ঢাকাবৃহস্পতিবার , ৮ ডিসেম্বর ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

লাখাইয়ে উপজেলা শিক্ষা অফিসার মজনুর রহমানের বিরুদ্ধে শিক্ষা উপকরণ আত্মসাতের অভিযোগ

আতাউর রহমান ইমরান
ডিসেম্বর ৮, ২০২২ ১০:৪৮ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

লাখাইয়ে উপজেলা শিক্ষা অফিসার মজনুর রহমানের বিরুদ্ধে জাতীয় শিক্ষার্থী মূল্যায়ন পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য বরাদ্দকৃত শিক্ষা উপকরণ না দিয়ে পরীক্ষা নেয়া ও তা আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠেছে।

গত ৬ ডিসেম্বর লাখাই উপজেলার ১১ টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এবছর উপজেলার এগারোটিবিদ্যালয়ের তৃতীয় ও পঞ্চম শ্রেণীতে পড়ুয়া ৪৬২ জন শিক্ষার্থী এ পরীক্ষায় অংশ নেন।

পরীক্ষা শুরুর পূর্বেই পরীক্ষায়অংশগ্রহণের পূর্বেই পরীক্ষার্থীদেরকে বরাদ্দকৃত স্কেল, পেন্সিল, ইরেজার সহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় শিক্ষা উপকরণ উপজেলাশিক্ষা অফিসার সরবরাহ করার কথা থাকলেও তা করেননি।

শিক্ষা উপকরণের জন্য শিক্ষার্থী প্রতি একশত টাকা করে বরাদ্দদেয়া হয়। নিয়মানুযায়ী এ বরাদ্দ দিয়ে শিক্ষা উপকরণ সরবরাহ করার দায়িত্ব উপজেলা শিক্ষা অফিসার পালন করেন।

যদিও উপজেলা শিক্ষা অফিসার মজনুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে প্রতিটি বিদ্যালয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে পরীক্ষা শুরুর পূর্বেই এ উপকরণ গুলি সরবরাহ করা হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

তবে উপজেলার মনতৈল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ভরপুর্নি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, জিরুন্ডা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সাতাউক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,বুল্লা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মুসলিমা ইউসুফ সরকারী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সেখানে দায়িত্ব পালনকারী একাধিক পরীক্ষা সুপারভাইজার জানান এসব বিদ্যালয়ে শিক্ষা অফিসার মজনুর রহমান কোন শিক্ষা উপকরণ সরবরাহ করেননি।

একাধিক বিদ্যালয়ে সরেজমিনে গিয়ে পরিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলে শিক্ষা উপকরন না দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়।

বিষয়টি জানাজানি হওয়ায় অভিভাবকরা ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, কোমলমতি শিক্ষার্থীদের জন্য বরাদ্দকৃত শিক্ষা উপকরণ না দিয়ে সামান্য কিছু টাকা আত্মসাৎ করার লোভ সংবরণ করতে না পারা সত্যিই হতাশাজনক।

এ ব্যাপারে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ গোলাম মাওলার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বিষয়টি জেনে ব্যবস্থা নেবেন।

Developed By The IT-Zone