ঢাকাশুক্রবার , ৩ জুন ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বানিয়াচংয়ে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করলেন শিক্ষক মনিরুল : নেয়া হবে ব্যবস্থা-টিইও

রায়হান উদ্দিন সুমন
জুন ৩, ২০২২ ৯:২৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক সারা দেশের ন্যায় বানিয়াচং উপজেলার ১৬৭ বিদ্যালয়ে স্টুডেন্ট কাউন্সিল নির্বাচন হলেও এদের মধ্যে একমাত্র উপজেলা সদরের বানিয়াচং ৪নং দক্ষিণ-পশ্চিম ইউনিয়নের অন্তর্গত বনমথুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়নি এই নির্বাচন।

ফলে ভবিষ্যতে শিশুদের মধ্যে নিজেদের বোঝাপড়া,অন্যদের মতামতকে গুরুত্ব দেয়া,শিশু বয়সে নেতৃত্ব বিকাশ এবং বিদ্যালয় সুষ্টুভাবে পরিচালনা করার পাশাপাশি মনের ভিতরে গণতান্ত্রিকবোধ জাগ্রত হওয়ার প্রবণতা সুপ্তই রয়ে গেল।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়,বনমথুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনিরুল ইসলাম স্টুডেন্ট কাউন্সিল করার বিষয়ে নাকি বিদ্যালয়ের কোনো শিক্ষকদের নির্দেশনা প্রদান করেননি তিনি। এককথায় সরকারি নির্দেশনা অমান্য করেছেন তিনি। শিক্ষক মনিরুল তার ইচ্ছে মতো বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়া করেন।

এমনকি সরকারি নানা দিবস পালনেও তার অনিহা রয়েছে বলে একটি সুত্র নিশ্চিত করেছে। বিজয় দিবস,স্বাধীনতা দিবস এমনকি কোনো শোক দিবসেও বিদ্যালয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেননি এই শিক্ষক।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে উক্ত বিদ্যালয়ের এক সহকারি শিক্ষক জানান,যেখানে সারা উপজেলা জুড়ে সরকারি বিদ্যালয়গুলোতে একযোগে স্টুডেন্ট কাউন্সিল নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে সেখানে একমাত্র ব্যতিক্রম ছিল আমাদের বিদ্যালয়। প্রধান শিক্ষকের খামখেয়ালিপনার কারণে বিদ্যালয়ে কোনো নির্বাচন করতে পারিনি আমরা। বিষয়টি দু:খজনক বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

এই বিষয়ে জানতে বনমথুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনিরুল ইসলামের সাথে কথা হলে তিনি দৈনিক আমার হবিগঞ্জকে জানান,আমি সারাদিন বিদ্যালয়ের উপবৃত্তির কাজে ব্যস্ত ছিলাম তাই সময় পাইনি। উপবৃত্তির কাজটা গুরুত্বপুর্ণ। পরে এক সময় করে নিব বলে তড়িগড়ি করে ফোনের লাইন কেটে দেন তিনি। (তার সাথে প্রতিবেদকের কথোপকথনের রেকর্ড দৈনিক আমার হবিগঞ্জের কাছে রক্ষিত আছে)।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম সরকার জানান,উপবৃত্তির কার্যক্রম তো সবে মাত্র শুরু হয়েছে। এটার কাজ পরেও করা যেত। নির্বাচনের জন্য তো একটা দিন নির্ধারিত ছিল। এই বিষয়টা আমাকে অন্য আরেকজন বলেছেন। যদি প্রধান শিক্ষক নির্বাচন করে না থাকেন তাহলে সংশ্লিষ্ট এটিইও’কে বলে দিব তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য। (রেকর্ড সংরক্ষিত আছে)।

বিস্তারিত জানতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পদ্মাসন সিংহ দৈনিক আমার হবিগঞ্জকে জানান,বিষয়টা নিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্র্তৃপক্ষের সাথে কথা বলব।

প্রসঙ্গত,বানিয়াচং মনমথুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের পুকুর লীজের টাকা, গাছ কর্তন, অভিভাবকদের সাথে দুর্ব্যবহার, নানা অনিয়ম ও অপকর্মের দায়ে তার অপসারণ ও স্থানান্তরের দাবি ও নানা অনিয়মের অভিযোগসহ তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মামুন খন্দকারের নিকট আবেদন জানিয়েছিলেন উক্ত বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি হামদু মিয়া।

তার এই আবেদনের প্রেক্ষিতে বিভাগীয় মামলা দায়ের করা হয়। মামলা দায়ের করার পর দীর্ঘ এক বছরেরও বেশি সময় ধরে তদন্ত শেষে শিক্ষক মনিরুলের বিরুদ্ধে অভিযোগগুলো প্রমাণিত হওয়ায় নিম্ন গ্রেডে বেতন অবনমিতকরণ কল্পে ব্যবস্থা নেয় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

Developed By The IT-Zone