ঢাকাশনিবার , ২ জুলাই ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

লাখাইয়ে চেয়ারম্যান সার্টিফিকেট জালিয়াতি করে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের ভাইভা দেয়ার অভিযোগ

আতাউর রহমান ইমরান
জুলাই ২, ২০২২ ১০:৫৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নিতে গিয়ে চেয়ারম্যান সার্টিফিকেট জালিয়াতি করে আবেদনের সাথে দাখিল করার অভিযোগ উঠেছে এক চাকরি প্রার্থীর বিরুদ্ধে।

অঞ্জন চন্দ্র গোপ নামের ওই চাকরি প্রার্থী হবিগঞ্জ পৌরসভার ঘোষপাড়ার বাসিন্দা মানিক লাল গোপের পুত্র।

অথচ তিনি লাখাই উপজেলার চন্দ্রপুর গ্রামের স্থায়ী বাসিন্দা হিসাবে চাকরির আবেদন করেন। পরবর্তীতে চন্দ্রপুর গ্রামের বাসিন্দা হিসেবে
চেয়ারম্যান সার্টিফিকেট ও দাখিল করেন তিনি।

তবে চন্দ্রপুর গ্রামটি যে ইউনিয়নে অবস্থিত সেই বুল্লা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান এডভোকেট খোকন চন্দ্র গোপ অভিযোগ করেন, অঞ্জন চন্দ্র গোপ চন্দ্রপুর গ্রামের বাসিন্দা নন বিধায় তিনি তাকে সার্টিফিকেট দেন নি। অঞ্জন জালিয়াতি করে সার্টিফিকেট দাখিল করেছেন।

এ বিষয়ে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ গোলাম মাওলার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বিষয়টি তিনি অবগত হয়েছেন।

এব্যাপারে খোঁজখবর নিয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এদিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ ২০২০ এর পরীক্ষার্থী হিসেবে অঞ্জন পরীক্ষার সকল ধাপ উত্তীর্ণ হয়ে ভাইভায় অংশগ্রহণ করেছেন বলে তথ্য পাওয়া গিয়েছে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত চাকরিপ্রার্থী অঞ্জনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি নিজেকে চন্দ্রপুর
গ্রামের বাসিন্দা হিসেবে দাবি করেন।

এসময় তিনি এ প্রতিবেদকের সাথে সরাসরি দেখা করে সব কথা বলতে চান। তাকে অফিসে এসে দেখা করে তার বক্তব্য সহ কাগজপত্র দেখাতে বলা হলেও তিনি নির্ধারিত সময়ে আসেননি।

পরবর্তীতে একাধিকবার তার মোবাইলে কল দেওয়া হলেও এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সেটি বন্ধ পাওয়া যায়।

বিষয়টি জানাজানি হয়ে যাওয়ায় অনেকেই মন্তব্য করেন, মিথ্যা তথ্য প্রদান করে শিক্ষকতার মত মহান পেশায় নিয়োগ পেতে চাওয়া কাউকে নিয়োগ দেয়া হলে শিক্ষাঙ্গন কলুষিত হবে।

Developed By The IT-Zone