ঢাকাশনিবার , ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বানিয়াচংয়ে সরকারি খাল থেকে বালু উত্তোলন : হুমকির মুখে রাস্তা ও ব্রীজ

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ
ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২০ ১:০৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

রায়হান উদ্দিন সুমন :   বানিয়াচং সদর ৫/৬ নং বাজার পশুর হাটের বিশাল মাঠ ভরাট হচ্ছে কয়েকটি ড্রেজার মেশিনের সাহায্যে। অবৈধ ড্রেজার মেশিন দিয়ে সরকারি খাল থেকে বালু উত্তোলনের ফলে জনবহুল রাস্তা, ব্রীজ ও আশপাশের বাড়ি-ঘর হুমকির মুখে পড়েছে। যেকোন সময় ব্রীজ ও পার্শ্ববর্তী পাকা রাস্তাটি ধ্বসে পড়তে পারে।

জানা যায়, বর্ষাকালে পশুর হাটটি পানির নীচে তলিয়ে থাকে। ফলে কোরবানীর ঈদের আগে নির্ধারিত স্থানের পশুর হাটটি ৫/৬ নং বাজার ও আশপাশের রাস্তার উপরে বসে। এর ফলে ঈদের আগ পর্যন্ত জনগণকে পোহাতে হয় অবর্ণনীয় দূর্ভোগ। জনগণের দূর্ভোগ কমাতে পশুর হাটে মাটি ভরাটের উদ্যোগ হয় উপজেলা পরিষদ। উপজেলা পরিষদ থেকে অর্থ বরাদ্দ দিয়ে হাটটিতে মাটি ভরাটের ঠিকাদারী দায়িত্ব পান যুবলীগ নেতা আনসার মিয়া, হাফিজ উদ্দিন ও রিয়াজ উদ্দিন। নিয়মানুযায়ী মাটি সংগ্রহের দায়িত্ব ঠিকাদারদের থাকলেও তারা প্রভাব খাটিয়ে সরকারী সুনারু খালে ড্রেজান মেশিন বসিয়ে দিব্বি মাটি উত্তোলন করে যাচ্ছেন। শনিবার (১৫ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে দশটায় গিয়ে দেখা যায়,মাঠের পূর্ব ও পশ্চিম দিকে ড্রেজার দিয়ে বালু উঠাচ্ছে শ্রমিকরা।


এ বিষয়ে কথা হয় বানিয়াচং উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মামুন খন্দকারের সাথে। তিনি জানান, মাটি ভরাট করছে উপজেলা পরিষদ। তাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মহোদয়ই এ বিষয়ে বিস্তারিত ভালো বলতে পারবেন।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ আবুল কাশেম চৌধুরী জানান, টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে মানুষের উপকারের জন্য। ড্রেজার মেশিন দিয়ে মাটি উত্তোলন করলেও ঠিকাদারদের বলা হয়েছে রাস্তা কিংবা আশপাশের মানুষে বাড়িঘরের কোন ক্ষতি না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মতিউর রহমান খান জানান, খাল খনন হবে নির্দিষ্ট বরাদ্দের মাধ্যমে এবং যাথারীতি নিয়মানুযায়ী। ড্রেজান মেশিন দিয়ে মাটি উত্তোলন সরকারীভাবে সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। কেউ যদি আইন অমান্য করে নীতিমালা অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।
ঠিকাদার রিয়াজ উদ্দিন, আনসার মিয়া ও হাফিজ উদ্দিন জানান, রাস্তা কিংবা বাড়িঘরের যাতে ক্ষতি না হয় সেদিকে খেয়াল রেখেই মাটি উত্তোলন করা হচ্ছে। এছাড়া খাল খনন করতে হলেও তো ড্রেজার মেশিন ছাড়া বিকল্প কোন পথ নাই।

Developed By The IT-Zone