ঢাকাসোমবার , ৬ জানুয়ারি ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বানিয়াচং-হবিগঞ্জ লাইনে বাড়তি ভাড়া আদায় : ক্ষোভ জানিয়েছেন আলেম সমাজ

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ
জানুয়ারি ৬, ২০২০ ৫:২৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

রায়হান উদ্দিন সুমন :  বানিয়াচং-হবিগঞ্জ লাইনে নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে অতিরিক্ত ভাড়া নিয়েছে এই লাইনে চলাচলকারী বিভিন্ন গাড়ির চালকরা। বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ জানিয়েছেন বানিয়াচংয়ের আলেম সমাজ থেকে শুরু করে সর্বস্তরের মুসলমানগণ। পাশাপাশি বিষয়টিতে প্রশাসনের দৃষ্টি দেয়ার জন্য জোর দাবি করেছেন তারা।

সোমবার (৬জানুয়ারি) সিলেট বিভাগের বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন,দেশের পূর্বাঞ্চলের শীর্ষ স্থানীয় বুজুর্গ হবিগঞ্জ জামেয়া ইসলামিয়া আরাবিয়া টাইটেল মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা আল্লামা তাফাজ্জুল হক সাহেবে জানাজার নামাজ ছিল সকাল ১০টায় উক্ত মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে। এই জানাজার নামাজে অংশ গ্রহন করার জন্য বানিয়াচং থেকে হাজার হাজার মুসলমান সেখানে যাওয়ার জন্য বানিয়াচং বড়বাজার,নতুনবাজারে গাড়ির স্ট্যান্ডে আসলে তাদের কাছ থেকে এই লাইনের নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে বেশি ভাড়া আদায় করে গাড়ি চালকরা। বিশেষ করে সিএনজি,বাস চালকরা স্ট্যান্ডে গাড়ি নাই এই অজুহাত দেখিয়ে বাড়তি ভাড়া নিয়েছে।

অপরদিকে অনেক মুসল্লিরাই জানাজার নামাজে অংশ নেয়ার ইচ্ছে থাকার পরও পরিবহন না পেয়ে নির্ধারিত স্থানে যেতে পারেননি। সিএনজি বাস চালকদের বেশি ভাড়া নেয়ার ফলে বিষয়টি নিয়ে বানিয়াচংয়ের অনেক আলেম ও মুসল্লিরা ক্ষোভ জানিয়েছেন দৈনিক আমার হবিগঞ্জের কাছে। তারা জানান,দেশের একজন খ্যাতিমান বুজুর্গ’র জানাজার নামাজে অংশ নেয়ার জন্য দুর-দুরান্ত থেকে ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা আসলে তাদের কাছ থেকে বিনা অজুহাতে নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে বেশি ভাড়া নিয়েছে চালকরা। এটি কোন ধরণের মানবসেবা। অন্তত:পক্ষে এই দিনে তারা বিশিষ্ট আলেমের সম্মানে ভাড়া কম নিতে পারতো। তা না করে বেশি ভাড়া নিয়েছে। এটা মেনে নেয়া যায়না। বিষয়টি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার,উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান,বানিয়াচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সাথে শীঘ্রই আলাপ-আলোচনা করা হবে বলে জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য,বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ জমিয়তে ওলামায়ে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি আল্লামা তাফাজ্জুল হক গত রোববার (৫জানুয়ারি) বিকেল সোয়া ৪টার দিকে অসুস্থ হয়ে পড়লে সিলেট নেয়ার পথে মৃত্যৃবরণ করেন। পরের দিন সোমবার (৬জানুয়ারি) ১০টায় তারই প্রতিষ্ঠিত উমেদনগর জামিয়া ইসলামিয়া আরাবিয়া টাইটেল মাদ্রাসা ময়দানে জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।

 

ভোর থেকেই জানাজার নাামজে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা মুসল্লিদের উপস্থিতিতে গোটা শহর যানজটে পরিণত হয়। ফলে কয়েক কিলোমিটার হেঁটে মুসল্লিরা জানাজা স্থলে পৌঁছান। লোকে লোকারণ্য হয়ে পড়ে মাদ্রাসা ময়দান। মাদ্রাসার বাইরে নবীগঞ্জ রোডের শচীন্দ্র কলেজের কাছাকাছি ও খোয়াই মুখ পর্যন্ত উভয় রাস্তার প্রায় দেড় কিলোমিটার জুড়ে মুসল্লিরা জানাজার নামাজে অংশ নেন।

 

জানাজার নামাজে সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান, মাওলানা আহমেদ শফির ছেলে আসাদ মাদানি, বেফাকের সেক্রেটারি জুনায়েদ আহমদ বাবু নগরী,জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আলমগীর চৌধুরী,বানিয়াচং উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কাশেম চৌধুরী,উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন খানসহ দেশ বরেন্য উলামায়ে কেরাম,সাংবাদিক,জনপ্রতিনিধিসহ লাখো মুসল্লিরা আল্লামা তাফাজ্জুল হকের জানাজায় অংশ নেন।

জানাজার নামাজ পড়ান তার বড়ো ছেলে মাওলানা মাসরুরুল হক। পরে মাদ্রাসা প্রাঙ্গণেই তাকে দাফন করা হয়।

Developed By The IT-Zone