঘাতক বিলাল হোসেন। রোববার (২২মার্চ) এ বিষয়ে হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ তৌহিদুল ইসলামের আদালতে প্রধান আসামী ঘাতক বিলাল মিয়া ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিও প্রদান করেছে সে।

ঘাতক বিলালের ছবি

সদর থানার ওসি মোঃ মাসুক আলী জানান, নিহত অনুফা ও ঘাতক বিলাল পরস্পর আপন চাচাত ভাই-বোন হবার সুবাদে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এক পর্যায়ে তারা পরিবারের অমতে পালিয়ে বিয়ে করে। বিয়ের পর পূনরায় পৈতিক ভিটায় ফিরে আসলে অনুফাকে যৌতুকের জন্য চাপ প্রয়োগ করে বিলালের বাবা মা। বিভিন্ন সময় শুনতে হয় নানান গাল-মন্দ, কথা-বার্তা। এক পর্যায়ে বিলালের মা-বোনের প্ররোচনায়ই ১৮ মার্চ রাতে বিলাল অনুফাকে গলাটিপে হত্যা করে লাশ নিয়ে সারারাত বসে থাকে।
ফজরের আজানের আগে স্থানীয় জামে মসজিদের পুকুরে অনুফার মৃত দেহ ফেলে দেয়। সকালে স্থানীয় লোকজন লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। এদিকে বিলাল ও তার পরিবার অনুফা আত্মহত্যা করেছে বলে প্রচার করে। বিষয়টি হবিগঞ্জ সদর থানা পুলিশের সন্দেহ হলে বিলাল ও তার মা এবং বোনকে আটক করে জিঞ্জাসাবাদ করলে তারা হত্যার দায় স্বীকার করে।

 

Developed By The IT-Zone