ঢাকামঙ্গলবার , ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নবীগঞ্জে সিএনজি ভাড়া নিয়ে শ্রমিক ও জনতার সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক

দৈনিক আমার হবিগঞ্জ
ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২০ ৪:২৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

মোঃ হাসান চৌধুরী নবীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ  নবীগঞ্জ উপজেলার আইনগাঁও-নবীগঞ্জ সড়কে বাউসা নাম স্থানে মঙ্গলবার দুপুরে ভাড়া নিয়ে বাকবিতন্ডাকে কেন্দ্র করে সিএনজি শ্রমিক ও জনতার মাঝে ভয়াবহ সংঘর্ষে কমপক্ষে অর্ধশতাধিক লোক আহত হয়েছে। এর মধ্যে আশংকাজনক অবস্থায় রমজান মিয়া(৩০) ও ফয়জুর রহমান(৬০) নামের ২ জনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। অপর আহতদের নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি ও চিকিৎসা করা হয়েছে। এ সময় প্রায় অর্ধশতাধিক সিএনজি ভাংচুর করেছে এলাকার লোকজন। সংঘর্ষের খবর পেয়ে নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আজিজুর রহমানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে।

জানাযায়, উপজেলার আইনগাঁও-নবীগঞ্জ সড়কে সিএনজির ভাড়া নিয়ে শ্রমিকদের সাথে ওই সড়কে চলাচলকারী যাত্রীদের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিলো। বিষয়টির ব্যাপরে ৩ দিন পূর্বে বাউসা ইউনিয়ন অফিসে চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবু সিদ্দিকের সভাপতিত্বে এক সভা অনুষ্টিত হয়। ওই সভায় সিএনজি শ্রমিক নেতৃবৃন্দ ও ওই এলাকার বিভিন্ন গ্রামের মুরব্বিরা উপস্থিত ছিলেন। উভয় পক্ষের সম্মতিতে ভাড়া নির্ধারণ করে তা প্রকাশ্যে ঘোষণা করেন চেয়ারম্যান আবু সিদ্দিক। এর ৩ দিনের মাথায় মঙ্গলবার দুপুরে সিএনজি চালক আবুল মিয়া যাত্রী নিয়ে আইনগাঁও স্ট্যান্ড থেকে নবীগঞ্জ আসার পথে জনৈক যাত্রীকে বাউসা পয়েন্টে নামিয়ে দিয়ে নির্ধারিত ভাড়া ১৫ টাকা চাইলে ওই যাত্রী ১০ টাকা দিতে চাইলে উভয়ের মাঝে কথা কাঠাকাঠির শুরু হয়। এক পর্যায়ে ৭/৮ জন ব্যাসায়ীসহ বেশ কিছু লোক ওই সিএনজি চালককে জোরপূর্বক একটি দোকানের ভেতরে নিয়ে বেদরক মারপিট করেন।

এ সময় ওই লোকজন রাস্তায় দাড়িয়ে প্রায় অর্ধ শতাধিক সিএনজি ভাংচুর করেন। এছাড়া বেশ কয়েকটি গাড়ী রাস্তার পার্শ্ববর্তী খাদে ফেলে দেয় ওই লোকজন। ঘটনার খবর পেয়ে নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আজিজুর রহমান একদল পুলিশ নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করেন। মোঃ সালাম চৌধুরী(৫৫), মতিউর রহমান(৪০), মিঠু(২২), আব্দুল(২৫), রফি মিয়া(২৫), ফজল মিয়া(৩৫), আব্দুল আলী(৩২), আব্দুল ওয়াহিদ(২৬), সুমন(২২), আব্দুল ওয়াহিদ(৫৫), চদ্দর মিয়া(৪০),সাকিল(১৮)সহ আহতদের নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি ও চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

Developed By The IT-Zone