ঢাকামঙ্গলবার , ২৬ জুলাই ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

লাখাইয়ে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ প্রার্থীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ-নারী নির্যাতন ও ২য় বিয়ে করার অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার
জুলাই ২৬, ২০২২ ১০:৩৩ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

লাখাই উপজেলায় প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ভাইভা প্রদানকারী এক নিয়োগ প্রার্থীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ, স্ত্রীকে নির্যাতন ও প্রথম স্ত্রীকে না জানিয়ে দ্বিতীয় বিবাহের অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত ওই নিয়োগ প্রার্থী হচ্ছেন লাখাই উপজেলার জিরুন্ডা গ্রামের বাসিন্দা মৃত আব্দুল কুদ্দুছের পুত্র আব্দুল আল মাসুম।

এসব অভিযোগে তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা আদালতে চলমান রয়েছে। এরমধ্যে গত ২৪ জুলাই মাসুমের ১ম স্ত্রী সাথী আক্তার স্মৃতি বাদী হয়ে ১ম স্ত্রী হিসেবে তার অনুমতি ছাড়া ২য় বিয়ের অভিযোগে মামলা করেন।

এর আগে ২০২০ সালের ৪ অক্টোবর প্রথম স্ত্রী সাথী বাদী হয়ে শারীরিক ভাবে মারপিট করে নারী নির্যাতনের অভিযোগে মাসুমের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে জেল খাটেন তিনি।

এছাড়া তার বিরুদ্ধে একাধিক স্কুল ও মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে পড়ানোর নাম করে ধর্ষনের মামলা রয়েছে। মাসুমের প্রথম স্ত্রী সাথী আক্তার স্মৃতির দায়ের করা মামলা সুত্রে জানা যায়, ২০১৪ সালে ৫ লক্ষ টাকার দেন মোহরর তাদের বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই যৌতুকের দাবি করে সাথীর নিকট থেকে টাকা পয়সা নেন মাসুম।

বছর তিনেক আগে যৌতুকের দাবিতে নির্যাতন করে সাথীকে মাসুম তাড়িয়ে দিলে তিনি একটি নারী নির্যাতন মামলা দায়ের করেন। এরপর মাসুম আরেক নারীকে বিয়ে করে নেন।

এ ব্যাপারে সাথী প্রতিবাদ জানালে মাসুম তাকে খুন করার হুমকি দেন। মাসুমের প্রথম স্ত্রী সাথী এ প্রতিবেদক কে জানান, দুই সন্তানকে নিয়ে তিনি মানবেতর অবস্থায় দিন যাপন করছেন। তাদের ভরণপোষণ সহ কোন কিছুই মাসুম প্রদান করেন না।

বিস্তারিত জানতে অভিযুক্ত মাসুমের মোবাইলে একাধিক বার রিং দিলেও সে রিং ধরেনি । এ বিষয়ে স্থানীয় কয়েকজন জানান, এ ধরনের চরিত্রের লোক শিক্ষকতার মতো মহান পেশায় নিয়োগ পেলে কোমলমতি শিশুদের ক্ষতি হতে পারে।

Developed By The IT-Zone