ঢাকারবিবার , ১৭ জুলাই ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বানিয়াচংয়ে খালি হওয়া আশ্রয় কেন্দ্রে চলছে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা

ইমদাদুল হোসেন খান
জুলাই ১৭, ২০২২ ৫:৪৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বানিয়াচংয়ে আশ্রয় কেন্দ্র থেকে বাড়ি ফিরে গেছেন বানভাসি মানুষেরা। তবে মেধাবিকাশ উচ্চ বিদ্যালয়ে এখনও রয়ে গেছে কয়েকটি পরিবার। তাদের নিজস্ব ঘরবাড়ি না থাকায় স্থানান্তর হওয়ার জায়গা ঠিক করতে না পারায় এখনও আশ্রয় কেন্দ্র থেকে সরছেন না বলে জানিয়েছেন প্রধান শিক্ষক ভানু চন্দ্র চন্দ।

অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে বানভাসি মানুষেরা সরে যাওয়ায় শিক্ষাকার্যক্রম চালুর জন্য চলছে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করার কাজ। বানিয়াচং আইডিয়াল কলেজে দেখা গেছে পুরোদমে চলছে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করে শ্রেণীকক্ষ সাজানোর কাজ।

আগামী ২০ জুলাই থেকে সমগ্র উপজেলায় পুনরায় শিক্ষা কার্যক্রম চালুর লক্ষ্যে যেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছিল সবগুলোতেই এমন পরিস্কার পরিচ্ছন্ন অভিযান চলছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মলয় কুমার দাশ জানিয়েছেন বানিয়াচং উপজেলা বন্যা কবলিত হওয়ার পর ১৩৬টি আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছিল। পানি কমে যাওয়ায় লোকজন আশ্রয় কেন্দ্র থেকে নিজ নিজ বাড়ীতে ফিরে গেছেন।

রবিবার (১৭জুলাই) সবগুলো আশ্রয় কেন্দ্র খালি হয়ে গেছে জানিয়ে শুধু মেধাবিকাশ উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ৩টি পরিবার এখনও অবস্থান করার কথা স্বীকার করেন। তাদের ঘরবাড়ি না থাকায় অন্যের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। পুনরায় ভাড়া নেয়ার চেষ্টায় আছেন। তারাও দু/একদিনের মধ্যে চলে যাবেন।

১৩৬টি আশ্রয় কেন্দ্রে ২ হাজার ৯শত ১৯টি পরিবারের ১৪ হাজার ২শত ১৬জন বানভাসি মানুষ আশ্রয় গ্রহণ করেছিলেন। তিনি আরও জানান, ১৫টি ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী সমগ্র উপজেলায় বন্যায় ৪৫৮টি কাঁচা ঘর সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত এবং ৬হাজার ৩শত ৯৫টি কাঁচা ঘর আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনের প্রস্তাব সরকারের উচ্চ পর্যায়ে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।

Developed By The IT-Zone