ঢাকাবৃহস্পতিবার , ১৯ মার্চ ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বানিয়াচংয়ে প্রতিবন্ধীর বসতঘরে আগুন দিল দুর্বৃত্তরা

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ
মার্চ ১৯, ২০২০ ৬:২৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

জসিম উদ্দিন, বানিয়াচংঃ হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলা সদরের ২ নং উত্তর-পশ্চিম ইউনিয়ন পরিষদের ৬ নং ওয়ার্ডের অন্তর্গত একটি প্রত্যন্ত গ্রাম ঘাগড়াকোণা। এই গ্রামেই ছোট্ট একটি ঘরে ছোট ৩ শিশু এবং স্ত্রী নিয়ে বসবাস করেন বাদল মিয়া (৩৫) নামের এক শারীরিক প্রতিবন্ধী। গত বুধবার রাতে বাদল মিয়া যখন স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন ঠিক তখনই রাত সাড়ে ১১ টার দিকে দুর্বৃত্তরা আগুন ধরিয়ে দেয় তার বসত ঘরে। দাউ দাউ করে পুড়তে থাকে বাদল মিয়ার ঘর। চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা তাকে ঘর থেকে উদ্ধার করে। বাদল মিয়া ও তার পরিবারের সদস্যরা উদ্ধার হলেও পুড়ে যায় তার একমাত্র সম্বল বসত ঘরটি। বাদল মিয়া ও তার স্ত্রী-সন্তানদের আর্তনাদে ভারী হয় ঘাগড়াকোণার পরিবেশ।

খবর পেয়ে ২নং উত্তর-পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ওয়ারিশ উদ্দিন খান ও বানিয়াচং থানার সাব-ইন্সপেক্টর (এসআই) গৌতম সরকার রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এসময় এসআই গৌতম সরকার বাদল মিয়াকে এ ব্যাপারে জিজ্ঞেস করলে তিনি কয়েকজন সন্দেহভাজনদের নাম বললেও পরবর্তীতে অস্বীকার করেন। পরে এ ব্যাপারে গ্রামবাসী কয়েকজনকে জিজ্ঞেস করলে তারা এ বিষয়ে কিছু জানেন না বলে জানান এসআই গৌতমকে।

এসআই গৌতম সিলেটভিউকে জানান, শুনেছি কিছুদিন আগে এই গ্রামে একটি মেলা বসেছিল। ওই মেলাকে কেন্দ্র করে নাকি কতিপয় যুবকের সাথে ঝগড়া হয় ঘাগড়াকোণা গ্রামের কয়েকজন বাসিন্দার সাথে। এর সূত্র ধরেই প্রতিবন্ধীর ঘরে আগুন দিয়েছে দূর্বৃত্তরা। তবে কে বা কারা আগুন দিয়েছে সে ব্যাপারে এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত থানায় কেউ অভিযোগ করেন নি বলে জানান এসআই গৌতম।

আজ বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) বেলা ১১ টার দিকে সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায় বাদল মিয়া তার পুড়ে যাওয়া ঘরের পাশে বসে বিলাপ করছে। ‘আমার সব শেষ, সব পুইড়া ছাই অইয়াগেছে রে! হায় আল্লাহ্‌, আমি কি করলাম! আমার ঘরে আগুন লাগাইলো কে!’ এভাবেই বিলাপ করছিলেন বাদল মিয়া। এক প্রশ্নের জবাবে বাদল মিয়া বলেন, মামলা-টামলা কিভাবে করবো, কি করবো কিছুই জানিনা আমি।  আমি এর সুবিচার চাই।’ সমাজের বিত্তবান এবং কর্তাব্যক্তিদের এ ব্যাপারে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়ছেন অসহায় বাদল মিয়া।

Developed By The IT-Zone